logo
সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  যাযাদি রিপোর্ট   ২৮ মার্চ ২০২০, ০০:০০  

'দুই দিন বাসায় ছিলাম, আজ পকেটে কিছুই নাই'

'দুই দিন বাসায় ছিলাম, আজ পকেটে কিছুই নাই'
যাত্রীর অপেক্ষায় মিন্টু
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে নিরাপদে থাকতে দেশের অধিকাংশ মানুষই বাসায় অবস্থান করছেন। নাটোর থেকে ঢাকায় রিকশা চালাতে আসা মিন্টুও গত দুই দিন বাসাতেই ছিলেন। কিন্তু শুক্রবার থেকে তার ঘরে চাল-ডাল সব শেষ হয়ে গেছে। কোনো টাকাও নেই তার কাছে। তাই করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও রিকশা নিয়ে বেরিয়েছেন মিন্টু।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে প্রখর রোদের মধ্যে যাত্রীর জন্য অপেক্ষা করছিলেন তিনি। এ সময় বলেন, 'দুই দিন বাসায় ছিলাম। আজকে পকেটে কিছু নাই, ঘরেও কিছুই নাই। তাই আমি বাইর হইয়া গেছি। কার কাছে বলব আর কেই-বা আমাকে দিবে।'

মিরপুর ১ নম্বরের একটি বাসায় ভাড়া থাকেন মিন্টু আর তার বোন। তার বোন একটি পোশাক কারখানায় কাজ করেন। কারখানা ছুটি হয়ে গেছে। তাই এখন কর্মহীন অবস্থায় ঘরে থাকছেন তার বোন।

মিন্টু বলেন, 'আমার বউ-সন্তান বাড়িত আছে। তাদেরকে প্রায় ২০ দিন আগে টাকা পাঠাইছি। এর মধ্যে তো টাকাই নাই, পাঠাব কীভাবে? আমারই তো চলা দায় হইয়া গেছে। যেমন এখন বাইর হইছি, না বাইর হইলে খাওন হইব না। এ জন্য আমি বাইরে বাইর হইছি। তাছাড়া আমারও ইচ্ছা ছিল ঘরে থাকার।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে