logo
সোমবার ২৬ আগস্ট, ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ১৭ মে ২০১৯, ০০:০০  

জামালের ড্র, সাইফ স্পোর্টিংয়ের বড় জয়

জামালের ড্র, সাইফ স্পোর্টিংয়ের বড় জয়
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত খেলায় শেখ জামালের একটি আক্রমণ প্রতিহত করছে মুক্তিযোদ্ধার রক্ষণভাগের খেলোয়াড়রা -বাফুফে
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের ১৫তম রাউন্ড শুরু হয়েছে বৃহস্পতিবার। ঢাকার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত শেখ জামাল বনাম মুক্তিযোদ্ধা লড়াইটি শেষ হয়েছে ১-১ গোলের ড্র'তে। প্রথম লেগে মুক্তিযোদ্ধার কাছে ৩-০ গোলে হেরেছিল ধানমন্ডির জায়ান্টরা। তাই বুধবারের ম্যাচটা ছিল জামালের প্রতিশোধের ম্যাচ। প্রথমে এগিয়ে গিয়েও শেষ পর্যন্ত লিড ধরে রাখতে না পারায় প্রতিশোধটা নেয়া হলো না শফিকুল ইসলাম মানিকের শিষ্যদের। অন্যদিকে ময়মনসিংহের রফিকউদ্দিন ভুইয়া স্টেডিয়ামে টিম বিজেএমসিকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব।

\হ১৪ ম্যাচে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে অষ্টম অবস্থানেই থাকল শেখ জামাল। সমান ম্যাচে মুক্তিযোদ্ধার ১৬ পয়েন্ট তারাও থাকল পূর্বের সপ্তম স্থানেই। আর ২৯ পয়েন্ট হওয়াতে একধাপ এগিয়ে তৃতীয় স্থানে উঠে আসল সাইফ স্পোর্টিং। বিজেএমসি ৪ পয়েন্ট। তারা আছে তলানিতে।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে মুক্তিযোদ্ধা- শেখ জামাল ম্যাচের শুরু থেকেই দুই দল খেলেছে প্রায় সমানতালেই। ৭ মিনিটে বা প্রান্ত থেকে জামালের গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড এমিল সাম্বোর শট বক্সে হেড দিয়ে ক্লিয়ার করেন মুক্তির এক ডিফেন্ডার। ১১ মিনিটে বক্সের মধ্যে ডান প্রান্ত থেকে পোস্ট লক্ষ্য করে শট নেন সাম্বো। কিন্তু এবার ফিস্ট করেন প্রতিপক্ষ গোলরক্ষক উমর ফারুক লিংকন। ১৯ মিনিটে ম্যাচে লিড নেয় শেখ জামাল। ডান প্রান্ত থেকে কিরগিজ ফরোয়ার্ড ডেভিড টিত্তেহের ক্রসে দারুণ হেডে লক্ষ্যভেদ করেন জামাল অধিনায়ক গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড সলোমন কিং কানফর্ম (১-০)। ২৯ মিনিটে বল নিয়ে জামালের বক্সে ঢোকার আগের মুহূর্তে মুক্তির আইভরি কোস্টোর ফরোয়ার্ড বালেস্না ফেমোসাকে পোস্ট ছেড়ে এগিয়ে এসে ফেলে দেন জামাল গোলরক্ষক সামিয়ুল ইসলাম মাসুম। রেফারি তাকে হলুদ কার্ড এবং মুক্তিযোদ্ধাকে ফ্রি কিক দেন। কিন্তু এমন সুবর্ণ সুযোগটা কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয় আব্দুল কাইয়ুম সেন্টুর শিষ্যরা। ৩৪ মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে ডিফেন্ডার হাবিবুর রহমান নোলকের মাপা থ্রো বক্সে হেড করেন বালেস্না ফেমোসা। সেখান থেকে বল পেয়ে কোনাকোনি শটে জামালের জাল কাঁপান জাপানী মিডফিল্ডার ইউসুকে কাতো (১-১)। প্রথমার্ধ শেষ হয়েছে সমতাতে।

দ্বিতীয়ার্ধেও উভয় দল খেলেছে প্রায় সমান তালেই। ৬১ মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে ডিফেন্ডার মোহাম্মদ মনীর হোসেনের পাসে বক্সে বল পেয়ে শট নিতে চেষ্টা করেছিলেন এমিল সাম্বো। কিন্তু তার আগেই প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডাররা বল বিপদমুক্ত করেন। ৭৭ মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে আলী হোসেনের পাস বক্সে সরিয়ে দেন মুক্তি ডিফেন্ডাররা। এর পরের মিনিটেই বক্সে ঢুকার আগ মুহুর্তে সলোমনের জার্সি টেনে ধরেন মুক্তির একজন ফুটবলার। ফ্রি কিক পায় শেখ জামাল। তবে সুযোগটি কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন জামাল অধিনায়ক। শেষ পর্যন্ত অমীমাংসীতভাবেই শেষ হয়েছে লড়াইটি। ১-১ গোলের ড্রতে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়ে দুই দল।

একই দিনে ঢাকার বাইরে ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভুইয়া স্টেডিয়ামে সাইফ স্পোর্টিংয়ের মুখোমুখি হয় টিম বিজেএমসি। যে ম্যাচে ৩-০ গোলের জয় পায় সাইফ স্পোর্টিং। প্রথম লেগেও বিজেএমসির বিপক্ষে জয়টা সাইফেরই ছিলো। তবে সেটি ছিলো ১-০ গোলের।

ম্যাচের ৪ মিনিটে বক্সের প্রায় দশগজ দূরে ফ্রি কিক পায় সাইফ স্পোটিং। উজবেক মিডফিল্ডার ওটাবেক জকিরভের দূরপালস্নার স্পট কিক সরাসরি আশ্রয় নেয় বিজেএমসির জালে (১-০)। ৩৪ মিনিটে সাইফের দ্বিতীয় গোলটির পেছনের নায়কও ছিলেন এই ওটাবেক। কর্ণার থেকে তার যোগান দেয়া উড়ন্ত বলে বক্সে মাথা ছুইয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন কলোম্বিয়ান মিডফিল্ডার ডেইনার কর্ডোবা (২-০)। ৮৩ মিনিটে নাজির ইসলামের পাসে বল পেয়ে লক্ষ্যভেদ করেন সাইফের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড আলোসান্দ্রো পাদোভানি সেলিন (৩-০)। আর এই গোলেই জয় নিশ্চিত হয় তাদের। শুক্রবার প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে একটি মাত্র ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৭টায় অনুষ্ঠেয় এই ম্যাচে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব খেলবে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের বিপক্ষে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে