logo
সোমবার, ১০ আগস্ট ২০২০, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

নিরাপত্তা পরিষদকেও হুঁশিয়ারি

'ভীমরতিগ্রস্ত বুড়ো' বলে ট্রাম্পকে কটাক্ষ উত্তর কোরিয়ার

'ভীমরতিগ্রস্ত বুড়ো' বলে ট্রাম্পকে কটাক্ষ উত্তর কোরিয়ার
কিম জং-উন ও ডোনাল্ড ট্রাম্প
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপ নেয়ার হুমকি দেয়ার পর তাকে লক্ষ্য করে ফের তীব্র বাক্যবাণ ছুড়েছে উত্তর কোরিয়া। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে বলেছে, ট্রাম্প যদি মুখোমুখি হতে চান, তাহলে একে 'ভীমরতিগ্রস্ত বুড়ো'র ?পুনরায় অধঃপতিত হওয়ার লক্ষণ হিসেবে ধরা উচিত। সংবাদসূত্র : বিবিসি, রয়টার্স, পার্স টুডে

উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং-?উন দুই বছর আগেও ট্রাম্পকে 'মানসিক বিকারগ্রস্ত বুড়ো' অ্যাখ্যা দিয়েছিলেন। দুই নেতার 'কথার লড়াই' ঘিরে সে সময় তীব্র উত্তেজনা দেখা দিলেও ২০১৮ সালের প্রথম থেকেই পরিস্থিতির পরিবর্তন ঘটতে শুরু করে।

ট্রাম্প ও কিম সিঙ্গাপুর এবং ভিয়েতনামে দুই দফা বৈঠক করেন। চলতি বছরও এ দুই রাষ্ট্রপ্রধানকে দুই কোরিয়ার অসামরিক এলাকায় একসঙ্গে হাসি মুখে ছবি তুলতে দেখা গেছে। কোরীয় উপদ্বীপে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে দুই দেশের অনড় অবস্থান ভিয়েতনাম বৈঠককে ভেস্তে দিলেও দুই কোরিয়ার অসামরিক এলাকায় ট্রাম্প-কিমের সাক্ষাৎ ফের আলোচনা শুরুর সম্ভাবনা সৃষ্টি করে।

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে পিয়ংইয়ং আশপাশের জলসীমায় একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র ও রকেট উৎক্ষেপণ করে যাচ্ছে। এ নিয়ে ওয়াশিংটনের সঙ্গে তাদের টানাপড়েনও চলছে। মঙ্গলবার লন্ডনে ন্যাটো সম্মেলনে ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতাকে ফের 'রকেট ম্যান' অ্যাখ্যা দেন। যুক্তরাষ্ট্র পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে সামরিক ব্যবস্থার অধিকার রাখে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এর পরপরই বৃহস্পতিবার উত্তর কোরিয়ার দিক থেকে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে কড়া বাক্যবাণ আসে। দেশটির উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী চোয়ে সন-হুই বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্টের এমন মন্তব্য দুই বছর পর ওয়াশিংটন-পিয়ংইয়ংয়ের মধ্যে ফের 'কথার লড়াই' শুরু করতে পারে। তিনি আরও বলেন, যদি কোনো ভাষা বা অভিব্যক্তি দ্বন্দ্বমুখর পরিবেশকে উসকে দেয়; এবং এগুলো ফের ব্যবহৃত হয় এখনকার মতো জটিল সময়ে, তাহলে অবশ্যই একে ভীমরতিগ্রস্ত বুড়োর ?পুনরায় অধঃপতিত হওয়ার লক্ষণ হিসেবে ধরা উচিত।

নিরাপত্তা পরিষদকেও

হুশিয়ারি উত্তরের

এদিকে, মানবাধিকার পরিস্থিতি পর্যালোচনার পরিণতির বিষয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে হুশিয়ারি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। নিরাপত্তা পরিষদে নিযুক্ত দেশটির স্থায়ী প্রতিনিধি কিম সুং এক চিঠিতে বৃহস্পতিবার বলেন, তার দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি পর্যালোচনার জন্য নিরাপত্তা পরিষদের যে বৈঠক ডাকা হয়েছে, তা একটি ষড়যন্ত্র এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিদ্বেষী নীতির প্রতি প্রকাশ্য সমর্থন। পিয়ংইয়ং যে কোনো ষড়যন্ত্রের পাল্টা জবাব দিতে প্রস্তুত রয়েছে বলেও চিঠিতে উলেস্নখ করা হয়েছে।

উত্তর কোরিয়া এ ধরনের পদক্ষেপকে উসকানি ও ষড়যন্ত্র হিসেবে গণ্য করছে বলেও ওই প্রতিনিধি জানিয়েছেন। কিম সুং আরও বলেন, জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের এই পদক্ষেপ কোরীয় উপদ্বীপে উত্তেজনা কমানোর পরিবর্তে সেটাকে আরও বাড়িয়ে তুলবে।

চলতি মাসেই উত্তর কোরিয়ার মানবাধিকার পরিস্থিতি পর্যালোচনার জন্য বৈঠকে বসতে যাচ্ছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। যুক্তরাষ্ট্রের প্ররোচনায় জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ বিভিন্ন দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতিকে চাপ প্রয়োগের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে