logo
বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৮ ফাল্গুন ১৪২৬

  পাবনা প্রতিনিধি   ১৯ মে ২০১৯, ০০:০০  

পাবনার শিক্ষক লাঞ্ছনায় ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার

পাবনার শিক্ষক লাঞ্ছনায় ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার
শামসুদ্দিন জুন্নুন
পাবনা সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক মাসুদুর রহমানের ওপর হামলার বহুল আলোচিত অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা শামসুদ্দিন জুন্নুনকে অবশেষে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। শনিবার বেলা ১১টায় শহর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( পুলিশ সুপার পদোন্নতি প্রাপ্ত) গৌতম কুমার বিশ্বাস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। শামসুদ্দিন জুন্নুন পাবনা সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি এবং শহরের শালগাড়ীয়া মহলস্নার মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

উলেস্নখ্য, গত ৬ মে পাবনা সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজে উচ্চ মাধ্যমিকের উচ্চতর গণিত পরীক্ষা চলাকালে ১০৬নং কক্ষ অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে ২ পরীক্ষার খাতা কিছু সময়ের জন্য জব্দ করেন কক্ষ পরিদর্শক বাংলা বিভাগের প্রভাষক মাসুদুর রহমান। এ ঘটনায় পরীক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ হয় ওই শিক্ষকের ওপর। এ ঘটনার জেরে ১২ মে কলেজ থেকে বের হওয়ার সময় কলেজের গেটেই ছাত্রলীগ কর্মীরা শিক্ষক মাসুদুরের ওপর হামলা চালিয়ে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে। ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়লে বিষয়টি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে

চলে আসে।

বুধবার রাতেই কলেজের অধ্যক্ষ এসএম আব্দুল কুদ্দুস বাদী হয়ে দুইজনের নাম উলেস্নখ্য করে অজ্ঞাত ৩-৪ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ বৃহস্পতিবার সকালে এই মামলায় জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার গোকুলনগর গ্রামের মো. শাহেদ আলীর ছেলে সজল ও পাবনা সদর উপজেলার মালঞ্চি গ্রামের ইউসুফ আলী শেখের ছেলে শাফিন শেখকে গ্রেপ্তার করে। কিন্ত সিসিটিভির ফুটেজে শামসুদ্দিন জুন্নুন কে দেখা গেলেও রহস্যজনক কারণে অধ্যক্ষ এসএম আব্দুল কুদ্দুস তার নাম বাদ দিয়ে মামলা দায়ের করেন এবং পুলিশও তার নাম এড়িয়ে যান। বিষয়টি ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা সৃষ্টি হয় পাবনাসহ দেশব্যাপী। এ ঘটনায় বিসিএস সাধারণ শিক্ষকরাও দেশব্যাপী নিন্দা ও প্রতিবাদ কর্মসূচি শুরু করেন। অবশেষে পুলিশ শনিবার তাকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে