logo
সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ২৩ মার্চ ২০২০, ০০:০০  

প্রবাসী সন্দেহে এক ব্যক্তিকে গ্রামবাসীর গণধোলাই

শরীয়তপুর থেকে বরিশালের উজিরপুর উপজেলায় কুচিয়ারপাড় গ্রামে বেড়াতে এসে গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছেন আশীষ মন্ডল (৫০) নামের এক ব্যক্তি।

বিদেশফেরত সন্দেহে রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তাকে গণপিটুনি দেয় কুচিয়ারপাড় গ্রামবাসী। পরে আশীষ মন্ডল শরীয়তপুরের পেয়ারপুর গ্রামে ফিরে যাওয়ার অঙ্গীকার করলে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

উজিরপুর উপজেলায় কুচিয়ারপাড় গ্রামের একাধিক বাসিন্দা জানান, শরীয়তপুর, ফরিদপুর এবং মাদারীপুরে অনেক বিদেশফেরত ব্যক্তি অবস্থান করছেন। খবরে শুনেছি আক্রান্তদের মধ্যে বড় অংশই ওইসব এলাকার। ওখানে কোয়ারেন্টিনের সংখ্যাও বেশি। বিদেশফেরত অনেক ব্যক্তি সেখানে কোয়ারেন্টিন না মেনে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। আশীষ মন্ডলের পথরোধ করে গ্রামবাসী জানতে চায় বাড়ি কোথায়। তখন আশীষ মন্ডল বলেন, শরীয়তপুর থেকে এখানে বেড়াতে এসেছেন। কুচিয়ারপাড় গ্রামে তার স্বজন নিত্যনন্দ দেউরির বাড়িতে যাবেন। বিদেশফেরত কি-না জানতে চাইলে অসংলগ্ন কথা বলতে শুরু করেন আশীষ মন্ডল।

এতে গ্রামবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে আশীষ মন্ডলকে গণধোলাই দেন। পরে পুলিশে দেয়ার জন্য উজিরপুর থানার ওসিকে ফোন দেয়া হয়। ফোনে আশীষ মন্ডলের সঙ্গে কথা বলেন ওসি। এরপর গ্রামের কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলেন এবং আশীষ মন্ডলকে ছেড়ে দিতে বলেন। এরপর আশীষ মন্ডল তার বাড়ি শরীয়তপুরে চলে যান।

উজিরপুর থানা পুলিশের ওসি মো. জিয়াউল আহসান বলেন, অচেনা ব্যক্তিকে দেখে কুচিয়ারপাড় গ্রামবাসী পথরোধ করেন। শরীয়তপুর থেকে বেড়াতে আসা আশীষ মন্ডলকে বিদেশফেরত সন্দেহে গণপিটুনি দেন গ্রামবাসী। পরে ফোনে গ্রামবাসীকে বুঝিয়ে বললে আশীষ মন্ডলকে ছেড়ে দেন তারা।

\হএরপর আশীষ মন্ডল স্বজনের বাড়ি না গিয়ে শরীয়তপুরে ফিরে যান।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে