logo
  • Mon, 19 Nov, 2018

  অনলাইন ডেস্ক    ১৩ জুলাই ২০১৮, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষেপ

ফঁাসছেন রজনীকান্তের স্ত্রী

বিনোদন ডেস্ক

বিজ্ঞাপন সংস্থার বকেয়া পাওনা না মেটানোর জন্য দক্ষিণী সুপারস্টার রজনীকান্তের স্ত্রী লতার বিরুদ্ধে মামলা শুরু করার অনুমোদন দিয়েছেন সুপ্রিম কোটর্। একটি বিজ্ঞাপন সংস্থা থেকে ঋণ নেয়া ৬ কোটি ২০ লাখ রুপি সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরও শোধ করতে পারেননি লতা। এর আগে, অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা শুরু করার দাবি নস্যা?ৎ করেছিল কণার্টক হাইকোটর্। উচ্চ আদালতের সে রায় গত মঙ্গলবার খারিজ করল শীষর্ আদালত।

লতা রজনীকান্তের ‘মিডিয়া ওয়ান গেøাবাল এন্টারটেনমেন্ট লিমিটেড’ নামে একটি বিনোদন প্রতিষ্ঠানের পরিচালক। তার এ প্রতিষ্ঠানটি বেঙ্গালুরুর ‘ব্যুরো অ্যাডভারটাইজ’ নামে একটি বিজ্ঞাপন সংস্থা থেকে ঋণ গ্রহণ করেছিল। সে ঋণ আর সময়মতো ফেরত দিতে পারেননি লতা।

রাজনীতিতে রীতেশ!

বিনোদন ডেস্ক

জয়া বচ্চন, হেমা মালিনী, পরেশ রাওয়াল, শক্রুঘœ সিনহা, রজনীকান্ত, কমল হাসানসহ বহু তারকা রাজনীতিতে যোগ দিয়েছেন। এবার সেই একই তালিকায় নাম লেখাতে যাচ্ছেন অভিনেতা রীতেশ দেশমুখ। এমনটাই তথ্য প্রকাশ করেছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম বলিউড হাঙ্গামা।

প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে জানা যায়, রীতেশের বাবা পরপর দুই বার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। কংগ্রেসের জনপ্রিয় নেতা হওয়ার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও ছিলেন তিনি। কিন্তু বাবার সে পথ কখনো অনুসরণ করেননি রীতেশ। বরং নিজের পরিচিতি গড়ে তুলতে গø্যামার জগৎকে বেছে নিয়েছিলেন। তবে রক্তের টান শেষপযর্ন্ত বোধহয় তার পক্ষেও উপেক্ষা করা সম্ভব হলো না। তাই পারিবারিক ঐতিহ্য মেনে রাজনীতির ময়দানে নামতে চলেছেন জনপ্রিয় এই অভিনেতা।

এতদিন বাবা বিলাস রাও দেশমুখের ফেলে যাওয়া কাজের দায়িত্ব সামলেছিলেন বঙ ছেলে অমিত দেশমুখ। এবার ভাইয়ের সঙ্গে কঁাধে কঁাধ মিলিয়ে লঙাই করতে চান রীতেশও। লাতুরের প্রতি আলাদা আনুগত্য রয়েছে দেশমুখ পরিবারের।

শোনা যাচ্ছে, সেখান থেকেই ২০১৯ সালের লোকসভা নিবার্চনে লড়বেন রীতেশ।

সম্প্রতি সাজিদ খান পরিচালিত ‘হাউজফুল ফোর’-এর শুটিং শুরু করেছেন রীতেশ। এতে তার সহশিল্পী হিসেবে রয়েছেন অক্ষয় কুমার ও ববি দেওল।

২০১৪ সালে মুক্তি পাওয়া তামিল সিনেমা ‘কোচাদাইয়ান’ নিমাের্ণর সময় লতার ওই প্রতিষ্ঠানটি ‘ব্যুরো অ্যাডভারটাইজ’ থেকে ৬ কোটি ২০ লাখ রুপি ঋণ নিয়েছিল। এটা নিয়ে একটি জালিয়াতির মামলা করে অ্যাড ব্যুরো। মামলা ওঠে কণার্টক হাইকোটের্। আদালত তার রায়ে বলে, বিষয়টি কোনো জালিয়াতির ঘটনা নয়, বরং প্রতিশ্রæতি ভঙ্গের মামলা। ফলে লতার বিরুদ্ধে কোনো ফৌজদারি মামলা হতে পারে না। সে রায়কে চ্যালেঞ্জ করেই সুপ্রিম কোটের্ যায় অ্যাড ব্যুরো।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে