logo
শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬

  কুষ্টিয়া প্রতিনিধি   ১৩ জুন ২০১৯, ০০:০০  

কুষ্টিয়ায় ছাত্রলীগের বিরোধ তুঙ্গে

কুষ্টিয়ায় উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা নিয়ে নিজেদের মধ্যে বিরোধ তুঙ্গে উঠেছে। সেই সাথে বাড়ছে নেতাকর্মীদের মধ্যে অসন্তোষ এবং দূরত্ব।

জানা গেছে, চলতি মাসে জেলার মিরপুর ও কুমারখালী উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করে জেলা কমিটি। আর এই কমিটি ঘোষণার পর থেকেই শুরু হয়েছে জটিলতা।

ছাত্রলীগের জেলা কমিটির এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মিরপুর ও কুমারখালী উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে যে বিতর্ক চলছে তার সত্যতা যাচাই এবং কারা বিতর্ক সৃষ্টি করেছে তা যাচাই করার জন্য তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং ওই কমিটিকে আগামী ৭ দিনের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট জমা দেয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়। সেই সাথে তদন্ত রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত দুই উপজেলার ছাত্রলীগের সব কার্যক্রম স্থগিত রাখারও নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, গত ৪ জুন কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইয়াসির আরাফাত তুষার ও সাধারণ সম্পাদক সাদ আহম্মেদ স্বাক্ষরিত ছাত্রলীগের দলীয় প্যাডে এস এম মেহেদী হাসানকে সভাপতি ও আলী হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করে কুমারখালী উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়। একই তারিখে মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক ও বিজয় আলী তুফানকে সাধারণ সম্পাদক করে মিরপুর উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়। এরপর থেকে শুরু হয় জটিলতা। বিভিন্ন অভিযোগ এনে কমিটি বিলুপ্তের দাবিতে সভা সমাবেশ করতে থাকে পদবঞ্চিতরা।

এ দিকে বিষয়টি স্বীকার করে কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইয়াসির আরাফাত তুষার বলেন, 'আমাদের নেতা মাহবুবউল আলম হানিফ কুষ্টিয়ায় আসলে তার সাথে কথা বলে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে