logo
রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০  

শামসুন্নাহারদের প্রতিশোধের ম্যাচ

সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ

নারী ফুটবলে বাংলাদেশের অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে দাঁড়িয়েছে ভারত। আর অনূর্ধ্ব ১৫ নারী সাফ টুর্নামেন্টে তো সে প্রতিদ্বন্দ্বিতাটা আরও বেশি। গত দুই আসরে দুদলের লড়াইটা হয়েছে হাড্ডা-হাড্ডি। একবার বাংলাদেশ শিরোপা জেতে তো অন্যবার ভারত। গ্রম্নপ পর্বের লড়াইটাও হয় শ্বাসরুদ্ধকর। ভুটানের চাংলিমিথান স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্টের ফাইনালে আজ বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায় আরও একবার মুখোমুখি হচ্ছে এই দুই দল। গত আসরে এই ভারতের কাছেই হেরে মুকুট হারাতে হয়েছিল বাংলাদেশের। তাই আজকের এই ম্যাচটি শামসুন্নাহারদের জন্য প্রতিশোধের ম্যাচ।

সিনিয়র পর্যায়ে যেমনটাই হোক। বয়সভিত্তিক আসরে ভারত যেন বাংলাদেশের অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে দাঁড়িয়েছে। বাংলাদেশকে হারিয়ে দেয়া যেমন ভারতের মেয়েদের জন্য কঠিন। তেমনই কোনো কোনো সময় ভারতই কঠিন প্রতিপক্ষ হয়ে দাঁড়ায় লাল-সবুজের মেয়েদের সামনে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী সাফ অনূর্ধ্ব ১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসর থেকেই বাংলাদেশের অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী ভারত। ২০১৭ সালে সাফের এই টুর্নামেন্টটা হয় রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে। তাই একই গ্রম্নপে প্রতিটি দলই একে অপরের সঙ্গে একটি করে ম্যাচ খেলে। ভারতও খেলেছে বাংলাদেশের বিপক্ষে। ওই ম্যাচে ৩-০ গোলে জয় পেয়েছিল ছোটন শিষ্যরা। সেবার বাংলাদেশ গ্রম্নপ চ্যাম্পিয়ন ও ভারত গ্রম্নপের রানার্সআপ হওয়াতে এবারের মতোই ফাইনালে খেলে এই দুই দল। যেখানে ভারতকে ১-০ গোলে হারিয়ে দিয়ে নিজেদের ঘরে এবং প্রথম বারের মতো শিরোপা জিতে লাল-সবুজের মেয়েরা। পরের আসরটি হয়েছে গত বছর ভুটানে। দল বেশি হওয়াতে সেবার দুই গ্রম্নপে খেলেছে দলগুলো। 'এ' গ্রম্নপে ভারত খেলেছিল ভুটান, শ্রীলংকার সঙ্গে। 'বি' গ্রম্নপে বাংলাদেশ খেলে নেপাল ও পাকিস্তানের সঙ্গে। গ্রম্নপে দেখা না হলেও সেমিতে দেখার হবার একটা সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু ভারত ও বাংলাদেশ দু' গ্রম্নপের চ্যাম্পিয়ন হওয়াতে সেখানেও দেখা হয়নি। অবশেষে শেষ চারে জিতে ফাইনালের টিকিট পায় ভারত ও বাংলাদেশ। লড়াইয়ে ভারতের কাছে মাত্র ১-০ গোলে হেরে শিরোপার মুকুটটি ভারতের কাছে তোলে দিতে হয়েছিল বাংলাদেশের। চলতি আসরের গ্রম্নপ পর্বে সেই হারের প্রতিশোধ নেবার সুযোগ এলেও ১-১ গোলের ড্র করাতে সেটি সম্ভব হয়নি। এবার ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা পুনরুদ্ধার করে গত আসরের হারের প্রতিশোধ নেবার সুযোগ এসেছে সামসুন্নাহার-রিপাদের।

কোচ ছোটন আশা করছেন অন্যান্য আসরের মতো এবারও ফাইনাল ম্যাচটাও হবে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ দলের অন্যতম সফল এই কোচ বলেছেন, 'ফাইনাল খেলাটি যথেষ্ট প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে। যে কোনো দলই জিততে পারে। সবার জন্য ফিফটি-ফিফটি চান্স।'

সেই সঙ্গে একটি দুঃসংবাদও দেন ছোটন, 'দলে একটি ইনজুরি সমস্যা আছে। আমাদের অধিনায়ক-ফরোয়ার্ড শামসুন্নাহার জুনিয়র গ্রোয়েন ইনজুরিতে পড়েছে।'

তাহলে কি অধিনায়কের ফাইনালে খেলার সম্ভাবনা নেই? 'এটা এখনই বলা যাচ্ছে না। আমাদের হাতে এখনো বেশ কয়েকঘণ্টা সময় আছে ফাইনালের আগে। আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করছি শামসুন্নাহারকে ফিট করে তোলার জন্য। ওর জন্য শেষ পর্যন্ত অপেক্ষা করব। দেখা যাক কি হয়।' ছোটনের জবাব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে