logo
রোববার ২৫ আগস্ট, ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১৭ জুলাই ২০১৯, ০০:০০  

সাক্ষাৎকার

এখন সবাই ইউটিউবে গান দেখতে চায়

দেশীয় সঙ্গীতাঙ্গনে সুপ্রতিষ্ঠিত একটি নাম আঁখি আলমগীর। দুই দশকের বেশি সময় ধরে গান গেয়ে শ্রোতা-দর্শকদের মুগ্ধ করছেন তিনি। চলচ্চিত্রে অভিনয় করে পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। কথা হলো তার সঙ্গে...

এখন সবাই ইউটিউবে গান দেখতে চায়
আঁখি আলমগীর।
গান নিয়ে...

যাই করি না কেন, গানই আমার নেশা ও পেশা। জীবনের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত গানের সঙ্গেই থাকতে চাই। আপাতত স্টেজ শো নিয়ে ব্যস্ত আছি। ক'দিন আগেও দেশের বাইরে স্টেজ শো করেছি। এছাড়া সম্প্রতি ইউটিউবে আমার একটি গান প্রকাশ হয়েছে। গানটি নিয়ে বেশ সাড়া পাচ্ছি।

গানের ভাষা ও সুর...

আমি সব সময়ই বলি, একটি গান নেতিবাচক ও ইতিবাচক দু'ভাবেই শ্রোতাদের কাছে পৌঁছাতে পারে। তবে যত্ন নিয়ে তৈরি করা গান মানুষের কাছে মূল্যায়িত হয় ইতিবাচক হিসেবে। আর নিম্নমানের ভাষা ও সুর দিয়ে তৈরি গান মানুষ নেতিবাচক হিসেবেই দেখেন। কিছু গানতো আবার হাস্যরসের বিষয়বস্তু হয়ে উঠে। তবে এরকম দু-একটি নিম্নমানের গান দিয়ে পুরো বাংলা গানকে মূল্যায়ন করা উচিত হবে না।

সংগীতাঙ্গনের হালচাল...

বাংলা গানের আবেদন বিস্তর। এ নিয়ে কথা বলার মতো যোগ্যতা আমার এখনো হয়ে উঠেনি। আমি সব সময় চেষ্টা করি কতটা মমতা দিয়ে একটি গান গাওয়া যায়। একেক শিল্পীর চিন্তা একেক রকম। তবে সংগীতের খারাপ দিনকাল যাচ্ছে এ কথা বলার সময় এখনো আসেনি।

সময়ের চাহিদা...

সময়ের চাহিদা অনুযায়ী দেশীয় সংগীতাঙ্গন এগিয়ে যাচ্ছে। এখন সবাই চায় ইউটিউবে গান দেখতে। আগের মতো গানের অ্যালবাম প্রকাশ হয় না। হলেও কেউ কিনেন না। তাই এখনকার সিংহভাগ গানই ইউটিউবে প্রকাশিত হচ্ছে। এটি আমার কাছে ইতিবাচকই মনে হয়।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে