logo
রবিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ৬ মাঘ ১৪২৭

  বিনোদন রিপোর্ট   ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

বিজয় দিবসের নাটকে ব্যস্ত তারকারা

বিজয় দিবসের নাটকে ব্যস্ত তারকারা
সাফা কবির
বিজয় দিবসের নাটক নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন অভিনয়শিল্পী, নির্মাতা ও কলাকুশলীরা। প্রতি বারের মতোই এবারের দিনব্যাপী অনুষ্ঠান প্রচার করবে দেশের প্রায় সব টেলিভিশন চ্যানেল। যার বেশিরভাগ অংশজুড়ে থাকবে নাটক, টেলিছবি এবং সিনেমা। ফলে টেলিভিশনের শিল্পীরা এখন ভীষণ ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। সময়ের চাহিদাসম্পন্ন তরুণ শিল্পীদের পাশাপাশি অভিনয় করছেন সিনিয়র শিল্পীরাও।

একটা সময়ের টিভি নাটকের ব্যস্ত অভিনেত্রী তানভিন সুইটি। এখন আর অগের মতো অভিনয়ে নেই তিনি। গল্প ও চরিত্র পছন্দ হলে বছরে দু'-একটি নাটকে অভিনয় করেন এ অভিনেত্রী। তারই ধারাবাহিকতায় বিটিভি'র বিজয় দিবসের বিশেষ একটি নাটকে অভিনয় করছেন সুইটি। এতে আরও অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী দীপা খন্দকার। ১৪ ডিসেম্বর 'মেঘ ভাঙা রোদ' শিরোনামের নাটকে দেখা যাবে তাকে। এটি লিখেছেন বরেণ্য নাট্যব্যক্তিত্ব ড. ইনামুল হক। সুইটি বলেন, 'নাটকটির গল্প দর্শকের ভালো লাগবে। কারণ, এই নাটকের গল্পটা স্বাধীনতার সময়ের প্রেক্ষাপট এবং এই সময়ের প্রেক্ষাপটের গল্প।' 'ক্ষমা নাই' শিরোনামের বিজয় দিবসের নাটকে অভিনয় করেছেন আলোচিত অভিনেত্রী সারিকা। এতে আরও অভিনয় করেছেন অভিনেতা তারিক আনাম খান ও সাবেরি আলম প্রমুখ। নাটকটি পরিচালনা করেছেন কাজী সালাম। একজন বাবা ও তার মেয়ের গল্প নিয়ে নাটকটি নির্মাণ হয়েছে। ১৬ ডিসেম্বর নাটকটি প্রচারিত হবে এটিএন বাংলায়।

'সেই আমি' নাটকে দেখা যাবে আরমান পারভেজ মুরাদকে। এতে তার সাথে অভিনয় করেছেন ছোটপর্দার আরেক অভিনেত্রী নাজনীন হাসান চুমকী। নাটকটি নির্মাণ করেছেন দীপু হাজরা। মুরাদ বলেন, 'চলতি সময়ে আমি তেমন অভিনয়ে নেই। মাঝে-মধ্যে গল্প ও চরিত্র ভালো পেলে অভিনয় করি। মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে এ নাটকের গল্পটি আমার বেশ ভালো লেগেছে। তাই অভিনয় করেছি।'

বিজয় দিবসের বিশেষ নাটক 'সাইলেন্ট প্রপোজ'-এ অভিনয় করেছেন মডেল-অভিনেত্রী মুমতাহিনা টয়া। নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন মিলাদ বড় ভূঁইয়া। এ নাটকে টয়া অভিনয় করেছেন একজন বাকপ্রতিবন্ধী মেয়ের চরিত্রে। তিনি বলেন, 'চরিত্রটি চ্যালেঞ্জিং বলতে পারি। আমি চেষ্টা করেছি ভালো কিছু করার জন্য। নাটকের গল্প ও চরিত্র দুটোতেই নতুনত্ব আছে। বিজয় দিবসের গতানুগতিক নাটক থেকে দর্শক এতে ভিন্নতা পাবে বলে আশা করি।' নাটকটি প্রচার হবে এটিএন বাংলায়।

ছোট ও বড় পর্দার অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা এবার হাজির হচ্ছেন বিজয় দিবসের বিশেষ নাটক নিয়ে। নাটকটির নাম 'চিৎকার'। পরিচালনা করেছেন সীমান্ত সজল। নাটকটি মাছরাঙা টিভিতে ১৬ ডিসেম্বর প্রচারিত হবে। এ নাটকে তিশা একজন গ্রামের স্কুল শিক্ষিকা আলো। গ্রামে থাকলেও তিনি সমাজ সচেতন মানুষ। গ্রামের এক নিরীহ ধর্ষিতা মেয়ের আত্মহত্যার ঘটনায় সেই স্কুল শিক্ষিকার প্রতিবাদী হয়ে ওঠার গল্প নিয়েই এগিয়েছে নাটকের গল্প। তিশা বলেন, 'অনেকদিন পর ভালো গল্পের একটি নাটক করলাম। আমরা বিজয় দিবসের নাটক বলতে বুঝি, ১৯৭১ সালের কোনো গল্প। এই পটভূমিতে অনেক নাটক-সিনেমা হয়েছে। সামনে আরও হবে। এর বাইরে আরও অনেক বিষয় আছে যা নাটক-সিনেমায় তুলে ধরা দরকার। চিৎকার তেমনি একটি নাটক।'

মাসুম শাহরিয়ারের রচনায় ও আবু হায়াত মাহমুদের পরিচালনায় নির্মিত হয়েছে বিজয় দিবসের নাটক 'বেড নাম্বার সিক্সটিন'। এতে অভিনয় করেছেন ছোটপর্দার আলোচিত অভিনেতা মোশাররফ করিম। একজন যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা এবং তার ঘোরগ্রস্ত কিছু সময়ের গল্প উঠে এসেছে এ নাটকে। এতে আরও অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা, সুজাত শিমুল, শফিউল আলম বাবু, মাহাবুব আখন্দ, জাহিদ প্রমুখ।

বিজয় দিবসের নাটক নির্মাণ করছেন মান্নান হীরা। নাম 'প্রতিশোধ'। নাটকটির গল্পও মান্নান হীরার। এতে প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন এফএস নাঈম ও লাক্স তারকা মিম মানতাসা। নাঈম বলেন, 'এমন গল্পে কাজ করতে অন্য রকম ভালো লাগা কাজ করে। কারণ মুক্তিযুদ্ধের সময়কার এবং পরবর্তী পরিস্থিতি কিছুটা হলেও অনুধাবন করা যায়।' বিজয় দিবসের একটি বিশেষ নাটক 'আগুনঝরা দিনগুলো'তে অভিনয় করেছেন শারমীন জোহা শশী ও চঞ্চল চৌধুরী।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে