logo
সোমবার ২৪ জুন, ২০১৯, ১০ আষাঢ় ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১৩ জুন ২০১৯, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষপে

ম্যাচ খেলেই পয়েন্ট পেতে চায় শ্রীলংকা

ক্রীড়া প্রতিবেদক

চারটি ম্যাচ খেলেছে শ্রীলংকা। তিনটিই বৃষ্টিতে পড়েছে। যার দুটি বৃষ্টিতে মাঠেই গড়ায়নি। সেই দুই ম্যাচ থেকে শ্রীলংকা পেয়েছে দুই পয়েন্ট। আর কার্ডিফে আফগানিস্তানের বিপক্ষে বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে জয় পেয়েছে শ্রীলংকা। দুটি ম্যাচ বৃষ্টিতে বাতিল। তারপরও শ্রীলংকা স্বস্তিতে! চার ম্যাচে মোট চার পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে তারা।

ব্রিস্টলে বাংলাদেশের সঙ্গে ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ার পর লংকান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে বলেছেন, এভাবে বৃষ্টির কারণে নয়, ম্যাচ খেলেই পয়েন্ট পেতে চান তারা।

বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হওয়া দুটো ম্যাচ মাঠে গড়ালে শ্রীলংকা হয়তো বা কোনো পয়েন্টই পেত না! হারতো! ব্রিস্টলে বৃষ্টির কারণে যে দুটো ম্যাচ শ্রীলংকার বাতিল হয়েছে সেই দুই ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ ছিল পাকিস্তান ও বাংলাদেশ।

কোনো পয়েন্ট না পাওয়ার চেয়ে অন্তত একটা পয়েন্ট পাওয়া গেছে তাতেই খুশি। তাতেই স্বস্তি। ম্যাচ শেষে লংকান অধিনায়ক দ্বিমুথ করুনারত্নে বলছিলেন- 'আমরা এখানে ক্রিকেট খেলতে এসেছি। তবে কখনো কখনো ম্যাচের পয়েন্ট ভাগাভাগি হয়। এটাও ভালো। কিন্তু সেই সঙ্গে আমি এটাও জানিয়ে দিতে চাই- আমরা ফ্রিতে পয়েন্ট পেতে চাই না। ম্যাচে খেলে, জিতেই পয়েন্ট পেতে চাই। দুর্ভাগ্যক্রমে বৃষ্টিতে খেলা হলো না এখানে। কি আর করা, এই ম্যাচের এক পয়েন্ট পেয়েই আমরা খুশিমনে পরের ম্যাচে খেলতে যাচ্ছি।'

আগামী শুক্রবার ওভালে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে শ্রীলংকা। এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে প্রায় ১১ দিন প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট থেকে দূরে থাকছে তারা। এটা নিয়ে খানিকটা দুশ্চিন্তায় আছেন করুনারত্নে, 'আমরা সবাই মাঠে নামার জন্য মুখিয়ে আছি। দেশের দর্শকরাও আমাদের খেলতে দেখতে চায়। কিন্তু আবহাওয়ার ওপর তো কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই আমাদের। নিজেদের প্রস্তুতিটা নিতে থাকব। সামনে অনেক কঠিন ম্যাচ আছে। গত কয়েকদিন আমরা ম্যাচ খেলতে পারিনি, পরের ম্যাচের আগে সেই বিরতিটা দাঁড়াবে ১১ দিনে। এটার সাথে নিজেদের মানিয়ে নিতে হবে।'

ধাওয়ানের চোটে বিকল্প পান্ত

ক্রীড়া ডেস্ক

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভারতের দাপুটে জয়ে ভূমিকা ছিল ওপেনার শিখর ধাওয়ানের। তার সেঞ্চুরিতে ভর করে জয়ের মঞ্চটা গড়ে তারা। বিশ্বকাপে দলকে দারুণ শুরু এনে দেয়া এই বাঁহাতি ওপেনারের ইনজুরি বড় ধাক্কা হয়ে এসেছে ভারতীয় শিবিরে। তার বদলি হিসেবে আনা হচ্ছে উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ঋষভ পান্তকে।

শুরুতে শিখর ধাওয়ানের চোটের খবরটা নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য মিলছিল। বলা হচ্ছিল বিশ্বকাপই শেষ তার! পরে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, বাম হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলের চোটে আপাতত পর্যবেক্ষণে থাকবেন তিনি। তাই দলের সঙ্গে রাখা হচ্ছে তাকে। তবে হেয়ারলাইন ফ্র্যাকচারের ফলে দুই ম্যাচে নিউজিল্যান্ড ও পাকিস্তানের বিপক্ষে তাকে পাচ্ছে না ভারত।

এ অবস্থায় ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) একজন কর্মকর্তা পিটিআইকে জানিয়েছেন শিখর ধাওয়ানের জায়গায় ইংল্যান্ডে উড়ে যাচ্ছেন ঋষভ পান্ত। অথচ তার বিশ্বকাপ দলে জায়গা না হওয়ায় অনেক সমালোচনা হয়েছে ভারতে। অবশেষে তাকে সুযোগ দিয়েছে বিসিসিআই। বুধবারই ইংল্যান্ডে পোঁছানোর কথা রয়েছে তার। আর ভারতের পরের ম্যাচ বৃহস্পতিবার।

পান্ত সেখানে পৌঁছে দলের সঙ্গে অনুশীলন করবেন। শিখর ধাওয়ানের ইনজুরির অবস্থার ওপর বিবেচনা করেই আইসিসির কাছে বদলির আনুষ্ঠানিকতা সারবে ম্যানেজমেন্ট। অবশ্য বিসিসিআই আশাবাদী ধাওয়ানের দ্রম্নত সুস্থ হয়ে ওঠার ব্যাপারে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্যাটিংয়ের সময় বৃদ্ধাঙ্গুলে চোট পান ধাওয়ান। তখন বোলিংয়ে ছিলেন অস্ট্রেলিয়া পেসার প্যাট কামিন্স।

ব্রাজিল-বলিভিয়ার ম্যাচ দিয়ে কোপার লড়াই শুরু

ক্রীড়া ডেস্ক

কোপা আমেরিকার এবারের আসর বসছে ব্রাজিলে। মোট ১২টি দল অংশগ্রহণ করছে দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবলের সর্বোচ্চ মহাযজ্ঞ। ২০১৯ কোপা আমেরিকায় অংশ নিতে চলা ১০ দল লাতিন আমেরিকার। আর বাকি দুটি দল আমন্ত্রিত। এবারের আসরে এশিয়া থেকে কাতার ও জাপানকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। মোট তিনটি গ্রম্নপে অংশ নিচ্ছে দলগুলো।

ব্রাজিলের পাঁচটি শহরে বসতে চলেছে দক্ষিণ আমেরিকার বিশ্বকাপ খ্যাত এই আসর। আগামী শুক্রবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৬টায় সাওপাওলোতে এ গ্রম্নপের দুই দল ব্রাজিল ও বলিভিয়া ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠবে এবারের আসরের। ২০ ও ২২ জুন ব্রাজিল পরবর্তী ম্যাচগুলো খেলবে ভেনিজুয়েলা ও পেরুর বিপক্ষে। রোববার বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায় সালভাদরে বি গ্রম্নপের দল আর্জেন্টিনার মোকাবেলা করবে কলম্বিয়া। ২০ ও ২৪ জুন আর্জেন্টিনা খেলবে প্যারাগুয়ে ও কাতারের বিপক্ষে। গ্রম্নপ পর্বের খেলা শেষ হবে ২৫ জুন। ২৭ ও ২৯ জুন কোয়ার্টার ফাইনাল। ২ ও ৩ জুলাই সেমিফাইনাল। ৭ জুলাই রিও ডি জেনেরিওর মারাকানা স্টেডিয়ামে ফাইনালের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এ টুর্নামেন্ট।

সেমিতেই চোখ বাংলাদেশের

ক্রীড়া প্রতিবেদক

চলতি বিশ্বকাপের শেষ চারে জায়গা পেতে হলে কমপক্ষে পাঁচটি ম্যাচ জিততে হবে বাংলাদেশের। চলতি বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে ওঠার পথটা একটু হলেও কঠিন হয়ে গেছে মাশরাফি বিন মর্তুজাদের। কিন্তু তেমনটি মনে করেন না সাবেক অধিনায়ক ও নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন। তিনি বলছেন, বড় দলের বিপক্ষে জিতেই লাল-সবুজ প্রতিনিধিরা জায়গা করে নেবে এ টুর্নামেন্টের শেষ চারে।

টানা দুই ম্যাচ হারার পর বুধবার শ্রীলংকার বিপক্ষে জয়ের আশাই করেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ব্রিস্টলের বৃষ্টি টাইগারদের স্বপ্ন সত্যি হতে দেয়নি। শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচটি পরিত্যক্ত হওয়ায় বাংলাদেশ পেয়েছে এক পয়েন্ট। ব্যাপারটিকে অবশ্য খুব গুরুত্ব দিয়ে দেখছেন না হাবিবুল বাশার। তিনি মানছেন, ম্যাচটা হলে ব্রিস্টল থেকে জয় নিয়ে টন্টন যাওয়ার সম্ভাবনা ছিল। তবে না হওয়ায় যে বাংলাদেশের সেমিফাইনালে উঠতে পারবে না, এমনটা মনে করছেন না সাবেক এ অধিনায়ক, 'আমি প্রথম থেকেই বলে আসছি, কোনো নির্দিষ্ট দলকে টার্গেট করে আমরা সেমিফাইনালে যেতে পারব না। আমাদের শক্তিশালী দলকেও হারাতে হবে। সামনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, অস্ট্রেলিয়া, ভারতের মতো দলের বিপক্ষে খেলা বাকি। সেগুলোতেও জয়ের লক্ষ্য নিয়ে খেলতে হবে।'

বড় দলকে হারানোর সামর্থ্য আছে বাংলাদেশের। যা চলতি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সে প্রমাণ দিয়েছে মাশরাফির দল। ব্যাপারটি বিশ্বাস করেন হাবিবুল। তাই এখনো তিনি স্বপ্ন দেখছেন টাইগাররা শেষ চারে জায়গা করে নেবে, 'কাগজ-কলমে হয়তো শ্রীলংকাকে আমাদের পক্ষে হারানো সহজ ছিল। সেদিক দিয়ে হয়তো আমরা একটা পয়েন্ট মিস করেছি। কিন্তু খেলা যেহেতু হয়নি, এখন তো কিছু করার নেই। আমরা দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়েছি। আমার বিশ্বাস অন্য বড় দলকে হারানোরও সামর্থ্য আমাদের আছে।'

বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা প্রধান ও সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান বলছেন, 'ওয়েস্ট ইন্ডিজ, আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের বিপক্ষে আমাদের পুরো পয়েন্ট নিতেই হবে। সঙ্গে বড় একটা দলকেও হারাতে হবে।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে