logo
রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১০ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০  

রংপুরে শ্যামা সুন্দরী খাল দখলমুক্ত প্রক্রিয়া স্থবির

আবেদুল হাফিজ, রংপুর

রংপুর নগরীর ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া শ্যামা সুন্দরী খাল দখলমুক্ত প্রক্রিয়া স্থবির হয়ে আছে। জেলা প্রশাসনে সংরক্ষিত পস্নাটোন মেশিনটি বিকল হওয়ার কারণে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। সম্প্রতি জেলা প্রশাসন সম্মেলনকক্ষে 'শ্যামা সুন্দরী খাল পুনরুজ্জীবন ও সচল রাখায় আমাদের করণীয়' শীর্ষক এক মতবিনিময় সভা অবৈধভাবে দখলদার উচ্ছেদের বিষয়টি উঠে এসেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বর্তমানে খালটি ময়লা-আবর্জনায় ভরাট হয়ে গেছে। দীর্ঘদিন ধরে সংস্কারের অভাবে খালটি পরিণত হয়েছে মশার আবাসস্থলে। ২৩ থেকে ৯০ ফুট প্রশস্ত খালটি এখন রয়েছে ৮ থেকে ১০ ফুটে। বাকি জায়গা এখন বেদখলে রয়েছে। ৪৮২টি বাসা থেকে পয়ঃনিষ্কাশনের লাইন খালের সঙ্গে সংযোগ রয়েছে। ২০০৭-০৮ অর্থবছরে রংপুর পৌরসভার খালটি খনন করা হয়েছিল। পরে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ২০১২ সালে শ্যামা সুন্দরী খাল সংস্কার, ওয়াকওয়ে ও খালের উপর সেতু নির্মাণকাজ শুরু করেছিল। পরে সেটি সিটি করপোরেশন ও স্থানীয় প্রকৌশলের মধ্যে দ্বন্দ্বে বন্ধ হয়ে যায়। ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে রংপুর পানি উন্নয়ন বোর্ড শ্যামা সুন্দরী খাল খননের একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে। সাড়ে তিন কোটি টাকা ব্যয়ে রংপুর পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক খনন কাজ অব্যাহত রয়েছে। তবে সিএস ম্যাপের অভাবে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করা যাচ্ছে না।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মেহেদী হাসানের সঙ্গে যায়যায়দিনের কথা হয়। তিনি বলেন, সিএস ম্যাপ ছাড়া শ্যামা সুন্দরী খাল থেকে দখলদারদের উচ্ছেদ করা যাবে না। সিএস ম্যাপ ধরে খালের প্রশস্ত ঠিক করতে হবে।

এ প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক আসিব আহসান যায়যায়দিনকে বলেন, পস্নাটোন মেশিনটি দীর্ঘদিন ধরে বিকল হয়ে আছে। এটি সচল করতে ৫ লাখ টাকা প্রয়োজন। এ সংক্রান্ত বিষয়ে ঢাকায় লেখালেখি হয়েছে। বরাদ্দ পেলেই কাজটি দ্রম্নত শুরু করা সম্ভব হবে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে