logo
বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৫

  যাযাদি রিপোর্ট   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

সোমবারের মধ্যে গ্রামীণ ফোনকে দিতে হবে এক হাজার কোটি টাকা

সোমবারের মধ্যে গ্রামীণ ফোনকে দিতে হবে এক হাজার কোটি টাকা
আগামী সোমবারের মধ্যে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) এক হাজার কোটি টাকা পরিশোধ করতে হবে গ্রামীণফোনকে। আপিল বিভাগ এই অর্থ পরিশোধ করতে বলেছে। একই সঙ্গে সোমবার গ্রামীণফোনের রিভিউ আবেদনের ওপর আদেশের জন্য দিন ধার্য করেছে আপিল বিভাগ।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন সাত সদস্যের আপিল বিভাগ বৃহস্পতিবার এ দিন ধার্য করে।

শুনানিকালে গ্রামীণফোনের আইনজীবীর উদ্দেশে প্রধান বিচারপতি বলেন, 'আপনারা মনে করেন বাংলাদেশের কোর্ট ছোট কোর্ট। এই ভাবনা খুবই কষ্টকর। এটা সর্বোচ্চ আদালত।'

এর আগে গত বছরের ২৪ নভেম্বর দেশের সর্বোচ্চ আদালত বিটিআরসির নিরীক্ষা দাবির ১২ হাজার কোটি টাকার মধ্যে ২ হাজার কোটি টাকা তিন মাসের মধ্যে বিটিআরসিকে পরিশোধ করতে সময় বেঁধে দিয়েছিল। আপিল বিভাগের এই আদেশ পুনর্বিবেচনা (রিভিউ) চেয়ে গ্রামীণফোন আবেদন করে। বৃহস্পতিবার তা শুনানির জন্য ওঠে।

আদালতে গ্রামীণফোনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন ও মেহেদী হাসান চৌধুরী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা। আর বিটিআরসির পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খোন্দকার রেজা-ই রাকিব।

বৃহস্পতিবার শুনানির শুরুতে গ্রামীণফোনের আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, বিটিআরসির মূল দাবি ২ হাজার ৩০০ কোটি টাকা। এ নিয়ে মামলা হয়েছে। ২ হাজার কোটি টাকা দেওয়া হলে ৮৭ শতাংশ অর্থ পরিশোধ করা হচ্ছে।

আদালত বলে, 'আদালতের আদেশ কতটুকু বাস্তবায়ন করেছেন?' জবাবে গ্রামীণফোনের আইনজীবী বলেন, '৫০০ কোটি টাকা অফার করা হয়েছে। বিটিআরসি সেই টাকা নেয়নি। ২৩ ফেব্রম্নয়ারি পর্যন্ত সময় আছে। এর আগে আবেদনটি করা হয়েছে। বিটিআরসি বলেছে, ২ হাজার কোটি টাকার কম নিলে আদালত অবমাননা হবে।' তিনি আদালতে মূল দাবির ২৫ শতাংশ পরিশোধ করার আদেশ দেওয়ার আরজি জানান।

আদালত তখন বলে, 'আমরা বললাম ২ হাজার কোটি টাকা দিতে। আপনারা বলছেন ৫০০ কোটি টাকার কথা।' গ্রামীণফোনের আইনজীবী বলেন, 'বিটিআরসির মূল দাবি ২ হাজার ৩০০ কোটি টাকা। উনারা কোনোভাবে আমাদের সুযোগ দিচ্ছে না।' আদালত বলে, 'বিটিআরসির দাবি ১২ হাজার কোটি টাকা। আমরা ২ হাজার কোটি টাকা দিতে বললাম। আপনারা আপিল বিভাগের আদেশ উপেক্ষা করছেন?' গ্রামীণফোনের আইনজীবী তখন অর্থ পরিশোধের জন্য সময় বাড়ানো ও কিস্তিতে পরিশোধের আরজি জানান।

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, কোনো অর্থই পরিশোধ করা হয়নি। ছয় মাসের জন্য প্রশাসক নিয়োগ করা হলে সব আদায় করা যাবে।

এবার টাকা দেবে গ্রামীণফোন, আশা বিটিআরসির

নিরীক্ষা দাবির এক হাজার কোটি টাকা সোমবারের মধ্যে পরিশোধ করতে আপিল বিভাগের নির্দেশনার পর গ্রামীণফোন এবার টাকা দিয়ে দেবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির প্রধান।

বৃহস্পতিবার নিরীক্ষা দাবির টাকা পরিশোধ নিয়ে আদালতের নির্দেশনার পর এক প্রতিক্রিয়ায় বিটিআরসি চেয়ারম্যান জহুরুল হক সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

টাকা না দিলে বিটিআরসির পদক্ষেপের বিষয়ে জানতে চাইলে বিটিআরসি প্রধান বলেন, 'আমার যতটুকু মনে হয় টাকাটা তারা দিয়ে দেবে, যদি না দেয় আইন যেসব ক্ষমতা বিটিআরসিকে দিয়েছে-বিটিআরসি কখনো কোনো বেআইনি কাজ করে না, করবেও না।'

'তারা তো কোর্টে গেল, রিভিও আদেশে বলে দিল এক হাজার কোটি টাকা দিতে হবে। আর তো কোনো যাওয়ার জায়গা নেই, আর কোনো যাওয়ার জায়গা আছে বলে আমার মনে হয় না।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে