logo
মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ০২ জুলাই ২০২০, ০০:০০  

বার্সার শিরোপা স্বপ্নে বড় ধাক্কা

বার্সার শিরোপা স্বপ্নে বড় ধাক্কা
ক্রীড়া ডেস্ক

তিন ম্যাচ পর জালের দেখা পেলেন লিওনেল মেসি। তবে অধিনায়কের অসাধারণ ৭০০ গোলের মাইলফলক ছোঁয়ার দিনটিকে জয়ে রাঙাতে পারল না বার্সেলোনা। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে দুবার এগিয়ে গিয়েও পয়েন্ট হারানোর হতাশায় মাঠ ছাড়ল কিকে সেতিয়েনের দল। তবে লা লিগায় টিকে থাকতে হলে মঙ্গলবার রাতের ম্যাচ জয়ের বিকল্প ছিল না তাদের। কিন্তু সে কাজটি করতে পারেনি তারা। দুই দুইবার এগিয়ে থেকেই পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়তে হয়েছে কাতালানদের। নু্য ক্যাম্পে গুরুত্বপূর্ণ এ ম্যাচটি ড্র হয় ২-২ গোলে। আর তাতে রিয়াল মাদ্রিদ ১ পয়েন্টের ব্যবধান রেখে শীর্ষেই থাকল। ৩৩ ম্যাচে বার্সার সংগ্রহ ৭০ পয়েন্ট আর ৩২ ম্যাচে রিয়ালের ৭১।

করোনাভাইরাসের কারণে বিরতির পর ফের খেলা শুরু হওয়ার পর শেষ চার ম্যাচে এটা তাদের তৃতীয় ড্র। এদিন জিতলে ক্ষণস্থায়ীভাবে শীর্ষে ফিরতে পারত বার্সেলোনা। যদিও তা কেবল রিয়াল মাদ্রিদের পরবর্তী ম্যাচের আগ পর্যন্ত। তারপরও জয় পেলে কিছুটা হলেও চাপে থাকত চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীরা। তবে পয়েন্ট খোয়ানোয় বড় সুবিধা পেল রিয়াল। একটি ম্যাচে হারলেও শীর্ষে থাকবে তারা। ৩২ ম্যাচেই তাদের সংগ্রহ ৭১ পয়েন্ট। অন্যদিকে এক ম্যাচ বেশি খেলা বার্সার সংগ্রহ ৭০ পয়েন্ট। তৃতীয় স্থানে থাকা অ্যাটলেটিকোর পয়েন্ট ৫৮।

নু্য ক্যাম্পে শুরুটা ভালো ছিল বার্সেলোনার। প্রতিপক্ষ তারকা ডিয়েগো কস্তার আত্মঘাতী গোলের সুবাদেই ১১ মিনিটে এগিয়ে যায় তারা। অবশ্য এই গোলটিতে কৃতিত্ব ছিল মেসির। তার কর্নার থেকে আসা বলটিই কস্তার গায়ে লেগে জড়ায় জালে। ১৯ মিনিটে সাউলের পেনাল্টি থেকে দ্রম্নতই সমতা ফেরায় অ্যাটলেটিকো। বার্সার বিপক্ষে শুরুর দিকেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ ছিল অ্যাটলেটিকোর। কারাসকো বল বাড়িয়েছিলেন ঠিকই, কিন্তু পা লাগাতে পারেননি কস্তা।

বলতে গেলে ম্যাচটা পেনাল্টি পাল্টা পেনাল্টির মাঝেই সীমাবদ্ধ ছিল। তার ওপর অনেক দিন ধরে ৬৯৯ গোলে আটকে ছিলেন লিওনেল মেসি। অ্যাটলেটিকোর বিপক্ষে ৭০০তম ক্যারিয়ার গোল পূরণ করেছেন অবশেষে। তাও সেটা স্পট কিক থেকে পানেকা গোলেই। এছাড়া বার্সার হয়ে ৭২৪টি ম্যাচ খেলে পূরণ করেছেন ৬৩০তম গোল। তবে এই অগ্রগামিতাও ধরে রাখতে পারেনি বার্সা। ৬২ মিনিটে আবারও পেনাল্টি থেকে সমতা ফেরান সাউল।

বার্সা শেষ পর্যন্ত ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়লেও ব্যক্তিগত অর্জনে তৃপ্ত হতে পারেন মেসি। ৭০০ গোলের মাইলফলকে কিংবদন্তিদের কাতারে চলে এসেছেন। ৮০৫ গোল ক্যারিয়ার গোল নিয়ে সবার উপরে আছেন চেক-অস্ট্রিয়ান জোসেফ বিকান। তার পরেই আছেন ব্রাজিল লিজেন্ড রোমারিও। তার গোল ৭৭২টি। তারই স্বদেশি আরেক কিংবদন্তি পেলে আছেন তৃতীয় স্থানে। পেলের গোল ৭৬৭টি। হাঙ্গেরির লিজেন্ড পুসকাস ৭৪৬ গোল নিয়ে এর পরেই রয়েছেন। সাবেক জার্মান স্ট্রাইকার মু্যলার ৭৩৫ গোল নিয়ে সেরা পাঁচে রয়েছেন। ৭২৬ গোল নিয়ে ছয়ে রয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এর পরেই মেসির স্থান। অবশ্য এমন অর্জনের রাতে দল না জেতায় হতাশাও মেসির সঙ্গী হয়ে থাকল!
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে