logo
রোববার ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৫ ফাল্গুন ১৪২৫

  ক্রীড়া ডেস্ক   ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০  

রিয়ালে ‘ভাগ্য’ পরীক্ষায় আয়াক্স

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে সব থেকে সফল দল রিয়াল মাদ্রিদ। সবশেষ তিন আসরের শিরোপা গেছে স্প্যানিশ ক্লাবটির ঘরে। ১৩ বারের চ্যাম্পিয়নরা এবার নেমেছে টানা চতুথর্ শিরোপার মিশনে। সেখানে ১৯৯৫ সালের পর ইউরোপ সেরার এই আসর কেবল হতাশাই উপহার দিয়েছে ডাচ্ জায়ান্ট আয়াক্সকে। চারবারের চ্যাম্পিয়নরা ২০০৩ সালের পর তো কোয়াটার্র ফাইনালই খেলতে পারেনি। এমন হতাশার পরিসংখ্যান নিয়ে শেষ ষোলোয় যখন রিয়ালের মুখোমুখি আয়াক্স, তখন তারা পরিষ্কার আন্ডারডগ। তবে ভাগ্যের সামান্য ছেঁায়া পেলে রিয়াল পরীক্ষায় উতরে যাওয়া সম্ভব, এমন বিশ্বাস নিয়েই লড়াইয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছে ডাচ্ ক্লাবটি।

অ্যামস্টারডামের ইয়োহান ক্রুইফ অ্যারেনায় আজ শেষ ষোলোর প্রথম লেগে রিয়ালকে আতিথ্য দেবে আয়াক্স। নিজেদের মাঠে বিজয়কেতন উড়াতে চায় তারা। ভাগ্যের পরশ নিয়ে যেতে চায় কোয়াটার্র ফাইনালে। মৌসুম শেষেই রিয়ালের চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী বাসেের্লানায় যোগ দিতে যাওয়া তরুণ মিডফিল্ডার ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং বাস্তবতার জমিনে পা রেখে বলছেন, তার বতর্মান ক্লাবের চাওয়াটা অমূলক নয়, ‘আমি এটা বলছি না, আমরা ট্রফি জিতব। আমরা রাউন্ড বাই রাউন্ড এগোতে চাই। গত পঁাচ বছরে চারবার শিরোপা জিতেছে রিয়াল। তারাই ফেভারিট। তবে যদি একটু ভাগ্যের ছেঁায়া পাই, আমরা নৈরাশ্যবাদী নই।’

ডি ইয়ংরা আশাবাদী হতেই পারেন। কারণ, বিগত পঁাচ বছরের রিয়াল আর এই রিয়ালের মধ্যে বিস্তর ফারাক। মাঠের পারফরম্যান্সও সেটা বলে। ‘জি’ গ্রæপে চ্যাম্পিয়ন হলেও রিয়ালের পারফরম্যান্স ঠিক চ্যাম্পিয়নসুলভ ছিল না। লা লিগায় সবশেষ কয়েকটি ম্যাচে অবশ্য দারুণ খেলেছে দলটি। তাতে আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছেন দলটির কোচ সান্তিয়াগো সোলারি। যখন তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিলÑ টানা চতুথর্ শিরোপা কি জিততে পারবে রিয়াল? প্রত্যয়ী কণ্ঠে এই আজের্ন্টাইন বলে দিলেন, ‘এই জায়গায় রিয়াল মাদ্রিদের পক্ষে কোনো কিছুই অসম্ভব নয়।’

সম্ভাবনার পথে এগিয়ে যেতে এখন শেষ ষোলোয় আয়াক্স বাধা পেরোতে হবে রিয়ালকে। সোলারি নিজেদের সামথের্্য আস্থা রাখলেও প্রতিপক্ষকে খাটো করে দেখছেন না। কারণ ডাচ্ ক্লাবটির সমৃদ্ধ ফুটবল ঐতিহ্য রয়েছে। সামনে তাই কঠিন লড়াই দেখতে পাচ্ছেন রিয়াল কোচ, ‘আয়াক্স বেশ পরিচিত তাদের যুব পযাের্য়র কাজ দিয়ে, তরুণ প্রতিভাদের প্রতি তাদের প্রতিজ্ঞায় এবং আক্রমণাত্মক ফুটবলে। এখনো তারা সেভাবেই কাজ করে যাচ্ছে। বতর্মান দলটা ইতোমধ্যেই দেখিয়েছে গতবছরও তারা লড়াকু ছিল, এবারও লড়াকু। এই লড়াইটাও কঠিন হতে চলেছে, যেমনটা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সবসময়ই হয়।’

শেষ ষোলোয় আজ সত্যিকারের কঠিণ লড়াইটা হবে ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে, যেখাবে জামার্ন জায়ান্ট বরুসিয়া ডটর্মুন্ডকে আতিথ্য দেবে ইংলিশ ক্লাব টটেনহাম হটস্পার। হ্যারি কেন-ডেলে আলিদের উজ্জ্বল পারফরম্যান্সে প্রিমিয়ার লিগে বেশ ভালো সময় কাটাচ্ছে মাওরিসিও পচেত্তিনোর শিষ্যরা। অন্যদিকে এবারের বুন্দেসলিগায় ডটর্মুন্ড তো শীষর্ দল। যদিও সবশেষ কয়েকটা ম্যাচ ভালো কাটেনি তাদের। তবে পাকো আলকাসার-মারিও গোটজেরা দারুণ পারফমর্ করে চলেছেন। কিন্তু এই ম্যাচে ডটর্মুন্ডকে নামতে হচ্ছে নিয়মিত অধিনায়ক মাকোর্ রেউসকে ছাড়া, পেশির ইনজুরিতে পড়েছেন দুরন্ত ছন্দে থাকা এই ফরোয়াডর্। এরপরও ভালো কিছুর আশা নিয়েই লন্ডনে পা রাখছে ডটর্মুন্ড।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে