logo
শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  স্টাফ রিপোর্টার, ভোলা   ২৩ মে ২০২০, ০০:০০  

আশ্রয়কেন্দ্র থেকে ফিরে দেখে বাড়িঘর বিধ্বস্ত

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাতে উপকূলীয় দ্বীপজেলা ভোলায় ঘরবাড়ি বিধ্বস্তসহ বেড়িবাঁধ, কৃষকের ফসল, পুকুরের মাছের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। জোয়ারের পানিতে ও ঝড়ে কয়েক কোটি টাকার সম্পদের ক্ষতি হয়েছে। এদিকে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো দুর্ভোগে দিন কাটাচ্ছে। বিশেষ করে ভোলার সর্বদক্ষিণ চরফ্যাসন উপজেলার সাগর মোহনার ঢাল চর ইউনিয়নে বহু মানুষ আশ্রয়কেন্দ্র থেকে ফিরে গিয়ে দেখে তাদের ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে।

জানা গেছে, ত্রাণ সহায়তা পায়নি এ এলাকার মানুষ। অনেকেই খোলা আকাশের নিচে চরম সংকটের মধ্যে মানবেতর দিন পার করছে। এদিকে ঢাল চরে বিধ্বস্ত পরিবারগুলো শেষ সম্বল যা আছে তা দিয়ে মাথার ওপর ছাউনি মেরামত করে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে।

ঢাল চর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সালাম হাওলাদার জানান, তার দুর্গম এই ইউনিয়নে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত কোনো ত্রাণ পৌঁছেনি। শুক্রবার বিকালে কোস্টগার্ডের পক্ষ থেকে ১৫০ ত্রাণ গিয়ে পৌঁছে। তবে কী কী দিয়েছে তা তিনি এখনো দেখেননি।

ভোলা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আজহারুল ইসলাম জানান, ঘূর্ণিঝড়ে প্রায় ৬ কোটি ৭০ লাখ টাকার মৎস্য খাতে ক্ষতি হয়েছে। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ পর্যন্ত ৩০০ মেট্রিক টন চাল, ৯ লাখ টাকা, ১৭ হাজার শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়। এদিকে ভোলার চরফ্যাশনের চর মানিকায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানের ক্ষতিগ্রস্ত ৫০০ পরিবারের মাঝে শুক্রবার সকালে ত্রাণসামগ্রী দেওয়া হয়।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে