logo
রোববার ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষেপ

একসঙ্গে তিন

বিজ্ঞাপনে নাবিলা

বিনোদন রিপোর্ট

এবার একসঙ্গে তিন বিজ্ঞাপনচিত্রের মডেল হচ্ছেন অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা। ওয়ালটনের এই তিনটি বিজ্ঞাপনচিত্রেই নাবিলার বিপরীতে দেখা যাবে আরিফিন শুভকে। গতকাল সোমবার থেকেই বিজ্ঞাপনচিত্রের কাজ শুরু হয়েছে বলে জানালেন নাবিলা। বিজ্ঞাপন তিনটি পরিচালনা করছেন তৌহিদ মিতুল। এক্সিকিউটিভ প্রডিউসার হিসেবে রয়েছেন রেবেকা সুলতানা বিন্তি।

এ প্রসঙ্গে নাবিলা বলেন, 'ধারাবাহিকভাবে কাজ করা হবে এগুলোর। ৩টি রোমান্টিক গল্পের সমন্বয়ে নির্মিত হচ্ছে। সবগুলো বিজ্ঞাপনচিত্রেরই শুটিং হবে এফডিসিতে। সেট থেকে শুরু করে পুরো বিষয়টি খুবই যত্নের সঙ্গে করা হচ্ছে। তিনটি গল্প তিন রকমভাবে সাজানো হবে। আশা করি, জুটি হিসেবে আমাদের দর্শক বেশ সানন্দেই গ্রহণ করবেন।'

এদিকে আসছে ২৭ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাচ্ছে আরিফিন শুভ'র নতুন সিনেমা 'সাপলুডু'। সিনেমাটির প্রচারণায় বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন ঢাকাই সিনেমার এ নায়ক। আর বিজ্ঞাপনটির শুটিং শেষে পরিবার নিয়ে মিসর ও তুরস্কে ছুটি কাটাতে আগামী ১১ সেপ্টেম্বর দেশ ছাড়বেন নাবিলা।

অভিনয়ে ফিরছেন আলভী

বিনোদন রিপোর্ট

২০০৭'র লাক্স তারকা আলভী। সর্বশেষ তিনি গেল বছর ঈদের নাটকে অভিনয় করেছিলেন। এরপর তাকে আর অভিনয়ে না দেখা গেলেও আবারো অভিনয়ের আঙ্গিনায় নিজেকে ব্যস্ত করে তুলছেন এ অভিনেত্রী। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজন পরিচালকের সঙ্গে আলাপও হয়েছে তার। আবার আলভী'র আগ্রহও আছে ভালো গল্পের সিনেমাতে অভিনয় করার। এ বিষয়ে আলভী বলেন, 'আমার সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা হলো আমি সবার সঙ্গে ঠিকঠাকমত যোগাযোগ রাখতে পারি না। যে কারণে অভিনয়েও আমাকে নিয়মিত দেখা যায় না। তবে বেছে বেছে ভালো গল্পের কাজই করতে চাই।'

২০১৮ সালের কোরবানি ঈদে আলভী বৈশাখী টিভিতে প্রচারিত ফরিদুল হাসানের ঈদ ধারাবাহিক 'বউয়ের দোয়া পরিবহন' ও শাহজাদা মামুনের একটি খন্ডনাটকে অভিনয় করেছিলেন। আলভী, বিদ্যা সিনহা মিম ও ফারিয়া প্রথম একসঙ্গে নাটকে অভিনয় করেন সাইফুল ইসলাম মান্নুর নির্দেশনায় 'চলো না বৃষ্টিতে ভিজি'তে। এরপর আলভী ফেরদৌস হাসান রানার 'পৃথিবীর সব রূপ মেখে আছে ঘাসে' টেলিফিল্মে অপূর্ব'র বিপরীতে অভিনয় করেন। শুরুতেই আলোচনায় আসেন সালাহ উদ্দিন লাভলুর নির্দেশনায় চঞ্চল চৌধুরীর বিপরীতে 'পত্রমিতালী' নাটকে অভিনয় করে। আলভী অভিনীত দর্শকপ্রিয় নাটকের মধ্যে রয়েছে 'গৃহদাহ', 'দত্তা', 'দেনা পাওনা', 'হালখাতা', 'পাত্রী চাই', 'অলসপুর', 'গুলশান এভিনিউ', 'তুই কে আমার', 'সহযাত্রাী', 'সোনার খাঁচা'।

শত পর্বে 'ফাতমাগুল'

বিনোদন রিপোর্ট

দীপ্ত টেলিভিশনে প্রচারিত হচ্ছে তুর্কি ধারাবাহিক 'ফাতমাগুল'। এই ধারাবাহিকটির ১০০তম পর্ব প্রচারিত হলো গতকাল সোমবার। ধারাবাহিকটির কাহিনি গড়ে উঠেছে, সাগরের কোলঘেঁষে বেড়ে ওঠা ছোট্ট গ্রাম ইলিদরকে কেন্দ্র করে। যেখানে দিগন্ত জোড়া জলরাশির হাতছানিতে সাড়া দেয় দুরন্ত গাঙচিল। তাদের ছন্দে আনমনে গুনগুনিয়ে যায় এই গ্রামেরই মেয়ে ফাতমাগুল। গুল মানে গোলাপ। বাবা-মা আদর করে ফুলের নামে নাম রাখলেও, মেয়েটির জীবনে কোথাও ছিল না ফুলেল কোমলতার ছোঁয়া। সহজ-সরল বড় ভাই রাহমি আর কুটিল ভাবী মুকাদ্দেসের সংসারে প্রতিনিয়ত গাল-মন্দ আর অবহেলা সহ্য করে দিন কাটে ফাতমাগুলের। ওর সান্ত্বনা শুধু একটাই। ছোট্ট বেলার প্রেম মুস্তফা নালচালির ঘরণী হয়ে তারও একদিন একটা সুখের সংসার হবে।

কিন্তু হঠাৎ এক ঝড়ে তছনছ হয়ে যায় ফাতমাগুলের সাজানো স্বপ্ন। উচ্চবিত্ত ইয়াশারান পরিবারের বখাটে ছেলে সেলিম, অ্যারদোয়ান আর তার সঙ্গীদের উম্মাদনায় ফাতমাগুলকে হারাতে হয় তার সম্ভ্রম আর সমাজের তথাকথিত নারীর সম্মান। এ দুর্যোগে কেউ তার পাশে এসে দাঁড়ায়নি! এমনকি ছোট্ট বেলার প্রেম মুস্তফা নালচালিও তাকে ফিরিয়ে দেয়, পুড়িয়ে দেয় স্বপ্নীল সংসারের শেষ চিহ্নটুকু। গ্রাম ছেড়ে শহরে পাড়ি জমাতে বাধ্য হয় অসহায় মেয়েটি। এরপর ঘটতে থাকে নানান ঘটনা। ধারাবাহিকটি প্রচারিত হচ্ছে শনি থেকে শুক্রবার প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টায় ও রাত ৯টা ৩০ মিনিটে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে