logo
বুধবার ২১ আগস্ট, ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০  

ব্যয়বহুল মিউজিক ভিডিও আমাকে টানে না

বর্তমান সময়ের অন্যতম আলোচিত মুখ সঙ্গীতশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি। ২০০৬ সালে বিজ্ঞাপনের জিঙ্গেল দিয়ে সঙ্গীত জগতে তার আবির্ভাব হয়। পরে 'আকাশ ছোঁয়া ভালোবাসা' চলচ্চিত্রে 'পৃথিবীর যত সুখ যত ভালোবাসা' শিরোনামে গান গেয়ে রাতারাতি তারকা খ্যাতি অর্জন করেন। সুকণ্ঠি গায়কীর জন্য দেশীয় সঙ্গীতাঙ্গনে তার নাম সমীহ করার মতোই। বর্তমান ব্যস্ততা ও সমসাময়িক বিষয়ে কথা হলো এ গুণী সঙ্গীতশিল্পীর সঙ্গে...

ব্যয়বহুল মিউজিক ভিডিও আমাকে টানে না
নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি
এইসব দিন রাত্রি...

এখন স্টেজ শো নিয়েই বেশি ব্যস্ত। চলতি বছরের শুরু থেকেই পরিকল্পনা ছিল গানে মনোযোগ দেব। সে ভাবেই কাজ করছি। সম্প্রতি প্রদীপ সাহার কথা ও অভি আকাশের সুরে একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছি। চলচ্চিত্রে পেস্নব্যাক করা শুরু করেছি। এছাড়াও আমার বড় মেয়ে রোদেলারও গান প্রকাশ হয়েছে। ওকেও সময় দিচ্ছি। তাছাড়া সংসার নিয়ে ব্যস্ততা তো আছে।

সময়টা পাল্টেছে...

আমি যে সময়টায় গান গাওয়া শুরু করেছিলাম সে সময়টা ছিল অ্যালবামের যুগ। পাশাপাশি চলচ্চিত্রের গানও হতো অনেক। সময়টা পাল্টেছে। এখন ডিজিটাল পস্নাটফর্মেই বেশি গান হচ্ছে। একক অ্যালবামের পরিবর্তে এসেছে একটি গান। আর এসব একটি গান করে নিজেকে প্রকাশ করার সুযোগটা কম।

গানের প্রাণ...

মিউজিক ভিডিওর প্রতি আগ্রহ নেই। নিজের উদ্যোগে তেমন ভিডিও করিনি। আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ গানের অডিও কেমন হলো। গানের প্রাণই অডিও। যেসব গান শুনতে ভালো লাগে তার ভিডিও হতে পারে। তবে ব্যয়বহুল মিউজিক ভিডিও আমাকে ওত টানে না।

সেকাল একাল...

ডিজিটাল পস্নাটর্ফমের কারণে সবচেয়ে বেশি সুবিধা হয়েছে গান প্রচার ও প্রকাশে। তবে একটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে একটি গানের কত ভিউ হলো সেটা দিয়ে গানের মান বিচার করা হয় না। একটা সময় বড় বড় সাউন্ড বক্সে গান বাজানো হতো। এখন সেসব হয় না। তবে ডিজিটাল বিষয়টিকে আমি ইতিবাচক হিসেবেই মনে করি। সময়ের সঙ্গে সবার তাল মিলিয়ে চলা উচিত।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে