logo
রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬

  কিশোর সরকার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

অ্যাপসের অটোরিকশাও অতিরিক্ত ভাড়া নিচ্ছে

নীতিমালা লঙ্ঘন করে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে অ্যাপসের মাধ্যমে পরিচালিত সিএনজি অটোরিকশাও।

জানা গেছে, রাজধানীতে চলাচলকারী সিএনজি অটোরিকশা ১৫ হাজার ৬৯৬ সংখ্যা সীমা বেঁধে দেয়া আছে। অথচ এছাড়া মহানগরীতে সিএনজি বেবিটেক্সির সংখ্যা সীমা বেঁধে দেয়া থাকলেও অ্যাপসের মাধ্যমে ভাড়ায় পরিচালিত যানবাহনের সংখ্যা নির্ধারণ করা নেই। বর্তমানে মহানগরীতে সাড়ে সাত হাজার সিএনজিচালিত বেবিটেক্সি অ্যাপসের মাধ্যমে সেবা সার্ভিস পরিচালনা করে আসছে।

জানা গেছে, বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) নীতিমালা অনুযায়ী ভাড়ায় চালিত যানবাহন অ্যাপসের মাধ্যমে চালালে তাকে সরকার নির্ধারিত সেই যানবাহনের ভাড়াতেই চালাতে হবে। কিন্তু অ্যাপসের মাধ্যমেই সিএনজি অটোরিকশা পরিচালনাকারী কোম্পানি তা মানছে না।

জানা গেছে, রাজধানীতে সিএনজি অটোরিকশা ভাড়া প্রথম দুই কিলোমিটার ৪০ টাকা, এর পরের প্রতি কিলোমিটার ১২ টাকা এবং সিগন্যালে ওয়েটিং প্রতি মিনিট ২ টাকা। কিন্তু অ্যাপসের মাধ্যমে পরিচালিত 'ওভাই সলিউশন' কোম্পানির সিএনজি বেবিটেক্সির প্রথম দুই কিলোমিটার একশ' টাকা এবং পরের চলমান (রানিং) প্রতি মিনিট ১ টাকা ৫০ পয়সা। এতে যাত্রীদের অনেক বেশি টাকা গুনতে হচ্ছে বলে অ্যাপস ব্যবহারকারী যাত্রীদের কাছ থেকে জানা গেছে।

তবে এমজেএইচ গ্রম্নপের 'ওভাই সলিউশন্‌ লিমিটেডের' নামের একটি কোম্পানি নীতিমালা লঙ্ঘন করে সারাদেশে সাড়ে বারো হাজারের বেশি সিএনজি অটোরিকশা অ্যাপসের মাধ্যমে সার্ভিস পরিচালনা করে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করে আসছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সামনেই খোদ রাজধানীতেই সাড়ে সাত হাজার সিএনজি বেবিটেক্সি পরিচালনা করে আসছেন বলে কোম্পাটির মুখপাত্র সৈয়দ ফখরুদ্দিন মিলস্নাত নিশ্চিত করেছেন।

তবে বিআরটিএর পরিচালক (ইঞ্জিন) লোকমান হোসেন মোলস্না বলেছেন, সিএনজি অটোরিকশা যেহেতু ভাড়ায় চালিত হিসেবে রেজিস্ট্রেশন তাই সে অ্যাপসের মাধ্যমেও চালাতে পারবে। কিন্তু তাকে ভাড়া নিতে হবে সিএনজি অটোরিকশার জন্য যে ভাড়া নির্ধারণ করা আছে তাই। তবে এর বেশি নিয়ে থাকলে সেটা বেআইনি, এটা দেখার দায়িত্ব পুলিশের।

তবে 'ওভাই সলিউশন' কোম্পানির মুখপাত্র ফখরুদ্দিন মিলস্নাত বলেন, অ্যাপসের মাধ্যমে যাত্রীসেবা দিতে অনেক বেশি খরচ হয়। তাই প্রথম একশ' টাকা বেশি নয় বলে তিনি দাবি করেন। এছাড়া সিএনজি অটোরিকশায় সরকার যে ভাড়া নির্ধারণ করা আছে তা তার কোনো সময়ই নেন না বলে তিনি দাবি করেন।

কিন্তু ঢাকা মহানগর অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ হানিফ খোকন বলেন, সিএনজি অটোরিকশা যদি অ্যাপসের মাধ্যমে চালানো বৈধ হয়, তাহলে একই দেশে দুই নিয়ম কেন? সিএনজি অটোরিকশা চালকরা প্রথম দুই কিলোমিটার ৪০ টাকা পাবে আর অ্যাপসের বেবিটেক্সিরা একশ' টাকা নিবে, এটা কোন নিয়ম।

তিনি বলেন, আমাদের একজন সিএনজি অটোরিকশা চালক সিগন্যালে ওয়েটিং টাইম ১২ টাকার স্থলে ১৫ টাকা নিলে ট্রাফিক তাদের গাড়ি ডাম্পিং করে, জরিমানা করে, গ্রেফতার করে জেলে পাঠান। কিন্তু অ্যাপসের কোম্পানি সবার সামনে এত বেশি টাকা নিচ্ছে এর কোনো বিচার নেই কেন? তিনি বলেন, সিএনজির সংখ্যা সীমা থাকলে অ্যাপসের মাধ্যমে পরিচালিত যানবাহনের সংখ্যা সীমা থাকবে না কেন।

বিআরটিএর চেয়ারম্যান মো. মশিয়ার রহমান বলেন, অ্যাপসের মাধ্যমে সিএনজি একশ' টাকা নিলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

\হ
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে