logo
বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ২০ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

বাংলাদেশ-পাকিস্তান সিরিজ

মাহমুদউলস্নাহ-মেহেদী ছাড়াই প্রস্তুতি শুরু

রোববার থেকে প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু করেছে টাইগাররা। বঙ্গবন্ধু বিপিএলের কারণে এতদিন পাকিস্তান সফরের প্রস্তুতি নিতে পারেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দল

মাহমুদউলস্নাহ-মেহেদী ছাড়াই প্রস্তুতি শুরু
দুইদিন আগে শেষ হয়েছে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের আসর। এবার পাকিস্তান সফরকে কেন্দ্র করে রোববার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলন শুরু করেছেন সৌম্য সরকার-আল আমিন-রুবেলরা -বিসিবি
আর মাত্র চার দিন পরেই পাকিস্তানের মাটিতে টি২০ সিরিজে মাঠে নামবে মাহমুদউলস্নাহ রিয়াদের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ। তিন ম্যাচের এই সিরিজ সামনে রেখে রোববার থেকে প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু করেছে টাইগাররা। দুপুর দুটা থেকে শুরু হয় প্রথম দিনের প্রস্তুতি পর্ব। তবে সেখানে ছিলেন না দলের অধিনায়ক মাহমুদউলস্নাহ রিয়াদ। এছাড়া দীর্ঘদিন পর ফের ডাক পাওয়া তরুণ অলরাউন্ডার মেহেদী হাসানও অনুপস্থিত ছিলেন। বঙ্গবন্ধু বিপিএলের কারণে এতদিন পাকিস্তান সফরের প্রস্তুতি নিতে পারেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

২০১৮ সালের জানুয়ারিতে শ্রীলংকার বিপক্ষে টি২০ ম্যাচ খেলেছিলেন মেহেদী। সে ম্যাচে প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারায় দল থেকে বাদ পড়েছেন। দুই বছর পর ফের জাতীয় দলে ডাক পেয়ে প্রথম দিনের প্রস্তুতি পর্বে না থাকায় কিছুটা গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়। পরে জানা যায় মায়ের অসুস্থতার জন্য অনুশীলনে আসতে পারেননি এ তরুণ। আর অধিনায়ক মাহমুদউলস্নাহ হুট করে জ্বরে ভুগছেন। তাই দুই ক্রিকেটার ছাড়া শুরু হয় পাকিস্তান সিরিজের প্রস্তুতি।

তবে পাকিস্তানের জন্য ডাক পাওয়া ১৫ সদস্যের বাইরেও বেশ কিছু খেলোয়াড়কে অনুশীলনে দেখা গেছে। তাইজুল ইসলাম, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও এবাদত হোসেন অনুশীলন করেছেন দলের সঙ্গে। টি২০ সিরিজে না থাকলেও ওয়ানডে এবং টেস্ট সিরিজে তারা বিবেচনায় ভালো মতোই রয়েছেন। তাই অনুশীলন ক্যাম্পে রাখা হয়েছে তাদের।

দলের প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর অধীনে অনুশীলন করেন ক্রিকেটাররা। এছাড়া ট্রেনার মারিও ভিলস্নাভারায়ন, ফিল্ডিং কোচ সোহেল ইসলাম, পেস বোলিং কোচ চম্পাকা রামানায়াকে ছিলেন এদিন। দলের বাকি কোচিং স্টাফ দু-এক দিনের মধ্যেই যোগ দিবেন বলে জানা গেছে। এমনকি আজ-কালের মধ্যে নতুন পেস বোলিং কোচও ঘোষণা করে হতে পারে বলে জানিয়েছেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। সেক্ষেত্রে তিনিও যোগ দেবেন ক্যাম্পে।

ভারত সফরের পর আবারও একসঙ্গে মিলিত হয়েছেন জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা। এবারের ক্যাম্পে কোনো খেলোয়াড়কে ফিটনেস টেস্ট দিতে হচ্ছে না। যেহেতু সব খেলোয়াড় বিপিএলের খেলার মধ্যে ছিল, তাই সবার ফিটনেস দারুণ বলে জানা গেছে। এজন্য ফিটনেস টেস্ট নিচ্ছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

এবারের ক্যাম্প টানা তিন দিন চলবে। ২১ জানুয়ারি পর্যন্ত ক্যাম্পে নিজেদের স্কিল নিয়ে কাজ করবেন ক্রিকেটাররা। আর ২২ জানুয়ারি পাকিস্তানের উদ্দেশে উড়াল দিবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। পাকিস্তানে সরাসরি ফ্লাইটে যাওয়ার সুযোগ নেই। তাই দুবাই হয়ে পাকিস্তান যাবে ক্রিকেটাররা।

এদিন টাইগারদের অনুশীলন দেখতে মাঠে উপস্থিত ছিলেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। দলের খোঁজখবর নিতেই তিনি মাঠে এসেছেন বলে জানান। তার সঙ্গে ছিলেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন, অপারেশন্স কমিটির ম্যানেজার সাব্বির খান, প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নুসহ আরও কয়েকজন কর্মকর্তা।

পাকিস্তান সফরের ব্যাপারে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বিসিবি সভাপতি। এ সময় তাকে পাকিস্তান সফর কভার করতে যাওয়া বাংলাদেশি সাংবাদিকদের নিরাপত্তার ব্যাপারে প্রশ্ন করা হয়। উত্তরে তিনি জানান, সাংবাদিকদের নিরাপত্তার ব্যাপারেও তারা ভাবছেন। নির্দিষ্ট পদ্ধতির মাধ্যমে যেয়ে নিরাপত্তাব্যবস্থায় দায়িত্বরত ব্যক্তিদের সে সম্পর্কে অবগত করা হবে জানান তিনি।

সাংবাদিকদের নিরাপত্তার ব্যাপারে পাপন বলেন, 'সাংবাদিকরা কি আমাদের সঙ্গে যাচ্ছে? আমরা এগুলো নিয়েও কথা বলব আজ। আপনারা কী আমাদের সঙ্গে যাবেন না কি আলাদা? যদি আলাদা যান তাহলে সেটা ভিন্ন কথা। একসঙ্গে গেলে ব্যাপারটা সহজ হবে।'

বোর্ড সভাপতি আরো বলেন, 'সর্বোচ্চ নিরাপত্তা যেন আপনারাও পান সেই দায়িত্বও আমাদের। আপনারা কে কে যাচ্ছেন এসব যদি আমাদের বিস্তারিত জানান, আমরা অবশ্যই দায়িত্বরতদের জানাব। তাদের বলে দিব যেন আপনাদের জন্য সর্বোচ্চ নিরাপত্তাদানের ব্যাপারটা নিশ্চিত করা হয়।'

প্রথম দফায় আগামী ২৪ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে পাকিস্তানের বিপক্ষে টি২০ সিরিজ। সিরিজের বাকি দুই ম্যাচ ২৫ ও ২৭ জানুয়ারি। ২৩ জানুয়ারি সকালে সেখানে পৌঁছবে বাংলাদেশ দল। এ সিরিজ লক্ষ্য রেখে শনিবারই ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এদিন থেকে শুরু হয়েছে তিন দিনের অনুশীলন। চলবে মঙ্গলবার পর্যন্ত।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে