logo
শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ১৫ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০  

বোনকে বাঁচাতে গিয়ে পদ্মায় ডুবল ভাইও

শরীয়তপুরে পদ্মা নদীতে গোসল করতে নেমে কিশোর-কিশোরী ভাই-বোনের মৃতু্য হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে নড়িয়া উপজেলার নওপাড়া এলাকায় তারা নদীতে ডুবে যান। রাতে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন নওপাড়া ইউনিয়নের নওপাড়া গ্রামের আবদুল হক বেপারীর ছেলে শরীফ বেপারী (১৮) ও মেয়ে মাহফুজা আয়শা (১৩)।

শরীফ ঢাকার বিএম করেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ও মাহফুজা মদিনা নগর দাখিল বোনকে বাঁচাতে গিয়ে

মাদ্রাসার তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

তাদের বাবা আবদুল হক বেপারী বলেন, তিনি ঢাকায় সিএনজি অটোরিকশা চালান। দীর্ঘদিন ধরে তারা ঢাকার মীরপুরে বসবাস করেন। ঈদ উপলক্ষে বুধবার তার মেয়ে মাহফুজা ও শনিবার ছেলে শরীয়ফ গ্রামের বাড়ি আসেন।

তিনি বলেন, 'মঙ্গলবার দুপুরে শরীফ ও মাহফুজা পদ্মা নদীতে গোসল করতে যায়। নদীতে সাঁতার কাটতে কাটতে মাঝ নদীতে চলে গেলে পানির স্রোতে তলিয়ে যায় মাহফুজা। বোনকে বাঁচাতে গিয়ে নদীতে নেমে ভাই শরীফও পানিতে তলিয়ে যায়।'

তিনি বলেন, 'নিখোঁজের ৮ ঘণ্টা পর তাদের লাশ ডুবুরিয়া উদ্ধার করে। গ্রামে এসে আদরের ছেলে মেয়েদের হারালাম। আমার সব শেষ হয়ে গেছে।'

নওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাসেদ আগর সোহেল মুন্সি বলেন, 'ভাই-বোন পদ্মা নদীতে গোসল করতে যায়। বোন মাহফুজা আয়শা গোসল করতে নামার পর নদীর স্রোতে তলিয়ে যায়। এ সময় ভাই শরীফ বাঁচাতে গিয়ে সেও স্রোতে ভেসে যায়। দুই ভাই বোনের করুন মৃতু্য হয়।'

নড়িয়া থানার ওসি মঞ্জুরুল হক আকন জানান, নারায়ণগঞ্জ থেকে তিন ডুবুরি দল এসে কয়েক ঘণ্টার চেষ্টার পর মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে তাদের লাশ উদ্ধার করে। জানাজা শেষে বুধবার বিকালে নওপাড়া গ্রামে তাদের লাশ দাফন করা হয়।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে