logo
শনিবার ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১ পৌষ ১৪২৫

  আকাশ নিবির   ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

আবারো বাধার মুখে শাকিব খানের ছবি!

আবারো বাধার মুখে শাকিব খানের ছবি!
শাকিব খান
নাকাব নিয়ে অনিশ্চয়তা এখনো কাটেনি। আজ ২১ সেপ্টেম্বর কলকাতাসহ ঢাকায় মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান অভিনীত ‘নাকাব’ ছবিটি। কিন্তু কলকাতায় মুক্তি পেলেও বাংলাদেশে ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে না বলে নিশ্চিত করেছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া।

জানা গেছে, ‘নাকাব’কে বাংলাদেশে প্রদশের্নর এখনো অনুমতি দেয়নি মন্ত্রণালয়। অথচ ছবিটির পরিবেশক জাজ মাল্টিমিডিয়া হল বুক করে বসে আছে। এর আগেও জাজ জানিয়েছিল, ২১ সেপ্টেম্বর দেশের প্রায় ১৫০টি হলে ‘নাকাব’ মুক্তি না পেলেও আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর পাবে বলে জাজ নিশ্চিত করে।

শুধু নাকাব নয়, বছরের শুরু থেকে শাকিব খান অভিনীত একের পর এক ছবি মুক্তিতে বাধা আসছিল। শুরুটা হয় ‘চালবাজ’ ছবি দিয়ে। কলকাতার এসকে মুভিজ প্রযোজিত বড় বাজেটের এই ছবিটি বারবার মুক্তির তারিখ চূড়ান্ত করেও মুক্তি দিতে পারেননি প্রযোজক। পরে একই প্রডাকশনের ‘ভাইজান এলো রে’ নিয়েও ঘটে একই ঘটনা। রোজার ঈদে মুক্তি দেয়ার জন্য প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশে জোর প্রচারণা চালালেও শেষ পযর্ন্ত মুক্তি পায়নি। মন্ত্রণালয়ের অনুমতি না পাওয়ায় দুটি ছবিই মুক্তি দেয়ার কথা ছিল আমদানিনীতিতে। তবে তৃতীয় ছবি ‘সুপার হিরো’ ছিল দেশি প্রডাকশন হাটির্বটের প্রযোজনায়। এই ছবিটিও একের পর এক বাধার সম্মুখীন হয়। শেষ পযর্ন্ত আইনের আশ্রয় নিয়ে ঈদে মুক্তি দিতে হয়েছিল।

এ ব্যাপারে শাকিব খান ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘একজন তারকার কোনো গÐি থাকতে পারে না। তা ছাড়া দুই বাংলায় আমার দশর্ক। নিয়ম মেনেই আমদানিনীতিতে বাংলাদেশে ‘নাকাব’ মুক্তি দিতে চেয়েছেন প্রযোজক। অথচ কোনো এক অদৃশ্য ইশারা বারবার বিভিন্ন ছবি আটকে দিচ্ছে। এমনিতে হলে নতুন ছবি নেই। হল মালিকরা একের পর এক হল বন্ধ করে দিচ্ছেন। এ অবস্থায় তারকাবহুল ছবিগুলো আটকে দিয়ে কী ফায়দা হবে কে জানে! এভাবে চলতে থাকলে তো অভিনয় করা মুশকিল হয়ে যাবে। ‘আমাদের দেশের ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান, মোস্তাফিজুর রহমানরা যখন আইপিএল খেলতে ভারতে যান তখন কোনো কথা হয় না। যখন আমি ভারতের ছবিতে অভিনয় করি তখন অনেক কথা হয় আমাকে নিয়ে। কারণটা ঠিক জানি না। পদে পদে আমাকে ঠেকানোর চেষ্টা করা হয় কেন? তারা আসলে কী চাইছেন।’

নাকাব ছবি প্রসঙ্গে জাজ মাল্টিমিডিয়ার কণর্ধার আব্দুল আজিজ জানান, ‘যেখানে বতর্মানে একমাত্র শাকিব খান অভিনীত ছবি হলগুলোতে ব্যবসা করে, প্রযোজকরা তাদের লগ্নি ফেরত পাওয়ার আশা করেন, সেখানে তার অভিনীত ছবি মুক্তিতে বাধা আসাটি সত্যিই দুঃখজনক। তবে এখন কোনো উৎসব নেই। নতুন বাংলাদেশি ছবি মুক্তির কোনো খবরও নেই। তাহলে শাকিব খান অভিনীত কলকাতার ‘নাকাব’ মুক্তিতে সমস্যা কেন? আমার ঠিক জানা নেই। তবে দুই বাংলায় ছবিটি একসাথে মুক্তি পাওয়া বেশি দরকার ছিল। এমনিতেই দেশীয় চলচ্চিত্রের খরা কোনোভাবেই কাটছে না। তার ওপর হাইকোটের্ আপিল উৎসবে বিদেশি ছবি মুক্তি নিয়ে। ছবি মুক্তির বিষয়ে বেশি হতাশ সকল হল মালিকরা।’

অন্যদিকে বাধার মুখে পড়েছে শাকিব খানের ‘শাহেনশাহ’ নামক ছবিটিও। প্রথমে কথা ছিল ২৪ আগস্ট এফডিসিতে সেট ফেলে একটি গানের শুটিং দিয়ে শুরু হবে ‘শাহেনশাহ’। পরে সেটি পিছিয়ে ২৮ আগস্ট থেকে কক্সবাজারে শুটিং করার সিদ্ধান্ত নেন পরিচালক। পরে সে তারিখও বদলে ৮ সেপ্টেম্বর থেকে পুবাইলে শুটিং শুরু করার কথা থাকলেও সেটিও এখন পযর্ন্ত শুরু হয়নি। তবে এটির জন্য পরিচালক শামীম আহমেদ রনিকেই দায়ী করেছে একটি বিশ্বস্ত সূত্র।

উল্লেখ্য, ‘নাকাব’ ছবিটি প্রযোজনা করেছে কলকাতার শীষর্স্থানীয় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস। ‘নাকাব’-এর মাধ্যমে প্রথমবার এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কাজ করেছেন বাংলাদেশের সুপারস্টার নায়ক শাকিব খান। রাজিব বিশ্বাস পরিচালিত ‘নাকাব’-এ শাকিব খান অভিনয় করেছেন দ্বৈত চরিত্রে। ছবিতে তার নায়িকা কলকাতার নুসরাত ও সায়ন্তিকা।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে