logo
সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

ম্যানইউ-আর্সেনালের শুভ সূচনা

ম্যানইউ-আর্সেনালের শুভ সূচনা
ম্যানইউয়ের জয়ের নায়ক ইংলিশ স্ট্রাইকার ম্যাসন গ্রিনউড -ওয়েবসাইট
ক্রীড়া ডেস্ক

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের তারুণ্যনির্ভর দল কোচ উলা গুনার সুলশারের আস্থার প্রতিদান দিয়েছে। যদিও নিজেদের মাঠে কাজাখস্তানের ক্লাব আস্তানার বিপক্ষে পয়েন্ট হারাতে বসেছিল রেড ডেভিলরা। বৃহস্পতিবার রাতে ১৭ বছর বয়সি ম্যাসন গ্রিনউডের একমাত্র গোলে জয় দিয়েই ইউরোপা লিগ শুরু করেছে ম্যানইউ। রাতের আরেক ম্যাচে গত আসরের রানার্সআপ আর্সেনাল ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে আইন্ত্রাখত ফ্রাঙ্কফুর্টকে। ম্যানইউ এবং আর্সেনালের মতো ইউরোপা লিগে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে পোর্তো, গেটাফে, ডায়নামো কিয়েভ, সেভিয়া, পিএসভি ও রোমা।

ইউরোপা লিগের 'এল' গ্রম্নপের খেলায় ম্যানইউর হয়ে প্রথম গোল করেন ম্যাসন গ্রিনউড। একেবারে তরুণ একটি দল মাঠে নামান সুলশার। তাহিথ চং, অ্যাঞ্জেল গোমেস, অ্যাক্সেল টুয়ানজেবে ও গ্রিনউড জায়গা করে নেন একাদশে। অ্যাশলে ইয়াং ও গোলরক্ষক দাভিদ দে গেয়া না থাকায় অধিনায়কত্ব করেন নেমাঞ্জা মাতিচ। ম্যাচের শুরু থেকে প্রতিপক্ষের জন্য বিপজ্জনক হয়ে ওঠে ম্যানইউ। প্রথম ১০ মিনিটে ফ্রেডের একটি শট লাগে ক্রসবারে এবং খুব কাছ থেকে মার্কাসর্ যাশফোর্ডের প্রচেষ্টা রুখে দেন আস্তানা গোলরক্ষক নেনাদ এরিক। বল দখলে দাপট ধরে রেখে আক্রমণ করতে থাকে স্বাগতিকরা। আরও একবারর্ যাশফোর্ডকে ঠেকিয়ে প্রথমার্ধ গোলশূন্য রাখেন এরিক।

দ্বিতীয়ার্ধেও সুযোগ নষ্ট করতে থাকে রেড ডেভিলরা। গোমেসের বদলে হুয়ান মাতা এবং চংয়ের জায়গায় জেসি লিনগার্ড মাঠে নামতে বদলে যায় খেলা। তবে সব আলো কেড়ে নেন গ্রিনউড। একক চেষ্টায় ডান দিক থেকে দারুণ এক গোল করেন এই ফরোয়ার্ড। এই গোলে ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতার মর্যাদা পান ১৭ বছর ৩৫৩ দিন বয়সী গ্রিনউড। ভেঙে দেন তিনি ১৮ বছর ১১৭ দিন বয়সির্ যাশফোর্ডের গড়া রেকর্ড। খেলার শেষ দিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করার সুযোগ পেয়েছিল ম্যানইউ। ডিওগো ডালোটের জোরালো শট গোলবারে আঘাত লাগে। ২০ গজ দূর থেকে নেয়া লিনগার্ডের ফিরতি শটও লাগে পোস্টে। আগামী ৩ অক্টোবর ম্যানইউ পরের ম্যাচ খেলবে এজেড আল্কমারের মাঠে।

অপরদিকে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের আরেক দল আর্সেনালও জিতেছে তরুণ খেলোয়াড় বুকায়ো সাকার নৈপুণ্যে। ১৮ বছর বয়সি এই ইংলিশ উইঙ্গার একটি গোল করেছেন, বাকি দুটি গোলেও অবদান রেখেছেন অ্যাসিস্ট করে। জার্মানিতে 'এফ' গ্রম্নপের এই ম্যাচে ৩৮ মিনিটে প্রথম গোল করে গানাররা। জোসেফ উইলকের শট প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়ের গায়ে লেগে গোলরক্ষক কেভিন ট্রাপকে পরাস্ত করে। আর্সেনালের ব্যাকআপ গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেসের কয়েকটি দারুণ সেভে প্রথমার্ধ ১-০তে এগিয়ে থেকে শেষ করে আর্সেনাল। দ্বিতীয় গোলের খোঁজে নতুন খেলোয়াড় নিকোলাস পেপেকে মাঠে নামায় তারা।

কিন্তু স্বাগতিক গোলরক্ষক মার্তিনেস বারবার তাদের ব্যর্থ করেন। কিন্তু ৭৯ মিনিটে ডোমিনিক কোর সাকাকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লে ১০ জনের দল নিয়ে আর পেরে ওঠেনি ফ্রাঙ্কফুর্ট। দুর্দান্ত কাউন্টার অ্যাটাকে ৮৫ মিনিটে পেপের অ্যাসিস্টে বাঁ পায়ের শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সাকা। দুই মিনিট পর রক্ষণের ভুলে আরও একটি গোল হজম করে জার্মান দল। সাকার বাড়িয়ে দেয়া বলে পিয়েরে এমেরিক অবেমেয়াং করেন তৃতীয় গোল। আগামী ৩ অক্টোবর ঘরের মাঠে বেলজিয়ান ক্লাব স্টান্ডার্ড লিয়েজের মুখোমুখি হবে গানাররা।

এদিকে নিজেদের ঘরের মাঠে ইতালিয়ান জায়ান্ট এএস রোমা ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে ইস্তানবুল বাসাকসেহির। আর জে গ্রম্নপের এই ম্যাচে জুনিয়র কাইসারার আত্মঘাতী গোলে এগিয়ে যায় রোমা। বিরতির পর এডিন ডেকো, নিকোলো জানিওলো ও জাস্টিন ক্লুইভার্ট করেন বাকি গোলগুলো। আর ইয়ং বয়েজকে ২-১ গোলে পোর্তো এবং ক্রাবাগকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে সেভিয়া।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে