logo
বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

নিজ গাড়িতে পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্রে পৌঁছে দিলেন পুলিশ কর্মকর্তা

নিজ গাড়িতে পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্রে পৌঁছে দিলেন পুলিশ কর্মকর্তা
ধর্মঘটের কারণে সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকায় বুধবার প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার্থীদের নিজ গাড়িতে করে কেন্দ্রে পৌঁছে দেন ডেমরা ট্রাফিক জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. রবিউল ইসলাম রাজু -সংগৃহীত
যাযাদি রিপোর্ট

ধর্মঘটের কারণে সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকায় প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার্থীদের নিজ গাড়িতে করে কেন্দ্রে পৌঁছে দিলেন ডেমরা ট্রাফিক জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. রবিউল ইসলাম রাজু।

জানা গেছে, সড়ক পরিবহণ আইন-২০১৮ বাতিলের দাবিতে বুধবার সকাল থেকে রাজধানীর ডেমরা, যাত্রাবাড়ী, সায়েদাবাদে ধর্মঘট করে ট্রাক শ্রমিকরা। একই দাবিতে নানা কোম্পানির বাস বন্ধ থাকায় রাস্তা ছিল ফাঁকা। সড়কে রিকশাও ছিল হাতেগোনা। সকাল সাড়ে ১০টা থেকে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা (পিএসসি) অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। তাই খুদে শিক্ষার্থীদের নিয়ে অভিভাবকরা সকাল ৯টার পর থেকেই যাত্রাবাড়ী, সায়েদাবাদ, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দুইপাশে ভিড় করেন। একই সঙ্গে সরকারি তোলারাম কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের পরীক্ষাও ছিল। তবে সড়কে গণপরিবহণ না থাকায় সবাই ছিল উদ্বিগ্ন।

এ সময় সড়কে ট্রাফিক কার্যক্রম মনিটর করতে নিজের সরকারি গাড়ি নিয়ে যাচ্ছিলেন ডেমরা ট্রাফিক জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. রবিউল ইসলাম রাজু। তিনি শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের দেখে গাড়ি থেকে নেমে পিএসসি শিক্ষার্থী দিয়ে কেন্দ্রে পাঠিয়ে দেন। গাড়ি ফিরে আসার পর আবারও শিক্ষার্থীদের দিয়ে বিভিন্ন স্কুল ও তোলারাম কলেজে পাঠান তিনি। এছাড়া আশপাশ থেকে আসা কয়েকটি পিকআপ ভ্যান ভাড়া করেও শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের তুলে দেন।

তবে দেরি করে কেন্দ্রে পৌঁছানোয় পরীক্ষা নেয়নি তোলারাম কলেজ কর্তৃপক্ষ। পরে এ বিষয়ে কলেজের অধ্যক্ষের সঙ্গেও কথা বলেন রবিউল ইসলাম। তার অনুরোধে পরবর্তীতে পরীক্ষা নেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন অধ্যক্ষ।

আফজাল হোসেন নামে ডেমরার এক অভিভাবক বলেন, 'রেজাল্ট ও পরীক্ষার সময় শিক্ষার্থীদের চেয়ে অভিভাবকরা বেশি টেনশনে থাকে। এর ওপর গাড়ি নেই। চোখে অন্ধকার দেখছিলাম। তখন তিনি (পুলিশ কর্মকর্তা) তার গাড়ি থেকে নেমে আমার ছেলেসহ আরও কয়েকজন পরীক্ষার্থীকে তুলে কেন্দ্রে পাঠিয়ে দেন। পুলিশের এমন আচরণে আমরা সত্যিই মুগ্ধ।'

অপরদিকে পুলিশ কর্মকর্তার এমন কাজে মুগ্ধ হয়ে তোলারাম কলেজের অনেক শিক্ষার্থী ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন।

পুলিশ কর্মকর্তা রবিউল বলেন, 'পুলিশিংয়ের বাইরেও অনেক দায়িত্ব রয়েছে। এছাড়া শিক্ষার্থীরা আমাদের ভবিষ্যৎ। তাদের কথা বিবেচনা করে এ ব্যবস্থা করি। এছাড়াও এসব সড়কে ফুটওভার ব্রিজ নেই, রাস্তা বন্ধ। আমি ও আমার টিম দ্রম্নত উদ্যোগ নিয়ে পরীক্ষার্থীদের পার করে দেই।'

উলেস্নখ্য, সড়ক পরিবহণ আইন স্থগিত ও সংশোধনের দাবিসহ ৯ দফা দাবিতে বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান পণ্য পরিবহণ মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকা অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি চলছে। ট্রাক শ্রমিকদের কর্মবিরতির কারণে সড়কে চলছে হাতেগোনা কয়েকটি গণপরিবহণ। এছাড়াও কয়েকটি সড়কে বাস থামিয়ে চালকদের কাছ থেকে চাবি ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটিয়েছে ট্রাক চালকরা।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে