logo
বৃহস্পতিবার ২৭ জুন, ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬

  স্টাফ রিপোটার্র, রাজবাড়ী   ১৩ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০  

রাজবাড়ী শিশু হাসপাতালের কাযর্ক্রম বন্ধ

রাজবাড়ী পৌর শিশু হাসপাতালটি দীঘর্ ২৩ বছর ধরে ধঁুকতে ধঁুকতে অবশেষে বন্ধ হয়ে গেছে। হাসপাতালটিতে বতর্মানে সূযের্র হাসি ক্লিনিকের কাযর্ক্রম পরিচালিত হচ্ছে। একটি পূণার্ঙ্গ শিশু হাসপাতালের অভাবে নবজাতকসহ শিশু রোগীদের চিকিৎসা করাতে খুবই সমস্যার মুখোমুখি হতে হচ্ছে অভিভাবকদের। বিশেষ করে জটিল রোগের চিকিৎসার ক্ষেত্রে গত এক মাসে রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল থেকে ৩৯ শিশুকে রেফাডর্ করা হয় ফরিদপুরসহ বিভিন্ন শিশু হাসপাতালে। পৌর কতৃর্পক্ষ জানিয়েছে, আথির্ক দুরাবস্থার কারণে এই মুহূতের্ হাসপাতালটি চালু করা যাচ্ছে না।

রাজবাড়ী পৌরসভা সূত্র জানায়, ১৯৯৫ সালের দিকে রাজবাড়ী পৌরসভার উদ্যোগে শহরের নতুনবাজার এলাকায় পৌর শিশু হাসপাতালটি স্থাপিত হয়। প্রতিষ্ঠার পর সেখানে একজন চিকিৎসক রোগী দেখে শুধু ব্যবস্থাপত্র দিতেন। এভাবেই চলেছে ২২টি বছর। সবের্শষ ওই হাসপাতালের দায়িত্বে ছিলেন ডা. আব্দুর রশিদ। ২০১৭ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর তিনি দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেয়ার পর কাযর্ক্রম পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়।

ডা. আব্দুর রশিদ ১৯৯৮ সালে পৌর শিশু হাসপাতালে যোগ দেয়ার পর ছুটির দিন বাদে প্রতিদিন দুই ঘণ্টা করে রোগী দেখা হতো। রোগী দেখে শুধু ব্যবস্থাপত্র দেয়ার মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল কাযর্ক্রম। তা সত্তে¡ও প্রতিদিন গড়ে ২৫ থেকে ৩০ জন রোগী হতো।

চার কক্ষ বিশিষ্ট শিশু হাসপাতালটির তিনটি কক্ষের দরজা খোলা রয়েছে। একটি কক্ষ ও বারান্দাজুড়ে রাখা হয়েছে হাসপাতালের পাশের নিমার্ণাধীন একটি বিল্ডিংয়ের রড সিমেন্ট। বাকি দুটি কক্ষ জরাজীণর্। আর হাসপাতাল বিল্ডিংয়ের সামনে ইটের স্ত‚প।

রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট (শিশু) ডা. গোলাম ফারুক বলেন, রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে শিশুদের চিকিৎসার জন্য যথেষ্ট ব্যবস্থা নেই। যে কারণে ঝঁুকিপূণর্ রোগে আক্রান্ত শিশুদের রেফাডর্ করতে হয়।

রাজবাড়ী পৌরসভার মেয়র মুহম্মদ আলী চৌধুরী বলেন, পৌর শিশু হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. আব্দুর রশিদ স্বেচ্ছায় অবসর নেয়ার কারণে কাযর্ক্রম বন্ধ আছে। এ ছাড়া পৌরসভার আথির্ক সংকটের কারণে আপাতত বন্ধ রাখতে হয়েছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে