logo
  • Thu, 18 Oct, 2018

  গাইবান্ধা প্রতিনিধি   ১১ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০  

চালকের চোখে ঘুম ছিল সেটাই কাল হলো

গাইবান্ধায় বাস উল্টে শিশুসহ নিহত ২

চালকের চোখে ঘুম ছিল সেটাই কাল হলো
শুক্রবার ভোরে গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরের ধাপেরহাটে চালক ঘুমিয়ে গেলে একটি যাত্রীবাহী নৈশকোচ উল্টে শিশুসহ ২ জন নিহত হন Ñযাযাদি
গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার ধাপেরহাটে যাত্রীবাহী নৈশকোচ উল্টে শিশুসহ ২ জন নিহত হয়েছে। আহত কমপক্ষে ১৫ জন। শুক্রবার সকাল সোয়া ৬টার দিকে ধাপেরহাটের আরভি কোল্ড স্টোরসংলগ্ন এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এ দুঘর্টনা ঘটে।

যাত্রীদের তথ্যের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বাসের চালক তন্দ্রাচ্ছন্ন চোখে বেপরোয়া গতিতে গাড়িটি চালাচ্ছিলেন বলে এ দুঘর্টনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তিরা হলোÑ পঞ্চগড় জেলা সদরের কদরকান্দি এলাকার জাবেদ আলীর ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩৫) ও ঢাকার মিরপুর-১১-এর বাসিন্দা সরফরাজ মিয়া ওরফে রিপনের মেয়ে চঁাদনী আকতার (১০)। সাইফুল ইসলাম চালকের সহকারী ছিলেন। আহত যাত্রীদের পলাশবাড়ী ও পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভতির্ করা হয়েছে।

ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পরিদশর্ক আবদুর রশিদ বলেন, সকালে ঢাকা থেকে দিনাজপুরগামী অপু এন্টারপ্রাইজের একটি যাত্রীবাহী বাস (নৈশকোচ) ধাপেরহাটের আরভি কোল্ড স্টোরসংলগ্ন এলাকায় পেঁৗছলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারান। বাসটি সড়কের পাশে একটি আমগাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলে কোচের চালকের সহকারী ও এক শিশু মারা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ও পীরগঞ্জ ফায়ার সাভিের্সর লোকজন উপস্থিত হয়ে হতাহত যাত্রীদের উদ্ধার করেন।

বাসের যাত্রীদের তথ্যের বরাত দিয়ে পরিদশর্ক আবদুর রশিদ জানান, বাসচালক ঘুমঘুম চোখে বেপরোয়া গতিতে গাড়িটি চালাচ্ছিলেন। যাত্রীরা একাধিকবার সাবধান করে দিলেও তিনি সেই কথা শোনেননি। এতে এ দুঘর্টনা ঘটে।

গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কমর্কতার্ (ওসি) আক্তারুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহত দুজনের লাশ ও দুঘর্টনাকবলিত বাসটি উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

উপরে