logo
মঙ্গলবার ১৬ জুলাই, ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ১৬ মে ২০১৯, ০০:০০  

সাদা পোশাকেই স্বাচ্ছন্দ্য সাদমানের

অবশ্যই টেস্ট ম্যাচ খেলতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। যদি কখনো ওয়ানডে বা টি২০তে সুযোগ হয়, আমি যদি নিজেকে প্রমাণ করি তাহলে ওখানকার জন্যও নিজেকে প্রস্তুত করার চেষ্টা করব। মেইনলি আমি যেহেতু টেস্ট নিয়ে চিন্তা করি, আমি এখানেই থাকার সর্বাত্মক চেষ্টা করব

রঙিন পোশাকে নয়, লাল-সবুজের হয়ে সাদা পোশাকে (টেস্ট) খেলতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন তরুণ তুর্কি ওপেনার সাদমান ইসলাম অনিক। ওপেনিংয়ে নেমে দায়িত্বশীল ব্যাটে দলকে লড়াকু সংগ্রহ এনে দিতে তার অবিরাম প্রচেষ্টা ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই দৃশ্যমান। তবে কখনো সংক্ষিপ্ত সংস্করণে সুযোগ হয় সেখানেও দৃঢ় ব্যাটে টিম ম্যানেজমেন্টের আস্থার প্রতিদান দিতে চান সাদমান। মিরপুর বিসিবি ক্রিকেট একাডেমিতে এসব কথা বলেন তিনি।

বলাই বাহুল্য হবে বাংলাদেশের হয়ে রঙিন জার্সি গায়ে এখনো নামা হয়নি সাদমানের। আর যে কটি ম্যাচ খেলেছেন তা সাদা পোশাকেই। গেল বছরের ডিসেম্বরে সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করা এই বাঁহাতি ওপেনার এরই মধ্যে তিনটি ম্যাচ খেলে ফেলেছেন। ওয়ানডে ম্যাচ থেকে টেস্ট ম্যাচে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন সাদমান ইসলাম, 'অবশ্যই টেস্ট ম্যাচ খেলতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। যদি কখনো ওয়ানডে বা টি২০তে সুযোগ হয়, আমি যদি নিজেকে প্রমাণ করি তাহলে ওখানকার জন্যও নিজেকে প্রস্তুত করার চেষ্টা করব। মেইনলি আমি যেহেতু টেস্ট নিয়ে চিন্তা করি, আমি এখানেই থাকার সর্বাত্মক চেষ্টা করব।'

সাদমানের অভিষেকের পর বাংলাদেশ দল যে কটি টেস্ট ম্যাচ খেলেছে প্রতিটিতেই তার ওপর আস্থা রেখেছে টিম ম্যানেজমেন্ট। শৈল্পিক ব্যাট হাতে সেই আস্থার প্রতিদান তিনি বেশ ভালোভাবেই দিয়েছেন। তিন ম্যাচে তার রান ১৯৬, গড় ৩৬.৬০। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অভিষেক টেস্টে নেমেই করেছেন ৭৬ রান। নিউজিল্যান্ড সফরে আহামরি কিছু করে দেখাতে পারেননি সত্যি, কিন্তু ব্যাটসম্যানদের ওই বধ্যভূমিতে তার ব্যাটিং স্টাইল, শর্টসের বৈচিত্র্যময়তা এবং টেস্ট মেজাজ ছিল নজরকাড়া। সকাল দেখেই দিন বোঝা যায়' বাংলাদেশ টিম ম্যানেজন্ট হয়তো এত স্বল্প ম্যাচে তাকে দেখেই বুঝে নিয়েছে, আর কেউ নয়, তামিম ইকবালের সঙ্গে ইনিংসের গোড়াপত্তনের মতো গুরুদায়িত্ব তার কাঁধেই তুলে দেয়া যায়।

তবে পরিবর্তিত পরিস্থিতির জন্যও নিজেকে প্রস্তুত রাখছেন সাদমান। জুলাইয়ে আফগানিস্তান 'এ' দলের সঙ্গে সিরিজকে সামনে রেখে তাকে ২৪ সদস্যের দলে রেখেছে বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট। সেখানে মূল স্কোয়াড ও একাদশে সুযোগ মিললে টেস্টের মতো জাতীয় দলের হয়ে সংক্ষিপ্ত সংরক্ষণে ওপেনিংয়ের পথ তৈরি করে নেবেন বলেও জানিয়ে রাখলেন। কিছুটা শীতল চরিত্রের হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে তার মধ্যে কোনো তাড়া লক্ষ্য করা গেল না।

টেস্ট মেজাজের মতো ধীর স্থির বোঝা গেল সাদমানের কথায়, ওয়ানডে ক্রিকেট নিয়ে এখন অতটা চিন্তা-ভাবনা করি না। হয়তো ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে একটু বদলানোর চেষ্টা করেছিলাম। যেহেতু প্রিমিয়ার লিগ রানের খেলা। তাই এখানে কিভাবে আস্তে আস্তে উন্নতি করা যায় সেটা নিয়ে এখন একটু একটু করে ভাবছি। আর অফ সিজনে আমি চেষ্টা করব কীভাবে ওয়ানডে ও টেস্টে নিজেকে ভালোভাবে প্রস্তুত করা যায়। সেই চেষ্টা থাকবে আমার মাঝে।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে