logo
বৃহস্পতিবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ০৯ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০  

তুলার বৈশ্বিক বাণিজ্য বেড়েছে

বিশ্বব্যাপী তুলার চাহিদা দিন দিন বাড়ছে। ২০১৩ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত কৃষিপণ্যটির বৈশ্বিক বাণিজ্যে মন্দা ভাব বজায় ছিল। তবে এরপর থেকে পণ্যটির বাণিজ্যে ধারাবাহিক প্রসার ঘটেছে। এ ধারাবাহিকতায় ২০১৮ সালে তুলার বৈশ্বিক বাণিজ্য বেড়েছে আগের বছরের তুলনায় ১৪ দশমিক ৯৫ শতাংশ।

\হটেক্সপ্রোর তথ্য অনুযায়ী, ২০১৬ সালে বিশ্বজুড়ে মোট ১ হাজার ৭১৯ কোটি ৯০ লাখ ডলার সমমূল্যের তুলা বাণিজ্য সংঘটিত হয়েছে। গত বছরে এসে এর পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৪৭৯ কোটি ৫০ লাখ ডলার, যা আগের বছরের তুলনায় ১৪ দশমিক ৯৫ শতাংশ বেশি। ২০২১ সাল নাগাদ পণ্যটির বাণিজ্য আরো বিস্তৃতি লাভ করতে পারে। ওই সময়ে পণ্যটির বাণিজ্য মূল্য বেড়ে ৩ হাজার ৪৫৩ কোটি ৮০ লাখ ডলারে পৌঁছাতে পারে, যা বর্তমানের তুলনায় ১১ দশমিক ৪২ শতাংশ বেশি।

২০১৬ সালে তুলার বৈশ্বিক বাণিজ্যের পরিমাণ ছিল ১ কোটি ২২ লাখ ৩৭ হাজার টন। ২০১৮ সালে তা বেড়ে দাঁড়ায় ১ কোটি ২২ লাখ ৫১ হাজার টন। ২০২১ সাল নাগাদ এর আকার আরো বেড়ে পৌঁছাতে পারে ১ কোটি ৪৩ লাখ ৯৮ হাজার টনে, যা বর্তমানের তুলনায় ৪ দশমিক ১০ শতাংশ বেশি।

এদিকে ২০১৬ সালে পণ্যটির বৈশ্বিক রপ্তানি মূল্য ছিল ৯০২ কোটি ৫০ লাখ ডলার। গত বছর এর পরিমাণ ২২ দশমিক ৫২ শতাংশ বেড়ে দাঁড়ায় ১ হাজার ৩৫৪ কোটি ৮০ লাখ ডলারে।

২০২১ সাল নাগাদ পণ্যটির রপ্তানি মূল্য বেড়ে দাঁড়াতে পারে ২ হাজার ৩০ কোটি ৩০ লাখ ডলারে, যা বর্তমানের তুলনায় ১৪ দশমিক ৪৪ শতাংশ বেশি। পরিমাণে ৭ দশমিক ১৯ শতাংশ বেড়ে দাঁড়াতে পারে ৮৬ লাখ ৮৩ হাজার টনে।

গত বছর পণ্যটির শীর্ষ রপ্তানিকারক দেশগুলো হলো যথাক্রমে যুক্তরাষ্ট্র, ইন্দোনেশিয়া, ব্রাজিল, অস্ট্রেলিয়া ও গ্রিস। এসব দেশের দখলে রয়েছে বৈশ্বিক মোট রপ্তানির ৯০ শতাংশ। পণ্যটির রফতানিতে এর পরে রয়েছে যথাক্রমে আইভরি কোস্ট, তুরস্ক, আর্জেন্টিনা, মেক্সিকো ও স্পেন।

২০১৩ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে তুলার রপ্তানি সবচেয়ে বেশি হারে বেড়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলে। এ সময়ে দেশ দুটির রপ্তানি বৃদ্ধির হার যথাক্রমে ২৮ দশমিক ৩৭ ও ৫৮ দশমিক ৮২ শতাংশ।

গত বছর তুলার শীর্ষ আমদানিকারক ছিল চীন। এ সময়ে ১৫ লাখ ৭২ হাজার ৮৭ টন তুলা আমদানি করতে দেশটি ব্যয় করেছে ৩১৬ কোটি ৫৫ লাখ ডলার। এর পরে রয়েছে যথাক্রমে ইন্দোনেশিয়া, তুরস্ক, পাকিস্তান ও ভারত। বিশ্বের মোট আমদানীকৃত তুলার ৭০ দশমিক ৬৮ শতাংশ কিনেছে এসব দেশ। এছাড়া থাইল্যান্ড, মেক্সিকো ও উত্তর কোরিয়া ছিল অন্যতম শীর্ষ আমদানিকারক।

২০১৩ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত তুলা আমদানি সবচেয়ে বেশি হারে বেড়েছে পাকিস্তান, ভারত ও ইন্দোনেশিয়ায়। আমদানিতে দেশগুলোর প্রবৃদ্ধি হার ছিল যথাক্রমে ৬১ দশমিক ২৮ শতাংশ, ৫৬ দশমিক ৮২ ও ১২ দশমিক ৮৮ শতাংশ। সূত্র: ফেব্রিটুফ্যাশন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে