logo
সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৫

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির শেষ সিরিজ!

আমাদের বাংলাদেশ ক্রিকেট আজকে যে জায়গায় এসেছে মাশরাফির অবদান অস্বীকার করার কোনো সুযোগ নেই। তার অধিনায়কত্ব খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আবার এটাও আমরা জানি তার সময় এসেছে সিদ্ধান্ত নেয়ার যে, তিনি আর কত দিন খেলবেন। আমার ধারণা মাশরাফি এই সিরিজটায় অবশ্যই থাকছে -নাজমুল হাসান পাপন

অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির শেষ সিরিজ!
জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে মাশরাফি বিন মর্তুজা থাকবেন কি না- এই নিয়ে কদিন থেকেই চলছে ধোঁয়াশা। আর সেই ধোঁয়াশার অবসান হয়েছে। বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, ফিট থাকলে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে অধিনায়ক হিসেবেই খেলবেন মাশরাফি। তবে এরপর মাস দেড়েকের মধ্যে ওয়ানডে দলের নতুন নেতৃত্ব খুঁজে নেবেন তারা। অবসর না নিলে মাশরাফিকে তখন দলে জায়গা পেতে হবে পারফরম্যান্স দিয়ে। তাইতো বোর্ড প্রধানের আভাস জিম্বাবুয়ে সিরিজই অধিনায়ক হিসেবে হতে পারে তার শেষ সিরিজ।

জিম্বাবুয়ে সিরিজের আগে দলের কৌশল নির্ধারণী সভা করতে বুধবার মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম আসেন বোর্ড প্রধান। বুধবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে টেস্ট দলের তিন ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম, মুমিনুল হক ও তামিম ইকবালের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। সভাশেষে বেরিয়ে টেস্টের প্রসঙ্গের পাশাপাশি বড় হয়ে দেখা দেয় মাশরাফির দলে থাকা, না থাকার প্রসঙ্গ। নাজমুল জানান, ফিটনেস পরীক্ষার ব্যাপার আছে। ফিটনেসের ব্যাপারে বিপ টেস্টের কড়া নিয়ম চালু হয়েছে। তবে মাশরাফির ব্যাপারে কিছুটা নমনীয় হবেন তারা। অধিনায়ক হিসেবেই তিনি থাকবেন জিম্বাবুয়ে সিরিজে।

তবে এরপরই ওয়ানডে অধিনায়কত্ব নিয়ে নতুন করে ভাববে বোর্ড, 'মাশরাফির মতো অধিনায়ক এই মুহূর্তে আমাদের হাতে নেই। এটা সত্যি আমি সবসময় বলেও আসছি। তবে আমাদের ক্রিকেটে কিছু কিছু ব্যাপার পরিবর্তন হচ্ছে। আগে ধরেন বিপ টেস্ট ছিল না। এখন আমরা সেটা চালু করেছি। বিপ টেস্ট নাও পাশ করতে পারে মাশরাফি। একই সঙ্গে আমাদেরকে এটাও মাথায় রাখতে হবে আমাদের বাংলাদেশ ক্রিকেট আজকে যে জায়গায় এসেছে মাশরাফির অবদান অস্বীকার করার কোনো সুযোগ নেই। তার অধিনায়কত্ব খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আবার এটাও আমরা জানি তার সময় এসেছে সিদ্ধান্ত নেয়ার যে, তিনি আর কত দিন খেলবেন। আমার ধারণা মাশরাফি এই সিরিজটায় অবশ্যই থাকছে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলবে। ও যদি ফিট না হয় সেটা অন্য কথা। ওর জন্য আমরা অতটা কড়াকড়ি (ফিটনেস পরীক্ষা) করতে যাচ্ছি না।'

বিপ টেস্টের কথা বললেও খুব কড়াকড়ি যে করা হবে না, সেটিও নিশ্চিত করেছেন নাজমুল হাসান। তবে তার কথায় ইঙ্গিত মিলল, এই সিরিজের পর মাশরাফিকে অধিনায়ক হিসেবে আর দেখা যাওয়ার সম্ভাবনা সামান্যই, 'আমার ধারণা, মাশরাফি জিম্বাবুয়ে সিরিজে খেলছে অবশ্যই। যদি ফিট না হয়, সেটা তো অন্য কথা। ওর জন্য আমরা অতটা কড়াকড়ি করতে যাচ্ছি না। তবে খুব শিগগিরই আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কারণ সামনের বিশ্বকাপের দিকে তাকিয়ে আমাদের অধিনায়ক ও দল গোছাতে হবে অন্তত ২ বছর আগে। এখানে খুব বেশি সমস্যা নাই। এক-দেড় মাসের মধ্যে হয়তো পরিষ্কার হয়ে যাবে। এই সিরিজ পর্যন্ত আমরা অপেক্ষা করছি।'

ক্রিকেটার হিসেবে মাশরাফির ভবিষ্যতের সিদ্ধান্ত তার হাতেই ছেড়ে দিচ্ছে বোর্ড। সামনে দল নির্বাচনে আর সব ক্রিকেটারের মতোই বিবেচনা করা হবে তাকে। তবে ২০২৩ বিশ্বকাপের দিকে তাকিয়ে দল গোছানোর জন্য নেতৃত্বে তেমন কাউকে আনতে চান বোর্ড সভাপতি, 'মাশরাফি খেলতে চাইলে খেলতেই পারে। তবে আমার ভাবনায় বেশি আছে নেতৃত্ব। নেতৃত্ব নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর, অন্য কাউকে যদি আমরা ঘোষণা করে দেই (অধিনায়ক), এরপর যদি ও পারফরম্যান্স দিয়ে দলে ঢুকতে পারে তো ঢুকবে। কারও জন্যই এখানে বাধা নেই। অধিনায়কের ব্যাপারে হয়তো এক মাসের মধ্যেই আমরা সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেব। ভবিষ্যতে নেতৃত্ব দিতে পারে, এমন কাউকেই আমরা বেছে নেব হয়তো।'

তবে এই সিরিজই অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির শেষ কি না, সেটি নিশ্চিত করলেন না নাজমুল হাসান, 'এই সিরিজে অধিনায়ক হিসেবেই খেলছে। শেষ সিরিজ কি না, সেটি বলছি না। বোর্ড সভা ডেকেছি, আগামী ৮-৯ তারিখের দিকে, সেখানেই সিদ্ধান্ত হবে।'

জিম্বাবুয়ের ১, ৩, ৬ মার্চ সিলেটে তিন ওয়ানডের সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ ম্যাচের পর আর জাতীয় দলের জার্সিতে দেখা যায়নি মাশরাফিকে। বিশ্বকাপের পর শ্রীংলকা সফরেও ওয়ানডে খেলেছিল বাংলাদেশ, ওই সিরিজে চোটের কারণে শেষ মুহূর্তে বাদ যান মাশরাফি। সম্প্রতি মাঠে এসে ফিটনেস নিয়ে কাজ করছেন বাংলাদেশের সফলতম অধিনায়ক।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে