logo
শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২০, ১০ মাঘ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

উন্নয়ন প্রকল্পের অর্থ আত্মসাতে প্রকৌশলীসহ দুজনের সাজা

যাযাদি রিপোর্ট

মিরপুরের ঢাকা মডেল ডিগ্রি কলেজের উন্নয়ন প্রকল্পের অর্থ আত্মসাতের মামলায় ঢাকা জেলা পরিষদের উপ-সহকারী প্রকৌশলীসহ দুজনকে কারাদন্ড দিয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার ঢাকার নয় নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক শেখ হাফিজুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ঢাকা জেলা পরিষদের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. আসাদুজ্জামান ও মেসার্স লিয়া এন্টারপ্রাইজের এম জয়নাল আহমেদ।

প্রকৌশলী আসাদুজ্জামানকে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন ১৯৪৭ এর ৫(২) ধারায় পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদন্ড, এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।

আর জয়নাল আহমেদকে পেনাল কোডের ১৮৬০ সালের ৪০৯/১০৯ ধারায় তিন বছরের সশ্রম কারাদন্ড এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানা অনাদায়ে তাকে আরও এক মাস বিনাশ্রম কারাভোগ করতে হবে।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জানিয়েছেন আদালতের পেশকার ফোরকান মিয়া।

অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মোজাম্মেল মজুমদার নামের এক আসামিকে আদালত বেকসুর খালাস দিয়েছে।

দন্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে জয়নাল আহমেদ রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে সাজা পরোয়ানা দিয়ে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

প্রকৌশলী মো. আসাদুজ্জামান পলাতক থাকায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছে।

মিরপুর ১৩ নম্বরে অবস্থিত ঢাকা মডেল ডিগ্রি কলেজের উন্নয়ন প্রকল্পে বরাদ্দ সরকারি আট লাখ ৭৬ হাজার ২৭০ টাকা উত্তোলন করে আত্মসাতের অভিযোগে এম জয়নাল আহমেদ এবং আসাদুজ্জামানকে আসামি করে ২০১৫ সালের ৭ মে উত্তরা (পূর্ব) থানায় মামলাটি দায়ের করেন দুদকের সহকারী পরিচালক আবু বকর সিদ্দিক।

পরের বছর ২২ ফেব্রম্নয়ারি তিনজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন তিনি। রায়ে দন্ডপ্রাপ্তদের আত্মসাৎ করা টাকা রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে