দেশে করোনায় মৃত্যু ৫ হাজার ছাড়াল

দেশে করোনায় মৃত্যু ৫ হাজার ছাড়াল

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসজনিত অসুস্থতায় আরও ২৮ জনের মৃতু্য হওয়ার মাধ্যমে এই সংখ্যা ৫ হাজার (৫০০৭ জন) ছাড়িয়েছে। দেশে প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়ার ১৯৯ দিনের মাথায় সরকারের স্বাস্থ্য বিভাগ এই তথ্য দিয়েছে। একই সময়ে নতুন করে ১ হাজার ৫৫৭ জন ভাইরাসটিতে পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ৩ লাখ ৫২ হাজার ১৭৮ জন করোনা শনাক্ত হলেন। প্রতিদিনের মতো গতকাল মঙ্গলবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনাভাইরাসবিষয়ক এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনার সর্বশেষ সংক্রমণ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে সোমবার সকাল ৮টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত স্বাস্থ্যকর্মীরা সারাদেশ থেকে ১৪ হাজার ২৪৪টি নমুনা সংগ্রহ করেন। এরপর যাচাই-বাছাই শেষে ১৪ হাজার ১৬৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এই সংখ্যা নিয়ে এখন পর্যন্ত ১৮ লাখ ৪৮ হাজার ৪৮৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হলো। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র জানায়, শনাক্ত বিবেচনায় গত ২৪ ঘণ্টায় প্রতি ১০০ নমুনায় ১০ দশমিক ৯৯ শতাংশ এবং এখন পর্যন্ত ১৯ দশমিক ০৫ শতাংশ করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। শনাক্ত বিবেচনায় প্রতি ১০০ জনে সুস্থ হয়েছেন ৭৪ দশমিক ০৫ শতাংশ এবং মারা গেছেন এক দশমিক ৪২ শতাংশ। মৃতু্যবরণকারীদের মধ্যে ১৭ জন পুরুষ জন এবং ১১ জন নারী। এখন পর্যন্ত পুরুষ ৩ হাজার ৮৯০ জন ও নারী মারা গেছেন ১ হাজার ১১৭ জন। সর্বশেষ মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায় যায়, ৬০ ঊর্ধ্বে ১৩ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৬ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৭ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ১ জন এবং ০ থেকে ১০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন। একইভাবে বসবাসের বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়, মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৪ জন, রাজশাহী বিভাগে ১ জন, খুলনা বিভাগে ৩ জন ছাড়াও সিলেট ও রংপুর বিভাগে ১ জন করে ছিলেন। যাদের সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২ হাজার ৭৩ জন করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন। এখন পর্যন্ত সুস্থ ২ লাখ ৬০ হাজার ৭৯০ জন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তির ভাষ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ২৬১ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৬ হাজার ৩৩০ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৩৩৩ জন। এখন পর্যন্ত ছাড় পেয়েছেন ৬৩ হাজার ২২৪ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ৭৯ হাজার ৫৫৪ জনকে। এছাড়া প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিন মিলে ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ১ হাজার ১৬ জনকে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড় পেয়েছেন ১ হাজার ৫১৭ জন। এখন পর্যন্ত ছাড় পেয়েছেন ৪ লাখ ৭৯ হাজার ৫৮৯ জন। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ৫ লাখ ২৫ হাজার ৯৯২ জনকে। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৪৬ হাজার ৪০৩ জন। প্রসঙ্গত, গত ৮ মার্চ দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়ে। এর ঠিক ১০ দিনের মাথায় ১৮ মার্চ ভাইরাসটিতে প্রথম মৃতু্যর খবর আসে। প্রায় এক মাস পর ২০ এপ্রিল মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়ে যায়। গত ২৫ মে তা ৫০০ ছাড়ায়। এরপর ১০ জুন মৃতের সংখ্যা এক হাজার, ২২ জুন দেড় হাজার, ৫ জুলাই (প্রথম মৃতু্যর ৮৫ দিন পর) মৃতের সংখ্যা ২ হাজারের ঘর ছাড়িয়ে যায়। একইভাবে ২৮ জুলাই সেই সংখ্যা ৩ হাজার স্পর্শ করে। এরপর ২৫ আগস্ট মৃতের সংখ্যা ৪ হাজার এবং তার ১৩ দিন পর ৭ সেপ্টেম্বর তা সাড়ে ৪ হাজার ছাড়িয়ে যায়। এই ধারাবহিকতায় সংক্রমণ ধরা পড়ার ১৯৯ দিনের মাথায় এসে করোনায় মৃত্যের সংখ্যা পাঁচ হাজার (৫০০৭ জন) পেরিয়ে গেল। জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বিবেচনায় বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান এখন ১৫তম স্থানে। মৃতের সংখ্যায় বাংলাদেশ ২৯তম অবস্থানে রয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2020

Design and developed by Orangebd

close

উপরে