logo
বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ২৩ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

উত্তরায় গাড়িমুক্ত সড়ক

উত্তরায় গাড়িমুক্ত সড়ক
শুক্রবার রাজধানীর উত্তরায় গাড়িমুক্ত সড়কে খেলাধুলা করে তরুণরা -যাযাদি

উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টর, সোনারগাঁও জনপথ সড়ক। অন্য দিনগুলোতে এ সড়কে বাস, প্রাইভেট কারসহ যানবাহন ও পথচারীদের ভিড় থাকলেও শুক্রবার সকালের চিত্রটি ছিল একেবারেই ভিন্ন। গতকাল এ সড়কে ছিল না কর্মস্থলে ছুটে চলা মানুষের ভিড়, সেই সঙ্গে ছিল না কোনো বাস, প্রাইভেট কার, রিকশাসহ অন্য যানবাহন। প্রতিদিনের ব্যস্ত এ সড়কে কেউ কেউ খেলেছে ফুটবল, কেউবা ক্রিকেট। অন্য শিশুরা ব্যস্ত ছিল ক্যারাম, দাবা খেলতে। ছোট বাচ্চারা ব্যস্ত দৌড়ঝাঁপ, বাস্কেটবল, স্ক্রেটিং আর সাইক্লিং করতে। এখানে শিশুদের খেলাধুলা জন্য বসানো হয়েছে নানা উপকরণ। রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউয়ের পর এবার উত্তরার সোনারগাঁ জনপদ সড়কের একপাশকে কার ফ্রি স্ট্রিট (গাড়িমুক্ত সড়ক) করার উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। প্রতি শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত সেক্টর ১১-এর ২/এ নম্বর সড়ক থেকে চৌরাস্তা পর্যন্ত গাড়িমুক্ত থাকবে। ডিএনসিসি জানিয়েছে, সে সময়ে এ সড়কে স্থানীয়রা স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে ওয়াকিং, সাইক্লিং, স্কেটিং, ঘুড়ি ওড়ানো, নৃত্য, গান, ছবি আঁকা, আড্ডা, বই পড়াসহ বিভিন্ন কর্মকান্ড পরিচালনা করতে পারবেন। প্রতি শুক্রবার উত্তরার এ এলাকায় গাড়িমুক্ত সড়ক কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ডিএনসিসির মেয়র আতিকুল ইসলাম। উত্তর পরশমনি ল্যাবরেটরি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী সায়মন এসেছিল বাবা মার সঙ্গে। অন্য শিশুদের সঙ্গে সে ব্যস্ত সড়কে ফুটবল খেলতে। তার বাবা বেসরকারি চাকরিজীবী সাজ্জাত হোসেন বলেন, ঢাকার শিশুরা চার দেয়ালে বন্দি থাকে সব সময়। উন্মুক্ত পরিবেশে খেলাধুলার কোনো সুযোগ পায় না। শুক্রবার একদিন হলেও এমন উন্মুক্ত পরিবেশে শিশু কিশোরদের খেলাধুলার সুযোগ করে দিয়েছে ডিএনসিসি। উদ্যোগটা সত্যিই প্রশংসনীয়। উদ্বোধনের পর মেয়র আতিকুল ইসলাম পুরো গাড়িমুক্ত সড়ক ঘুরে শিশুদের সঙ্গে বিভিন্ন খেলায় অংশ নেন। পাশাপাশি শিশু এবং স্থানীয়রা ডিএনসিসির এ পদক্ষেপে মেয়রকে ধন্যবাদ জানান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে