logo
বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ৮ আশ্বিন ১৪২৭

  অনলাইন ডেস্ক    ২৬ জুলাই ২০২০, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষেপ

সংবাদ সংক্ষেপ
সেই পাখির বাসা
পাখির বাসা বাঁচাতে

৩৫ দিন অন্ধকারে!

যাযাদি ডেস্ক

গ্রামের কমিউনিটি সুইচবোর্ডর মধ্যে বাসা করেছিল একটি পাখি। সেই বাসায় নীল ও সবুজ রঙের তিনটি ডিমও পাড়ে পাখিটি। সেটা দেখতে পান এক ব্যক্তি। হোয়াটসঅ্যাপ গ্রম্নপে সেই পাখির বাসার ছবি দেওয়া হয়। এরপরেই গ্রামবাসীরা সর্বসম্মতভাবে সিদ্ধান্ত নেন, ডিম ফুটে বাচ্চা না বেরুনো পর্যন্ত তারা আলো জ্বালাবেন না। সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী টানা ৩৫ দিন অন্ধকারে যাতায়াত করলেন তারা!

ভারতীয় গণমাধ্যম এই সময়ের খবরে বলা হয়েছে, দৃষ্টান্তমূলক এই ঘটনা ভারতের তামিলনাড়ুর শিবগঙ্গা জেলার পোথাকুড়ি গ্রামের। গ্রামের এক বাসিন্দা সেলভি জানান, এ কদিন ধরে মোবাইলের টর্চ, টর্চ লাইট ব্যবহার করেই কাটিয়েছি। তাতে কোনো অসুবিধা হয়নি। দিনে দিনে একটু একটু করে বড় হচ্ছে পাখির ছানাগুলো। তাদের গায়ে এখন অল্প অল্প ছোট পালক গজিয়েছে। মা পাখির মতো রংও ধারণ করেছে সেগুলো। দুটি পাখা গজিয়েছে। কদিন পরেই তারা ডানা মেলবে মুক্ত আকাশে।

স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা

স্বামী গ্রেপ্তার

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে রোজিনা বেগম (২৬) নামে এক নারীকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার স্বামী। এ ঘটনায় স্বামী ছামিউলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের পাইটকাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, ঢাকায় রোজিনা পোশাক শ্রমিকের ও ছামিউল কাঠমিস্ত্রীর কাজ করতেন। দুজনের মধ্যে দাম্পত্য কলহের জেরে মাসখানেক আগে রোজিনা বেগম তার বাবার বাড়িতে চলে যান। পরে ছামিউল সালিশের মাধ্যমে তার বাড়িতে স্ত্রীকে নিয়ে যান। শুক্রবার সকাল থেকেই আবারও দুজনের মধ্যে ঝগড়াঝাটি চলছিল। এরপর সন্ধ্যায় মাছ ধরার কথা বলে স্ত্রীকে বাড়ির পাশের বিলের মাঝে নিয়ে গিয়ে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে ছামিউল। এসময় রোজিনার চিৎকারে তার শ্বশুর-শাশুড়ি এগিয়ে এলে তাদের ধাক্কা দিয়ে পানিতে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায় ছামিউল। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেন। পরে রাতেই অভিযান চালিয়ে ছামিউলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বিদু্যৎস্পৃষ্ট হয়ে

গৃহবধূর মৃতু্য

চান্দিনা (কুমিলস্না) সংবাদদাতা

কুমিলস্নার চান্দিনায় বিদু্যৎস্পৃষ্ট হয়ে হোসনেয়ারা বেগম (৪৫) নামের এক গৃহবধূর মৃতু্য ঘটেছে। শনিবার বিকাল পৌনে ৩টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেস্নক্স সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত হোসনেয়ারা বেগম চান্দিনা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের পূর্ব বেলাশ্বর গ্রামের মো. রফিকুল ইসলামের স্ত্রী।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেস্নক্সের বাউন্ডারি দেয়াল ঘেঁষে একটি বিদু্যতের লাইন নিয়ে হোসনেয়ারা বিদু্যৎ ব্যবহার করতেন। শনিবার সকালে ওই দেয়াল সংলগ্ন স্থানে ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার করতে গিয়ে বিদু্যৎস্পৃষ্ট হন তিনি। দুপুরে পরিবারের সদস্যরা তাকে ওই দেয়ালসংলগ্ন স্থান থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে