logo
রোববার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২ ফাল্গুন ১৪২৫

  বিনোদন ডেস্ক   ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০  

জমজমাট গ্রামি অ্যাওয়াডের্ মিশেল ওবামার চমক

জমজমাট গ্রামি অ্যাওয়াডের্  মিশেল ওবামার চমক
লেডি গাগা, জাদা পিঙ্কেট, অ্যালিসিয়া কিস ও জেনিফার লোপেজের সাথে আচমকা মঞ্চে ওঠেন মিশেল ওবামা
বিশ্ব সংগীতের সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কার বলে কথা। তাই তো গত রোববার রাতে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোনির্য়া অঙ্গরাজ্যের লস অ্যাঞ্জেলস শহরের স্টেপলস সেন্টারে বসেছিল জমজমাট একতারার মেলা। ৬১তম এই গ্রামি আসরে সব তারকাকে ছাড়িয়ে নিজের উচ্চতায় অনেক উপরে উঠে গেছেন একজন। তিনি আর কেউ নন। যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ফাস্টের্লডি মিশেল ওবামা। মঞ্চে তখন লেডি গাগা, জেনিফার লোপেজ, জাদা পিঙ্কেট, অ্যালিসিয়া কিস। ঠিক এমনই এক মুহূতের্ আকস্মিকভাবে উপস্থিত মিশেল ওবামা। অমনি ভিন্ন এক আবহ তৈরি হয়ে যায় পুরো হলে।

শ্রদ্ধার সঙ্গে ফ্লাইং কিস উড়ে আসতে থাকে তার দিকে। নীল পদার্য় যারা কৃত্রিম হাসি দেন সেসব তারকা অকৃত্রিম হাসি বিনিময় করেন তার সঙ্গে। কেউ কেউ আবেগে কেঁদে ফেলেন। কেউবা আবেগে আতর্নাদ করে ওঠেন। হ্যঁা, এমনই এক আবহ তৈরি করেছিলেন মিশেল ওবামা। এ রাতে তার পরনে ছিল ঢিলেঢালা পোশাক। তা থেকে যেন ঠিকরে পড়ছে হাজারো তারা। চিকমিক করছে। স্বভাবসুলভ ভঙ্গিতে তিনি মোটাউন ও বিয়েন্সের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বললেন, গান আমাদের সব কিছুর কথা বলে দেয়। প্রতিটি কণ্ঠের ভিতরই যেন এক একটি কাহিনী, এক একটি ইতিহাস আছে।

মিশেল ওবামা বলেন, মোটাউন রেকডর্ থেকে শুরু করে ‘হু রান দ্য ওয়াল্ডর্’ গানগুলো আমাকে গত শতাব্দীতে রশদ জুগিয়েছে। গানগুলো আমাকে সবসময়ই আমার গল্প বলেছে। আমি জানি, এ কথা শুধু আমার জন্য নয়, প্রতিটি মানুষের জীবনে সত্য।

মিশেল ওবামা আরও বলেন, আমরা সবাই গান ভালোবাসি। আমাদের জীবনের অংশ গান। এখানে যারা উপস্থিত আছেন তারা সবাই আলো বিকিরণ করছেন। এমন একটি মুহূতর্ আমরা একসঙ্গে হতে পেরে আমি খুব গবির্ত। কারণ, গান হলো সেই জিনিস, যার মধ্য দিয়ে আমরা কঁাদি। গান হলো সেই জিনিস যার মধ্য দিয়ে আমরা আন্দোলিত হই। গান হলো সেই জিনিস যার মধ্য দিয়ে আমরা ভালোবাসি। গান হলো আমাদের অভিন্ন বৈশ্বিক ভাষা। আসুন আমরা সৎ হই। এটা একটা সেলিব্রেশন। আপনারা ভাববেন না এখানে আমি একা। আমি কি আমার কিছু বোনকে এখানে আজ রাতে ডেকে নিতে পারি? প্রশ্ন করেন মিশেল ওবামা।

কারা পেলেন এবারের গ্রামি অ্যাওয়াডর্!

৬১তম গ্রামি অ্যাওয়াডের্ সেরা নবাগত শিল্পীর পুরস্কার জিতেছেন ব্রিটিশ তারকা দুয়া লিপা। ‘গোল্ডেন হাওয়ার’ অ্যালবামের জন্য বষের্সরা অ্যালবাম, সেরা কান্ট্রি অ্যালবাম, সেরা কান্ট্রি একক পারফমের্ন্স ও সেরা কান্ট্রি সংয়ের পুরস্কার পেয়েছেন ক্যাসি মুসগ্র্যাভস। অন্যদিকে ‘দিস ইস আমেরিকা’র জন্য সেরা রেকডর্ ও বষের্সরা গানের পুরস্কার জিতেছেন চাইল্ডিশ গামবিনো। ‘ইনভেশন অব প্রাইভেসি’র জন্য সেরা র‌্যাপ অ্যালবামের পুরস্কার ঘরে তোলেন কাডির্ বি।

লেডি গাগা জিতেছেন তিনটি পুরস্কার। তার মধ্যে একটি হলো বেস্ট পপ পারফম্যার্ন্স এবং সেরা গায়িকা হয়েছেন অস্কারে মনোনীত ‘এ স্টার ইজ বনর্’ ছবিতে পপ ডুয়েটের জন্য।

সেরা ট্র্যাডিশনাল পপ অ্যালবাম নিবাির্চত হয়েছে (উইলি নেলসন : মাই ওয়ে) এবং সেরা পপ অ্যালবামের পুরস্কার পেয়েছেন (আরিয়ানা গ্রান্ডে : সুইটেনার)। এ ছাড়াও সেরা ড্যান্স রেকডির্ং সিল্ক সিটি দুয়া লিপা ফিচারিং ডিপলো ও মাকর্ রনসন (ইলেক্ট্রিসিটি), সেরা ড্যান্স/ইলেক্ট্রনিক অ্যালবাম (জাস্টিস : ওম্যান ওয়াল্ডর্ওয়াইড), সেরা রক পারফরম্যান্স (ক্রিস কনের্ল : হোয়েন ব্যাড ডাজ গুড), সেরা মেটাল পারফরম্যান্স (হাই অন ফায়ার: ইলেক্ট্রিক মেসাইয়া), সেরা রক অ্যালবাম (গ্রেটা ভ্যান ফ্লিট : ফ্রম দ্য ফায়ারস), সেরা অলটারনেটিভ অ্যালবাম (বেক : কালারস), সেরা আর অ্যান্ড বি পারফরম্যান্স এইচ. ই. আর. ফিচারিং ড্যানিয়েল সিজার, সেরা আরবান কনটেম্পরারি অ্যালবাম (দ্য কাটার্রস : এভরিথিং ইজ লাভ), সেরা র‌্যাপ সং (ড্র্যাক : গড’স প্ল্যান), সেরা র‌্যাপ অ্যালবাম (কাডির্ বি: ইনভেশন অব প্রাইভেসি), সেরা কান্ট্রি অ্যালবাম (ক্যাসি মাসগ্র্যাভস: গোল্ডেন আওয়ার), সেরা মিউজিক্যাল থিয়েটার অ্যালবাম (দ্য ব্র্যান্ড’স ভিজিট), প্রডিউসার অব দ্য ইয়ার ফ্যারেল উইলিয়ামস এবং সেরা মিউজিক ভিডিওর পুরস্কার জিতেছে (চাইল্ডিস গ্যামবিনো : দিস ইজ আমেরিকা)
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে