logo
বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৫

  ক্রীড়া ডেস্ক   ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

আত্মবিশ্বাসী জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক

টেস্ট ক্রিকেটে জিম্বাবুয়ের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স নজরকাড়া। বাংলাদেশ সফরের আগে ঘরের মাঠে শ্রীলংকার বিপক্ষে চোখে চোখ রেখে লড়াই করেছে তারা। লংকান স্পিনারদের মোকাবিলা করেছে দারুণ সাহসিকতায়। বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্টের আগে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিনকে আত্মবিশ্বাস জোগাচ্ছে দলের সেই লড়িয়ে মানসিকতা। এবার টাইগারদের বিপক্ষে ভালো কিছুর আশা করছেন তিনি।

শ্রীলংকার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে তুমুল লড়াই করেও শেষ পর্যন্ত হেরে গিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। পরের টেস্টে তারা ঠিকই আদায় করে নেয় ড্র। ১৪ মাস পর টেস্ট খেলতে নেমেও তাদের পারফরম্যান্সে ছিল দৃঢ়প্রতিজ্ঞার প্রতিফলন। সব বিভাগেই লড়েছে তারা নিজেদের উজাড় করে। আর সেই সিরিজে নেতৃত্ব দেওয়া শন উইলিয়ামস বাংলাদেশ সফরে আসতে পারেননি পারিবারিক কারণে। তার জায়গায় অধিনায়কত্ব পাওয়া ক্রেইগ আরভিন ধরে রাখতে চান ধারাবাহিকতা। আগের সিরিজের সুবাস নিয়েই ঝাঁপিয়ে পড়তে চান মিরপুর টেস্টে। শ্রীলংকার বিপক্ষে সিরিজটি ভালো ছিল। ভালো দুটি টেস্ট কাটিয়েছি আমরা, দুটিই পঞ্চম দিনে গেছে। ওই সিরিজ থেকে পাওয়া আত্মবিশ্বাস বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচেও বয়ে আনতে চাই।'

মিরপুরের শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আজ শনিবার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে। এই মাঠের উইকেটের চরিত্র মন্থর ও স্পিন সহায়ক, জানেন আরভিন। তবে ভড়কে যাচ্ছেন না তিনি ও তার দল। এখানেও বিশ্বাসের রসদ মিলেছে শ্রীলংকার বিপক্ষে সিরিজ থেকে। লংকান সিরিজেই স্পিনারদের দারুণভাবে সামলেছে জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানরা।

আর তাই তাইজুল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ ও নাঈম হাসানদের স্পিন মোকাবিলা করতে প্রস্তুত তারা বলে জানিয়েছেন আরভিন, 'সম্প্রতি শ্রীলংকার বিপক্ষে খেলা দুটি টেস্টই ভালো কেটেছে। তাদেরও স্পিন আক্রমণ ভালো এবং আমরা তাদের বিপক্ষে ভালো খেলেছি। আমরা জানি, বাংলাদেশ যে স্পিন সহায়ক উইকেট বানাতে পারে এবং সেটির জন্য আমরা প্রস্তুত। নিজেদের ভালোভাবে প্রস্তুত করেছি আমরা।'

জিম্বাবুয়ের খেলোয়াড়রা যখন বাংলাদেশকে আপন করে নেওয়ার কথা বলছেন, তখন সময়টা ভালো যাচ্ছে না বাংলাদেশের। শেষ ছয়টি টেস্টেই হেরেছে তারা। দেশের মাটি কিংবা দেশের বাইরে। হারের চেয়েও হারের ধরন প্রশ্নবিদ্ধ। রীতিমতো নাস্তানাবুদই হচ্ছে টাইগাররা। তার ওপর যদি সফরকারীরা বাংলাদেশের কন্ডিশনে কোনো বৈরী কিছু উপলব্ধি না করে, তাহলে ভোগান্তি আরও বাড়তে পারে মুমিনুল হকদের।

বাংলাদেশের সাম্প্রতিক দুরবস্থায় জিম্বাবুয়ে এগিয়ে থাকবে কি না, এমন প্রশ্নের উত্তরে অধিনায়ক আরভিন বললেন, 'হঁ্যা, অবশ্যই। সাম্প্রতিক সময়ে টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের সময়টা বাজে যাচ্ছে। তবে ঘরের মাঠের কন্ডিশনে অবশ্যই তারা শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী। আর এই কন্ডিশনে আমরাও কিছুটা পরিচিত। আমরা প্রায়ই এখানে সফরে এসেছি। তাই আমাদের জন্য একেবারে বিদেশি কিছু বলে মনে হয় না। তাই অবশ্যই ভালো একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে।'

আরভিনের কথার যুক্তিও রয়েছে। কিছুদিন আগে শ্রীলংকার বিপক্ষেও দারুণ ক্রিকেট উপহার দিয়েছে তারা। দুই টেস্টেই হয় কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা। তাছাড়া নিজেদের মাঠে বাংলাদেশই চাপে থাকবে বলে মনে করেন জিম্বাবুইয়ান অধিনায়ক, 'ঘরের মাঠে আপনি সবসময়ই চাপ অনুভব করবেন। আর সাম্প্রতিক ফর্মের কারণে তারা আরও বেশি চাপে থাকবে। তবে আমাদের নিজেদের শক্তি ও প্রক্রিয়ার দিকে নজর দিতে হবে। বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাস নিয়ে চিন্তা করা উচিত হবে না।'

বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ জয়ের ব্যাপারে দারুণ আত্মবিশ্বাসী আরভিন, 'শ্রীলংকার বিপক্ষে আমাদের টেস্ট সিরিজটা দারুণ গেছে। আমরা দুটি ম্যাচ খেলেছি, দুটি ম্যাচই পাঁচ দিনে গড়িয়েছে। আর ওই সিরিজ থেকে আমরা মোমেন্টাম পেয়েছি। বাংলাদেশের বিপক্ষে তার ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হবে।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে