logo
রোববার ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫

  বরগুনা প্রতিনিধি   ১২ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০  

হত্যা মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে

বরগুনা সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও শহর যুবলীগের সভাপতি গোলাম আহাদ সোহাগকে একটি হত্যা মামলায় কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার সকালে বরগুনা চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক এম জাহিদ হাসানের আদালতে তার জামিনের আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর নিদের্শ দেন।

এর আগে গোলাম আহাদ সোহাগ সুপ্রিম কোটের্র হাইকোটর্ বিভাগ থেকে গত ১২ সেপ্টেম্বর চার সপ্তাহের আগাম জামিন নেন। হাইকোটের্র চার সপ্তাহ জামিনের মেয়াদ শেষ হলে মঙ্গলবার সকালে বরগুনা চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তিনি হাজির হন।

জানা যায়, জেলার সদর ইউনিয়নের দক্ষিন হেউলিবুনিয়া গ্রামের ইউনুস মিয়ার স্ত্রী রাশেদা বেগম বরগুনা থানায় গত ১৫ আগষ্ট  ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম আহাদ সোহাগসহ ১২ জনকে আসমি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলায় বাদী উল্লেখ করেন, ১২ আগষ্ট সন্ধ্যায় চেয়ারম্যানের হুকুমে তার ছেলে আল-আমিনকে আসামি জাহাঙ্গীর বাসা থেকে ডেকে নিয়ে অপর আসামি মিজানের রিক্সার গ্যাজের যায়। সেখানে আসামিরা প্রথমে আল আমিনের দুই চোখে মরিচের গুড়া দেয় এবং পারে চাকু দিয়ে দুই চোখ চোখ উপড়ে ফেলে। পরে তারা লোহার রড় ও রামদা দিয়ে আল আমিনের হাত পা ভেঙ্গে দেয়। খবর পেয়ে মুমূষর্ অবস্থায় আল আমিনকে সেখান থেকে উদ্ধার করে প্রথমে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে এবং পরে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভতির্ করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৩ আগষ্ট আল আমিন মারা যায়।

বাদী রাশেদা বেগম বলেন, নারগিস নামের একটি মেয়ের সঙ্গে চেয়ারম্যান গোলাম আহাদ সোহাগের অবৈধ সম্পকর্ ছিল। আমার ছেলে তা দেখে ফেলায় প্রভাবশালী চেয়ারম্যান গোলাম আহাদ সোহাগ তার লোকজন দিয়ে আমার ছেলেকে ঘর থেকে তুলে নিয়ে চোখ তুলে পিটিয়ে হত্যা করে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে