logo
শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  বিনোদন ডেস্ক   ৩০ মার্চ ২০২০, ০০:০০  

সমালোচনায় জ্যাকুলিনের 'বড় লোকের বেটি লো'

সমালোচনায় জ্যাকুলিনের 'বড় লোকের বেটি লো'
জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেয়ে গেছে বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের নতুন মিউজিক ভিডিও 'বড় লোকের বেটি লো'। বাংলা গানের সঙ্গে পাঞ্জাবি ঢুকিয়ে নতুন করে গানটি কম্পোজ করেছে ভারতীয়র্ যাপ সংগীতশিল্পী বাদশা ও পায়েল দেব। নতুন করে প্রকাশিত এ গানের নাম দেওয়া হয়েছে 'গেন্দা ফুল'। দুদিনের মাথায় ব্যাপক জনপ্রিয়তা পাওয়ার শর্তেও সমালোচনা তৈরি হয়েছে গানটিকে নিয়ে। সমালোচনা মূলতর্ যাপার বাদশা ও পায়েল দেবের গান গাওয়া নিয়ে নয়, গানের মূল উৎসের কথা স্বীকার না করা নিয়ে। ইউটিউবে গানটি ভালো করে খেয়াল করলেই দেখা যাবে, গানের বিবরণীতে গানের কথায় বাদশার নাম লেখা। কোথাও বহু পুরানো এবং জনপ্রিয় বাংলা গানের উৎসের কথা স্বীকার করা হয়নি। আর তা নিয়ে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন অনেকেই। অনেকেই অভিযোগের সুরে বলেছেন, এমন কালজয়ী গানের যিনি স্রষ্টা, সেই শিল্পীকে রীতিমত অবহেলা করা হয়েছে। আর তার গান নিয়ে যা খুশি তাই করে ব্যবসা করে চলেছে অনেকে। অথচ সেই রতন কাহার প্রকৃত সম্মান পেলেন না। কেউ আবার লিখেছেন বাংলা লোকসংগীতকে যেভাবে ব্যবহার করা হয়েছে তা তার মোটেও ভালো লাগেনি। কেউ আবার গানটি যিনি লিখেছিলেন তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ না করায় ক্ষোভ জানিয়েছেন। এদিকে 'বড়লোকের বিটি লো' গানের যিনি প্রকৃত স্রষ্টা শিল্পী রতন কাহারের একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিশেষ কিছু না লিখলেও পরিচালকের শেয়ার করা এই ভিডিওটিই অনেক কথা বলে দেয়। এদিকে, 'গেন্দা ফুল' নামের এই মিউজিক ভিডিওটি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় হওয়ার পরে অরিজিনাল মিউজিক হিসাবে বাংলা লোকসংগীতের কথা উলেস্নখ করা হয়। কিন্তু কোথাও লেখা নেই রতন কাহারের নাম।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে