logo
মঙ্গলবার ২১ মে, ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

ভারোত্তোলক ধষের্ণর প্রতিবাদ

মানববন্ধনে নেই ভারোত্তোলনের কেউ!

একজন নারী ভারোত্তোলককে ধষের্ণর প্রতিবাদ ও দোষীদের শাস্তির দাবিতে বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছেন ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠকরা। কিন্তু সেই মানববন্ধনে ছিলেন না ভারোত্তোলন ফেডারেশনের কেউ

মানববন্ধনে নেই ভারোত্তোলনের কেউ!
মহিলা ভারোত্তোলকের নিপীড়কের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিসহ বিভিন্ন দবিতে বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সচেতন ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠকবৃন্দ মানববন্ধন করেন Ñযাযাদি
একজন নারী ভারোত্তোলককে ধষের্ণর প্রতিবাদ ও দোষীদের শাস্তির দাবিতে বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছেন ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠকরা। কিন্তু সেই মানববন্ধনে ছিলেন না ভারোত্তোলন ফেডারেশনের কেউ। ফেডারেশনের কোনো কমর্কতার্, কোচ কিংবা খেলোয়াড়Ñ কাউকেই দেখা যায়নি সকাল ১১টায় হওয়া ওই মানববন্ধনে।

একজন সতীথের্ক যৌন নিপীড়নের প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধনে নারী ভারোত্তোলকরাই বেশি উপস্থিত হবেন- এমনটিই মনে করা হয়েছিল। অথচ তারা কেউ ছিলেন না। বিষয়টি যথেষ্টই সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। কেন আসেননি কোনো ভারোত্তোলক, এমন প্রশ্নের জবাবে মানববন্ধনের প্রধান উদ্যোক্তা, সাবেক ব্যাডমিন্টন তারকা ও মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সাবেক সাধারণ সম্পাদিকা কামরুন নাহার ডানা বলেন, ‘আমি সবাইকে বলেছি। কেন আসেননি সেটা তারাই বলতে পারবেন।’

মানববন্ধনে দেখা যায়নি বাংলাদেশ মহিলা ক্রীড়া সংস্থার কাউকেও। একজন নারী ক্রীড়াবিদ যৌন হয়রানির শিকার হওয়ার পর মেয়েদের নিয়ে কাজ করা এই সংস্থা আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো প্রতিবাদও জানায়নি। এ নিয়ে উপস্থিত অনেকে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। মানববন্ধনে নারী ক্রীড়াবিদ ও নারী সংগঠকদের উপস্থিতি ছিল খুবই কম। সে হিসেবে পুরুষদের উপস্থিতিই ছিল বেশি।

জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক দুই অধিনায়ক এএসএম রকিবুল হাসান, গাজী আশরাফ হোসেন লিপু, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোডের্র পরিচালক ও মোহামেডান স্পোটির্ং ক্লাব লিমিটেডের ডিরেক্টর ইনচাজর্ লোকমান হোসেন ভুঁইয়া, ক্রিকেট কোচ ও লেখক জালাল আহমেদ চৌধুরী, সাবেক দুই ফুটবলার হাসানুজ্জামান খান বাবলু, আবদুল গাফফার, বাফুফের নিবার্হী কমিটির সদস্য ফজলুর রহমান বাবুল, শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী, বাংলাদেশ রোলার স্কেটিং ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আসিফুল হাসান, নারী কুস্তিগীর শিরিন সুলতানা, সাবেক নারী ফুটবলার রেহানা পারভীন, হ্যান্ডবল কোচ কামরুল ইসলাম কিরণ, সাবেক বক্সার আবদুল হালিম যোগ দিয়েছিলেন মানববন্ধনে। সবাই ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চেয়েছেন।

গত ১৩ সেপ্টেম্বর ১৮ বছরের একজন নারী ভারোত্তোলক ফেডারেশনের অফিস সহকারী সোহাগ আলী দ্বারা ধষির্ত হয়েছে বলে ওই নারী ভারোত্তোলকের মামা নাজমুল হক লিখিত অভিযোগ করেন। আর ধষের্ণ সহায়তা করেছেন উন্নতি বিশ্বাস নামের আরেক নারী ভারোত্তোলক ও আ. মালেক নামের জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের এক অফিস সহায়ক। ঘটনা চাউর হওয়ার পর বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ ভারোত্তোলন ফেডারেশন ও জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ ভিন্ন ভিন্ন দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। যৌন নিপীড়নের শিকার মেয়ের মা বাদী হয়ে পল্টন থানায় মামলা করেছেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে