logo
শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  ক্রীড়া ডেস্ক   ২৩ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

লিটনের বদলি মিরাজ, নাঈমের বদলি তাইজুল

কলকাতা টেস্টের সফরকারী বাংলাদেশ দলের একাদশ থেকে বাদ পড়েছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। কিন্তু লিটন দাস মাথায় আঘাত পেয়ে ছিটকে যাওয়ায় তার 'কনকাশন' বদলি হিসেবে ইডেন গার্ডেন্সে ঐতিহাসিক দিবা-রাত্রির টেস্টে খেলতে নামার সুযোগ পেয়েছেন তিনি। একই সঙ্গে বাংলাদেশের ক্রিকেটে প্রথমবার যোগ হলো 'কনকাশন-সাব'। আইসিসির খেলোয়াড় বদলির নতুন নিয়মে মাথায় আঘাত পাওয়া লিটনের বদলি হিসেবে ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

এদিকে ভারতীয় পেসারদের তোপে কয়েক ওভার পর আবারও কনকাশন-সাব নেওয়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। নাঈম মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হলেও ব্যাট করে গেছেন সাজঘরে ফেরার আগ পর্যন্ত। তবে ম্যাচ শেষে জানা গেল নাঈমের বদলেও প্রয়োজন হচ্ছে কনকাশন সাব। তার বদলে খেলবেন স্পিনার তাইজুল ইসলাম।

বিসিবির মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানান, 'হাসপাতালে লিটনের স্ক্যান করা হয়েছে। ম্যাচের বাকি দিন আর খেলবেন না লিটন। মেহেদী হাসান মিরাজ কনকাশন সাব হিসেবে খেলবেন।' পরে অবশ্য ছেড়ে দেওয়া হয় লিটনকে।

কলকাতা টেস্টের প্রথম দিনের লাঞ্চ বিরতির আগে মোহাম্মদ সামির একটি শর্ট ডেলিভারি আঘাত করে লিটনের হেলমেটে। মাঠে চিকিৎসা নিয়ে খেলা চালিয়ে যান তিনি। কিন্তু ব্যাটিংয়ে বেশ অস্বস্তিতে ভুগছিলেন। দ্বিতীয় দফায় আরেকবার

ফিজিও'র সাহায্য নিতে হয় তাকে। এরপর আর লিটনকে নিয়ে ঝুঁকি নেয়নি বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্ট। লাঞ্চ বিরতির আর মাঠে নামেননি এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। রিটায়ার্ড হার্ট হয়েছেন ২৪ রান করে।

লাঞ্চের পর ক্রিজে থাকা নাঈম হাসানের সঙ্গে মাঠে নামেন এবাদত হোসেন। এই ব্যাটসম্যানের আউটের পর 'কনকাশন-সাব' হিসেবে মাঠে আসেন মিরাজ। আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী, কেবলমাত্র মাথায় আঘাত পাওয়া খেলোয়াড়দের বদলি নামানোর সুযোগ আছে। স্কোয়াডে থাকা খেলোয়াড়দের মধ্য থেকে ব্যাটসম্যানের বদলে ব্যাটসম্যান ও বোলারদের পরিবর্তে বোলার নামতে পারেন।

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের মধ্য দিয়ে বদলি খেলোয়াড়ের নতুন এই নিয়ম চালু করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। নিয়ম অনুযায়ী, মাথায় আঘাত পাওয়া খেলোয়াড়ের পরিস্থিতি বিচার করে ম্যাচ রেফারি ব্যাটিং বা বোলিংয়ের জন্য বিকল্প খেলোয়াড়কে নামার অনুমতি দিয়ে থাকেন। আঘাতপ্রাপ্ত খেলোয়াড় যে ধরনের হন, বদলি নামাতে হয় সে ধরনেরই। অর্থাৎ কোনো ব্যাটসম্যানের বিকল্প হিসেবে নামতে পারেন আরেক ব্যাটসম্যান, বোলারের পরিবর্তে বোলার। তাই মিরাজকে খেলতে হবে স্রেফ ব্যাটসম্যান হিসেবে।

চলতি বছরের অ্যাশেজে প্রথমবার ক্রিকেট বিশ্ব 'কনকাশন-সাব' দেখেছিল স্টিভেন স্মিথের মাথায় আঘাত পাওয়ার মাধ্যমে। ইংল্যান্ড-অস্ট্রলিয়ার টেস্টে স্মিথের বদলি হিসেবে নেমেছিলেন মার্নাস লেবুশানে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে