logo
মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  আলাউদ্দিন আল রনি, মাধবপুর (হবিগঞ্জ)   ০৯ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০  

মাধবপুরে কৃষিতে করোনার প্রভাব

হবিগঞ্জের মাধবপুরে করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়েছে কৃষিতে। এ ছাড়াও ব্যাপক শিলা-বৃষ্টির কারণে কৃষকরা ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন। উৎপাদিত কৃষিপণ্য বাজারজাত করতে না পারায় জমিতেই তাদের পণ্য নষ্ট হচ্ছে। অপরদিকে সম্প্রতি উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ঝড়ো হাওয়া ও শিলা-বৃষ্টির কারণে ব্যাপক ফসল নষ্ট হয়েছে।

উপজেলার শাহজাহানপুর, বহরা, চৌমুহনী, ধর্মঘর, আদাঐর, ছাতিয়াইন, নোয়াপাড়া, বাঘাসুরা, বুলস্না, জগদীশপুর ইউনিয়নের কৃষকরা কয়েক হাজার একর জমিতে সবজি চাষ করে জীবিকানির্বাহ করে আসছে। উৎপাদিত এসব সবজি মাধবপুর উপজেলার চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে বাজারজাত করে থাকে। কিন্তু করোনাভাইরাসের প্রভাবে এবং এর সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারের বাধ্যতামূলক পদক্ষেপের কারণে সবজির চাহিদা অনেক কমে গেছে। ফলে বাহির থেকে পাইকাররা এলাকার বাজারগুলোতে আসছে না। যার ফলে কৃষকরা তাদের উৎপাদিত পণ্য বাজারজাত করতে না পারায় ক্ষতির আশঙ্কা করছেন।

কয়েকটি এলাকায় সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, শিলা-বৃষ্টির আঘাতে মিষ্টিকুমড়া গাছের সব পাতা নষ্ট হয়ে গেছে এবং মিষ্টিকুমড়া ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। টমেটো ও বরবটির অবস্থা একই। সবজিচাষি সাহাদত মিয়া বলেন, বেশিরভাগ মিষ্টিকুমড়ায় শিলা-বৃষ্টির আঘাত লেগেছে, ফলে এগুলো এখন পচে নষ্ট হয়ে যাবে। এমনিতেই করোনাভাইরাসের প্রভাবে উৎপাদিত টমেটো, মিষ্টিকুমড়া ও বরবটি স্থানীয় বাজারে কম দামে বিক্রি করছিলেন। লাভের আশা ছেড়ে দিয়ে পুঁজি ফেরত পাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু বৃহস্পতিবারের শিলা-বৃষ্টিতে পুঁজি ফেরত পাওয়ার আশা শেষ হয়ে গেছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, করোনাভাইরাসের প্রভাব ও শিলা-বৃষ্টিতে সবজিচাষিরা ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। আমরা তা কাটিয়ে উঠতে কৃষি অফিস থেকে প্রতিনিয়ত পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে