logo
সোমবার ২২ এপ্রিল, ২০১৯, ৯ বৈশাখ ১৪২৬

  যাযাদি রিপোটর্   ১০ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

ব্যানার-ফেষ্টুন সরাতে ৭ দিন

অনিবন্ধিত দলের সদস্যরা নিবন্ধিত দলের প্রাথীর্ হতে পারবেন

নিবার্চন কমিশনে (ইসি) নিবন্ধন নেই এমন দলের সদস্যরা যে কোনো নিবন্ধিত দলের প্রাথীর্ হতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে ড. কামাল হোসেন নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট, এ কি এম বদরুদ্দোজার নেতৃত্বাধীন যুক্তফ্রন্ট, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত জাতীয় জোটের মধ্যে যারা নিবন্ধিত দলের সদস্য নন, তারা নিবন্ধিত দলগুলোর প্রাথীর্ হতে পারবেন।

এ বিষয়ে নিবার্চন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ শুক্রবার তার কাযার্লয়ে সাংবাদিকদের জানান, অনিবন্ধিতরা নিবন্ধিত দলের সঙ্গে জোট করতে পারবে না। কিন্তু নিবন্ধিত দল চাইলে অনিবন্ধিত দলের সদস্যদের তাদের প্রতীকে প্রাথীর্ দিতে পারবে। অনিবন্ধিতদের নিবার্চন থেকে দূরে রাখার ‘আইন নেই’ বলেও মন্তব্য করেন ইসি সচিব।

দলের প্রতীকে নিবার্চনে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করতে সংশ্লিষ্ট দলের ন্যূনতম তিন বছর সদস্য থাকার বিধান গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ থেকে ২০১৩ সালে তুলে দেয়ায় এমন সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। ফলে বতর্মানে বিভিন্ন জোটের অনিবন্ধিত দলগুলোর পরিচিত নেতারা বড় কোনো দলের প্রতীক নিয়ে নিবার্চন করতে পারবেন। শুধু তাই নয়, সম্প্রতি নিবন্ধন বাতিল হওয়া বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নেতাদেরও বিএনপি বা অন্য কোনো দলের প্রতীকে নিবার্চনে অংশ নেয়ার সুযোগ থাকছে।

জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে, দলটির সদস্য থাকা অবস্থায় কেউ যদি স্বতন্ত্র থেকে নিবার্চন করতে চায়, সেটা বন্ধ করার কোনো উপায় আছে কিনা? এমন প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, এমন কোনো আইন নেই।

এদিকে নিবার্চন কমিশন (ইসি) আগামী শুক্রবারের মধ্যে সব ধরনের অবৈধ নিবার্চনী প্রচার উপকরণ অপসারণের নিদের্শ দিয়ে জেলা প্রশাসন, বিভাগীয় কমিশনার এবং সিটি ও পৌর প্রশাসনকে চিঠি দিয়েছে।

ইসি সচিবালয়ে হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের বলেন, আইন অনুযায়ী তফসিল ঘোষণার পর থেকে প্রাথীর্ তালিকা চূড়ান্ত হওয়ার আগ পযর্ন্ত সব ধরনের প্রচার-প্রচারণা নিষিদ্ধ। সে জন্য আগামী সাত দিনের মধ্য জেলা, উপজেলা এবং সিটি করপোরেশন আওতাধীন এলাকায় যেখানে পোস্টার, ব্যানার, গেট, তোরণ এবং আলোকসজ্জা আছে, সেগুলো অপসারণের জন্য বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক, সিটি করপোরেশনের প্রধান নিবার্হী এবং পৌরসভার মেয়রদের নিদের্শ দেয়া হয়েছে।

সম্ভাব্য কোনো প্রাথীর্ যদি তার প্রচার উপকরণ অপসারণ না করেন তবে তিনি নিবার্চনী আচরণবিধি ভঙ্গের দায়ে অভিযুক্ত হবেন এবং আইন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সচিব বলেন, প্রতীক বরাদ্দের পর প্রাথীর্রা প্রচারে নামতে পারবেন। এর আগ পযর্ন্ত কোনো প্রাথীর্ বা রাজনৈতিক দল নিবার্চনী প্রচার চালাতে পারবেন না। এ বিষয়ে প্রতিটি রাজনৈতিক দলের কাছে আজ চিঠি পাঠানো হবে।

যেসব জোটবদ্ধভাবে নিবার্চন করতে চায়, তাদের এ সংক্রান্ত তথ্য আগামী তিন দিনের মধ্যে ইসিকে জানাতে হবে বলে সচিব জানান। তিনি বলেন, অনিবন্ধিত কোনো দল নিবন্ধিত কোনো দলের সঙ্গে জোটগতভাবে নিবার্চন করতে চাইলে ইসির কিছু করার থাকবে না। এই বিষয়ে আইনে কোনো ব্যাখ্যা নেই।

হেলালুদ্দীন বলেন, আগামী রোববার থেকে অনলাইনে প্রাথীর্রা মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন। প্রাথীর্রা চাইলে অনলাইন থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহও করতে পারবেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে