logo
বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  যাযাদি রিপোর্ট   ০৩ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০  

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের অভিমত

সাধারণের হ্যান্ডগস্নাভস ব্যবহার দরকার নেই

হ্যান্ডগস্নাভস সাধারণত ডাক্তার এবং নার্সরা ব্যবহার করেন। এর বাইরে ওষুধ ও খাদ্য উৎপাদনের সঙ্গে জড়িতরা হ্যান্ডগস্নাভস ব্যবহার করে থাকেন। এ ছাড়াও বিভিন্ন কাজেও এর ব্যবহার হয়ে থাকে। কিন্তু করোনাভাইরাসের ভয়ে সাধারণ মানুষ হ্যান্ডগস্নাভস ব্যবহার করছেন। ফলে বাজারে এর চাহিদাও ব্যাপক বেড়েছে। পাঁচ টাকার হ্যান্ডগস্নাভস এখন স্থানভেদে বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ৩০ টাকায়।

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, সাধারণ মানুষের হ্যান্ডগস্নাভস ব্যবহার করার দরকার নেই। বরং তারা এর ব্যবহার করার ফলে বাজারে সংকট তৈরি হয়েছে। স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য হ্যান্ডগস্নাভস সরবরাহে সংকট দেখা দিচ্ছে। এতে চিকিৎসায় সংকট দেখা দিতে পারে। কারণ হ্যান্ডগস্নাভস ছাড়া কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হবে না। হ্যান্ডগস্নাভস ব্যবহার না করে চিকিৎসা দিতে গেলে ডাক্তার-নার্সরাই আক্রান্ত হয়ে যাবেন। আর তারা আক্রান্ত হলে রোগীদের চিকিৎসাসেবা কারা দেবেন। এ ছাড়াও অপারেশনসহ চিকিৎসাসেবার নানা ক্ষেত্রে হ্যান্ডগস্নাভসের ব্যবহার রয়েছে।

এ বিষয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুলস্নাহ চৌধুরী বলেছেন, সাধারণ মানুষের হ্যান্ডগস্নাভস পরা ঠিক হচ্ছে না। তারা কেন হ্যান্ড গস্নাভস পড়বে? হ্যান্ডগস্নাভস পরবে চিকিৎসক আর নার্সরা। সাধারণ মানুষ শুধু শুধু হ্যান্ডগস্নাভস পরে বাজারে সংকট তৈরি করতে পারবেন, কাজের কাজ কিছুই হবে না।

তিনি বলেন, সাধারণ মানুষ করোনাভাইরাস থেকে যদি নিজেদের নিরাপদ রাখাতে চান তাহলে ভালোভাবে সাবান দিয়ে হাত ধুলেই হবে। আর যারা নামাজ পড়েন তারা নামাজের আগে ওজু করলেই হবে। তাই নামাজের অভ্যাস গড়ে তোলতে হবে। এতেই তারা নিরাপদে থাকতে পারবেন। হ্যান্ডগস্নাভস পরার দরকার নেই।

একই মত দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ডিন এবং বায়োকেমিস্ট্রি অ্যান্ড মলিউকুলার বায়োলজির প্রফেসার এম. ইকবাল আর্সালান। তিনি বলেন, সাধারণ মানুষের হ্যান্ডগস্নাভস ব্যবহার করার কোনো দরকার নেই। তারা সাবান দিয়ে হাত ধুলেই করোনাভাইরাস থেকে নিরাপদ থাকতে পারবেন।

জনস্বাস্থ্য বিশেজ্ঞদের মতে, হ্যান্ডগস্নাভস পরার কিছু নিয়ম আছে। সাধারণত এমন কোনো কাজ করার সময় হ্যান্ডগস্নাভস পরতে হবে যখন কোনো বস্তুর স্পর্শ হাতে লাগানো যাবে না বা হাতের স্পর্শ কোনো বস্তুতে লাগানো যাবে না। এসব খেত্রে হ্যান্ডগস্নাভস ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক। এছাড়া অনেকেই স্পর্শকাতর কোনো কাজ করার সময়ও হ্যান্ডগস্নাভস ব্যবহার করে থাকেন। তাই বলে সাধারণ মানুষ করোনাভাইরাসের ভয়ে সব সময় হ্যান্ডগস্নাভস পরবেন, তা কিন্তু নয়।

তারা বলেন, সাধারণ মানুষ করোনাভাইরাসের ভয়ে হ্যান্ডগস্নাভস পরে নিজের নিরাপত্তার পরিবর্তে আরও ক্ষতি করছেন। তারা হ্যান্ডগস্নাভস পরে বিভিন্ন বস্তু ধরছেন, রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন, পরিবহণে উঠছেন এবং নিজের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ স্পর্শ করছেন। তাহলে এই হ্যান্ডগস্নাভস পরে কি কোনো উপকার হলো? বরং হ্যান্ডগস্নাভস না পরে মুখ, নাক এবং চোখ স্পর্শ করার আগে সাবান দিয়ে ভালোভাবে হাত ধুলেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না বলেই তারা মত দিয়েছেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে