logo
শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০, ১৪ চৈত্র ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষপে

সংবাদ সংক্ষপে
সালাহউদ্দিন লাভলু
টেলিভিশন নাট্যকার সংঘের নতুন কমিটি

বিনোদন রিপোর্ট

টানা তৃতীয়বারের মতো টেলিভিশন নাট্যকার সংঘের সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হলেন নাট্যকার মাসুম রেজা। আর গতবারের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন নাট্যকার ও পরিচালক এজাজ মুন্না। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে সম্প্রতি দ্বিবার্ষিক সাধারণ সভার মধ্য দিয়ে গঠিত হলো ২০২০-২০২১ সালের টেলিভিশন নাট্যকার সংঘের পূর্ণাঙ্গ কমিটি। সভায় সাধারণ সদস্য নাট্যকারদের সর্বসম্মতিক্রমে ১৯ সদস্যবিশিষ্ট কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়।

কমিটির অন্যরা হলেন- সহ-সভাপতি- বৃন্দাবন দাশ, পান্থ শাহরিয়ার ও চয়নিকা চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক- শফিকুর রহমান শান্তুনু, ইফফাত আরেফীন তন্বী ও আজম খান, সাংগঠনিক সম্পাদক- স্বাধীন শাহ্‌, অর্থ সম্পাদক- আহ্‌সান আলমগীর, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা সম্পাদক- নাজনীন হাসান চুমকী, তথ্যপ্রযুক্তি ও অনুষ্ঠানবিষয়ক সম্পাদক- জিনাত হাকিম, আইন ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক- মহিউদ্দিন আহমেদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক- রেজাউর রহমান রিজভী, দপ্তর সম্পাদক- আলী সুজন, কার্যকরী সদস্য- ড. মইনুল খান, মাসুম শাহরিয়ার, জাকির হোসেন উজ্জ্বল ও মোস্তফা মনন।

শুরু হচ্ছে সালাহউদ্দিন লাভলুর 'দ্য ডিরেক্টর'

বিনোদন রিপোর্ট

শিগগিরই নতুন মেগা ধারাবাহিক নাটক নির্মাণে হাত দেবেন অভিনেতা ও পরিচালক সালাহউদ্দিন লাভলু। নাটকের নাম 'দ্য ডিরেক্টর'। এতে নাম ভূমিকায় তিনি নিজেই অভিনয় করবেন। নাটকটি রচনা করেছেন কাজী শাহেদুল ইসলাম। নাটকটি নির্মিত হবে চ্যানেল আইতে প্রচারের জন্য। নাটকটির গল্প এবং নিজের চরিত্র নিয়ে সালাহউদ্দিন লাভলু বলেন, 'সত্যি বলতে কী একজন পরিচালকের সহযোগিতায় শিল্পীরা তারকায় পরিণত হন। তারকায় পরিণত হয়ে অধিকাংশই অতীত ভুলে যান। আবার এখন এমনও দেখা যাচ্ছে যে, মাত্র দু'তিনজন শিল্পীকে নিয়েই নাটক নির্মিত হচ্ছে হরহামেশা। এমন নানান সব বিষয়ই দ্য ডিরেক্টর নাটকের মূল বিষয়।

সালাহউদ্দিন লাভলু জানান, আগামী ২ মার্চ থেকে শ্রীমঙ্গলে তার নতুন এই ধারাবাহিকের শুটিং শুরু হতে যাচ্ছে।

একুশে টেলিভিশনে চীনা ড্রামা সিরিজ 'মূ'

বিনোদন রিপোর্ট

একুশে টেলিভিশনে শুরু হলো বাংলায় ডাবিংকৃত চীনা ড্রামা সিরিজ 'মূ'। প্রতিদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা ও রাত সাড়ে ১০টায় ড্রামা সিরিয়ালটি প্রচার হবে। ১০০ পর্বের এই সিরিজে চীনা মিং সাম্রাজ্যের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব, ষড়যন্ত্র, ঘৃণা ও ভালোবাসার ঘটনা প্রবাহ তুলে ধরা হয়েছে। চীনের ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটে নির্মিত ড্রামা সিরিজটি পরিচালনা করেছেন রিংগো ইয়ু। ওয়াং জুয়ানের চিত্রনাট্যের এই সিরিজ ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে। উলেস্নখ্য, মিং সাম্রাজ্য ১৩৬৮ সাল থেকে ১৬৪৪ সাল পর্যন্ত প্রায় ৩০০ বছর চীন শাসন করে। ২০১২ সালে সিরিজিটি প্রথম চীনের সরকারি স্টেশন সিসিটিভিতে 'টার্বুলেন্স অব দ্য মু ক্লেন' নামে প্রচারিত হয়। 'মূ' ড্রামা সিরিজটি মূলত চীনা সাম্রাজ্যের রাজপরিবারের দ্বন্দ্ব ও ঘটনা প্রবাহ নিয়ে নির্মিত। সিরিজের কাহিনি চিত্রে দেখা যায়, রাজপরিবারের সদস্যরা ক্ষমতার লোভে নিজেদের মধ্যে সর্বদা যুদ্ধ-বিগ্রহে লিপ্ত থাকত। সাধারণ পরিবার থেকে আসা আলেকু পাঁচ বছর বয়সে হৃদয়ে প্রতিশোধের আগুন নিয়ে 'মূ' পরিবারকে ধ্বংস করার লক্ষ্যে রাজ-পরিচারিকা হিসেবে প্রাসাদে প্রবেশ করে। দীর্ঘ বিশ বছর 'মূ' পরিবারের সঙ্গে অতিবাহিত করেও তার প্রতিশোধের আগুন নেভেনি। কিন্তু এই দীর্ঘ পরিক্রমায় আলেকু রাজপরিবারের অন্যতম সদস্য মূ জেং-এর সঙ্গে গভীর প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে