logo
রোববার ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ২৩ মে ২০১৯, ০০:০০  

বিশ্বকাপে ভালো করতে দোয়া চাইলেন মাশরাফি

বিশ্বকাপে ভালো করতে দোয়া চাইলেন মাশরাফি
বিশ্বকাপ অভিযানে যাওয়ার আগে বিমানবন্দরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি মাশরাফি -ফাইল ফটো
ত্রিদেশীয় সিরিজে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াড চলে গেছে ইংল্যান্ডে। সিরিজ জয়ের উৎসব থামার আগেই ডাবলিন থেকে দেশের পথে রওনা হন মাশরাফি বিন মর্তুজা। শনিবার গভীর রাতে ঢাকায় পৌঁছান বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। তিন দিন পরিবারের সঙ্গে কাটিয়ে বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে দেশ ছাড়েন তিনি।

শুরু হয়ে গেল দেশের সফল অধিনায়কের বিশ্বকাপ অভিযান। বিমানে চড়ার আগে সেভাবে কোনো কথা বলেননি মাশরাফি। সৌজন্যতা রক্ষায় যা একটু বলেছেন, তার মধ্যেই দলের জন্য দোয়া চেয়ে নিয়েছেন টাইগার দলপতি মাশরাফি বলেন, 'সবাই দোয়া করবেন, আমরা চেষ্টা করব ভালো করার। সবাই দোয়া করবেন, বাংলাদেশ দল যেন ভালো খেলে।'

বিশ্বকাপের আগে মাশরাফি খুব করেই একটি শিরোপা জিততে চেয়েছিলেন। সেটি এরই মধ্যে ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়ে পূরণ হয়েছে। যে কারণে আরও আত্মবিশ্বাস নিয়ে ইংল্যান্ডে পাড়ি দেন মুশফিকুর রহীম-সাকিব আল হাসানরা। ব্যাপারটিকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন ম্যাশ। তবে তার কাছে মনে হয়েছে বিশ্বকাপ অন্য যেকোনো টুর্নামেন্টের চেয়ে ভিন্ন। তাই এখানে ভালো করতে হলে শুরুটা ভালো করতে হবে।

হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে আয়ারল্যান্ড সফরের সঙ্গে বিশ্বকাপ মিশনকে এক না করার আহ্বান জানান মাশরাফি। তিনি বলেন, 'দুইটা আলাদা টুর্নামেন্ট। আশা করি, সবার আত্মবিশ্বাস ভালো আছে। টুর্নামেন্ট যেহেতু আলাদা তাই ওখানেও শুরুটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। ভালো শুরু করতে পারলে, আশা করি ভালো কিছু হবে ইনশাআলস্নাহ।'

গত বিশ্বকাপেও বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক ছিলেন মাশরাফি। মূলত তার নেতৃত্ব গুণেই সেবার বিশ্ব মঞ্চের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেছিল টিম টাইগার্স। তবে এবার দলটির লক্ষ্য বড়-সেমিফাইনাল। আপাতত সেই স্বপ্ন পূরণেই নিজেদের তৈরিতে ব্যস্ত স্টিভ রোডসের শিষ্যরা।

এবারের বিশ্বকাপ আয়োজন হচ্ছে রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে। আর তাই যেমনটা চ্যালেঞ্জিং তেমটাই ভালো করার বড় সুযোগও রয়েছে দলগুলোর জন্য। মূল আসরে নেমে নিজেদের সেরাটাই উপহার দিতে চান বাংলাদেশ দলপতি। বাংলাদেশ দল লেস্টারে থাকলেও মাশরাফি সরাসরি লন্ডন যাচ্ছেন অধিনায়কদের সংবাদ সম্মেলনে যোগ দিতে। বৃহস্পতিবার লন্ডনের দ্য ফিল্ম শেডে ১০ দলের অধিনায়ক বিশ্বমিডিয়ার মুখোমুখি হবেন।

দেখতে দেখতে ঘনিয়ে আসছে বিশ্বকাপ শুরুর সময়, শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি গুছিয়ে নিতে ব্যস্ত অংশগ্রহণকারী দেশগুলো। আগামী ২৪ মে আইসিসির 'সাপোর্টিং পিরিয়ড' শুরুর আগে নিজেদের গরজে লেস্টারে অনুশীলন করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। সেটিও চলে এসেছে শেষ দিনে। বৃহস্পতিবার কার্ডিফের উদ্দেশে রওনা হওয়ার আগে বুধবার শেষবারের মতো লেস্টারে অনুশীলন করছে বাংলাদেশ স্কোয়াডের ১৩ সদস্য। স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় (বাংলাদেশ সময় বেলা ৩টা) শুরু হয়েছে লেস্টারে শেষ দিনের অনুশীলন, যা চলবে প্রায় তিন ঘণ্টা বেশি সময় ধরে।

বাংলাদেশ দলের মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানিয়েছেন, লেস্টারে এটিই দলের শেষ অনুশীলন। বৃহস্পতিবার দল চলে যাবে কার্ডিফে। যেখানে রয়েছে বাংলাদেশের দুইটি প্রস্তুতি ম্যাচ। রাবিদ ইমাম গণমাধ্যমকে বলেন, 'আমাদের বিশ্বকাপ অনুশীলনের লেস্টার পর্ব আজই শেষ। আগামীকাল আমরা কার্ডিফে চলে যাবো। সেখানে আমরা আইসিসির সাপোর্টিং পিরিয়ডের অধীনেই থাকব বাকি সময়টা।'

বৃহস্পতিবার লেস্টার ছেড়ে বাংলাদেশ দলের ঠিকানা হবে কার্ডিফ। একই দিন থেকেই বাংলাদেশ থাকবে আইসিসির প্রটোকলে, পুরো দল নেবে বিশ্বকাপ আয়োজক দেশের আতিথেয়তা। ত্রিদেশীয় সিরিজ শেষ করে দুবাই বেড়াতে যাওয়া তামিম ইকবাল কার্ডিফে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন বৃহস্পতিবার।

আগামী ২৬ ও ২৮ মে কার্ডিফে ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ২৯ মে কার্ডিফ থেকে লন্ডনে ফিরবে দল। ২ জুন ওভালে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে ওভালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ সাউথ আফ্রিকা। একে একে অংশগ্রহণকারী সবদেশের সঙ্গেই খেলবে মাশরাফির দল। গত বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলা বাংলাদেশ এবার চায় আরেক ধাপ এগিয়ে সেমিফাইনালে লড়তে। যে লক্ষ্যের সঙ্গে একাত্ম কোচ, অধিনায়ক থেকে শুরু করে দলের সবাই।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে