logo
মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬

  গাজীপুর প্রতিনিধি   ২৬ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০  

গাজীপুরে জলাবদ্ধতার প্রতিবাদে মানববন্ধন

গাজীপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনের রাস্তা ব্যবহারে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করার প্রতিবাদ জানিয়ে রোববার এলাকাবাসী বিক্ষোভ, সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন।

এ সময় সমাবেশে স্থানীয় বাসিন্দা মো. জিয়া অভিযোগ করেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে প্রায় কয়েক হাজার পরিবার বসবাস করেন। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রবেশ পথের দুইপাশে উঁচু করে ফুটপাত ও স্থায়ী ড্রেন নির্মাণ করেছে। এতে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না রাখায় অল্প বৃষ্টি হলেই আশেপাশে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। এছাড়া এলাকাবাসির জন্য ওই রাস্তা ব্যবহার করতে সিড়ি প্রয়োজন হচ্ছে এবং কর্তৃপক্ষ বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশে মূল রাস্তার দুই পাশে উচু ফুটপথ দুইটি অতিক্রম করে রিক্সা বা গাড়ি নিয়ে এলাকাবাসীর বাড়িতে ঢুকার কোন ব্যবস্থা রাখেনি। এতে বয়স্ক নর-নারী কিংবা অসুস্থ্যদের জন্য অ্যাম্ু্বলেন্স ব্যবহার করাও খুব সমস্যা হচ্ছে। কতৃপক্ষ রাস্তার দুইপাশে বাউন্ডারি ওয়াল নির্মানের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানা গেছে। এটা হলে আশেপাশের লোকজন বন্দিদশার মধ্যে পড়বে। বাড়ি থেকে তাদের বের হওয়ার কোন রাস্তা থাকবে না। এসব কারণে রাস্তার দুই পাশের বাসিন্দারা দূশ্চিন্তা ও মহাদুর্ভোগে পড়েছে।

এলাকাবাসী সকালে সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে বিক্ষুব্ধ জনতা অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে এবং সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে। এতে বক্তব্য রাখেন মো. জিয়াউর রহমান আব্দুল মোতালেব প্রমূখ। এক পর্যায়ে পাশের ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কেক অবরোধ করার চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের সরিয়ে দেয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. গিয়াস উদ্দিন মিয়া জানান, এটা একটা জাতীয় প্রতিষ্ঠান। দেশ/বিদেশের ও শিক্ষার্থী এখানে যাতায়ত করে। বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার রাস্তার পাশের ফুটপথের উপর ভাসমান লোকেরা মুদি দোকান, মাছের দোকান বসিয়ে চলাচলে সমস্যা সৃষ্টি করে এবং পথটি নোংরা করে রাখে।

এছাড়া বাইরের নোংরা ও নদর্মার পানি বিশ্ববিদ্যালয়ের চত্বরে ঢুকে যাওয়ায় কারণে ওইসব পথ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তারপরও তিনি বলেন, রাস্তার পাশে কয়েকটা স্থায়ী বাড়ি আছে। বাকিরা ভাসমান। স্থায়ী বাড়ির বাসিন্দারা যদি বিশ্ববিদ্যালয়ের সামগ্রিক পরিবেশ ঠিক রাখতে অঙ্গীকারবদ্ধ হন তবে তাদের সমস্যার সমাধানের জন্য একটা পথ বের করা যেতে পারে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে