logo
শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৬

  ক্রীড়া ডেস্ক   ২০ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

বার্সাকে টপকে ফের শীর্ষে রিয়াল

চোটের কারণে আক্রমণভাগের বেশ কয়েকজন তারকা ছিলেন না একাদাশে। যে কারণে শনিবার রাতে ঘরের মাঠে স্প্যানিশ লাগা লিগায় সেভিয়ার বিপক্ষে প্রথমার্ধে বেশ ভুগতে হয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদকে। তবে দ্বিতীয়ার্ধে দলটি ফেরে স্বরূপে। কাসেমিরোর জোড়া লক্ষ্যভেদে ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে জিদানের দল। আর এই জয়ে ২০ ম্যাচ থেকে ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে বার্সেলোনাকে পেছনে ফেলে আবারও টেবিলের শীর্ষে ফিরল রিয়াল।

সানিয়াগো বার্নাবু্যয়েতে প্রথমার্ধে দুই পারফরম্যান্স ছিল সাদামাটা। ইডেন হ্যাজার্ড, গ্যারেথ বেল ও সার্জিও রামোসকে ছাড়া খেলতে নামা রিয়াল বল দখলে একটু এগিয়ে থাকলেও আক্রমণভাগে মোটেও সুবিধে করতে পারেনি। মাঝে সেভিয়া কিছুটা গোছালো ফুটবল খেলার চেষ্টা করলেও সাফল্যের দেখা মেলেনি। এমনকি করিম বেনজেমাকে বেঞ্চে রেখে খেলতে নামা জিদানের দলটি। তিনটি গোলই হয় দ্বিতীয়ার্ধে। যদিও প্রথমার্ধের ৩০ মিনিটে রিয়ালের জালে অবশ্য বল জড়িয়ে ছিলেন সেভিয়ার ডাচ ফরোয়ার্ড লুক ডি ইয়ং। কিন্তু এর আগমুহূর্তে ডিফেন্ডার এদের মিলিতাও ফাউলের শিকার হলে ভিএআরের সাহায্যে গোল দেননি রেফারি। সিদ্ধান্তটি নিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে।

বিরতির পর অবশ্য গোছাল ফুটবল খেলে রিয়াল। আর সেই সুবাদে ৫৭ মিনিটে গোলের অপেক্ষা ফুরায় দলটির। লুকা ইয়োভিচের ব্যাকহিলে ডি-বক্সে বল পেয়ে কোনাকুনি শটে ঠিকানা খুঁজে নেন কাসেমিরো। যদিও স্বাগতিকদের এগিয়ে যাওয়ার স্বস্তিটা বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। ৬৪ মিনিটে বাঁ পায়ের জোরালো শটে দূরের পোস্ট দিয়ে জালে বল পাঠিয়ে সমতা টানেন সেভিয়ার ডি ইয়ং। তবে স্বাগতিকদের হতাশ হতে দেননি কাসেমিরো। ৬৯তম মিনিটে ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ফের এগিয়ে দেন দলকে। এবার ডান প্রান্ত থেকে লুকাস ভাসকেসের ক্রসে লাফিয়ে দারুণ হেডে দ্বিতীয় গোলটি করেন তিনি। রিয়ালের জার্সিতে প্রথম জোড়া গোল করেন কাসেমিরো। আর শেষ দিকে টনি ক্রুসকে ঠেকিয়ে ভ্যাকলিক রিয়ালের তৃতীয় গোল হতে দেননি।

কিন্তু ম্যাচ শেষ হওয়ার মিনিট দুয়েক আগে দারুণ সুযোগ পেয়েছিল সেভিয়া। তবে গোললক্ষককে একা পেয়েও মরক্কোর ফরোয়ার্ড ইয়োসেফ লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নিলে পুরো তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিয়াল। আর তাতেই চলতি লা লিগায় বার্সেলোনাকে টপকে ফের টেবিলের শীর্ষে ওঠে যায় জিদানের দল। এই জয়ে ২০ ম্যাচে রিয়ালের পয়েন্ট ৪৩। এক ম্যাচ কম খেলা বার্সেলোনা ৪০ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে নেমে গেছে। ১৯ ম্যাচে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে তিনে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। এক ম্যাচ বেশি খেলা সেভিয়ার পয়েন্টও ৩৫, তবে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে চারে আছে তারা।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে