logo
  • Thu, 18 Oct, 2018

  অনলাইন ডেস্ক    ১০ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০  

জ্জ কোনো মধ্যস্থতা মানবে না রিয়াদ

সৌদি আরবের কাছে ক্ষমা চাইবেন না ট্রুডো

সৌদি আরবের কাছে ক্ষমা চাইবেন না ট্রুডো
যাযাদি ডেস্ক

মানবাধিকার কমীের্দর ছেড়ে দেয়ার আহŸান জানানোর জন্য সৌদি আরবের রোষানলে পড়া কানাডা সৃষ্ট পরিস্থিতির জন্য রিয়াদের কাছে ক্ষমা চাইবে না। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বুধবার এ কথা জানিয়েছেন। এদিকে, অটোয়ার বিরুদ্ধে আরও কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়টি রিয়াদ বিবেচনা করছে বলে জানিয়েছে। পাশাপাশি এটাও জানিয়েছে, কানাডার সঙ্গে বিরোধে কোনো মধ্যস্থতাও মানবে না সৌদি আরব। সংবাদসূত্র : এএফপি, বিবিসি, রয়টাসর্

গত সোমবার থেকেই দেশ দুটির মধ্যে উত্তেজনা চলছে। রিয়াদ কানাডার রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার ও কানাডা থেকে নিজেদের রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করে নেয়। এ ছাড়াও মধ্যপ্রাচ্যের ধনী দেশটি কানাডার সঙ্গে সব ধরনের বাণিজ্যিক সম্পকর্ ছিন্ন এবং বিনিয়োগ স্থগিত করেছে। এ ছাড়া তারা কানাডায় অধ্যয়নরত সৌদি ছাত্রছাত্রীদের বৃত্তি বাতিল করে অন্যান্য দেশের কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে তাদের ক্রেডিট ট্রান্সফারের ঘোষণা দিয়েছে। সৌদি সরকার তাদের রাষ্ট্রীয় এয়ারলাইন্স ‘সাউদিয়া’র টরেন্টোগামী সব ফ্লাইট বাতিল করে।

এ ছাড়াও সৌদি আরবের কেন্দ্রীয় ব্যাংক কানাডার সঙ্গে সব ধরনের ব্যাংকিং কাযর্ক্রম বন্ধের জন্য ব্যবস্থাপকদের নিদের্শ দিয়েছে। তবে সৌদি আরবের অথর্নীতির সুরক্ষার স্বাথের্ দেশটির জ্বালানি-মন্ত্রী খালিদ আল-ফালিহ্ বলেন, এই বিরোধের কারণে বৃহৎ তেল কোম্পানি আমাের্কার কানাডিয়ান মক্কেলদের ওপর প্রভাব পড়বে না। অটোয়া প্রকাশ্যে সৌদি আরবে মানবাধিকার কমীের্দর ওপর দমন অভিযানের কঠোর নিন্দা জানানোয় রিয়াদ কানাডার ওপর প্রচÐ ক্ষুব্ধ হয়ে এসব পদক্ষেপ নিয়েছে।

কিন্তু বুধবার প্রধানমন্ত্রী জস্টিন ট্রুডো জানিয়েছেন, তারা তাদের সিদ্ধান্তে অনড় থাকবেন। তিনি বলেন, ‘মানবাধিকারের ব্যাপারে কানাডা সব সময়ই প্রকাশ্যে দৃঢ় ও স্পষ্ট ভাষায় কথা বলে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা সৌদি আরবের সঙ্গে সম্পকের্র অবনতি ঘটাতে চাই না।’ ট্রুডো জানান, ‘রিয়াদ মানবাধিকার পরিস্থিতির অনেক উন্নতি করেছে বলেও অটোয়া মনে করছে।’ কানাডার প্রধানমন্ত্রী বলেন, সংকট নিরসনে মঙ্গলবার কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ডের সঙ্গে সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল-জুবেইরের দীঘর্ আলোচনা হয়েছে। ক‚টনৈতিক আলোচনাও চলছে।

কোনো মধ্যস্থতা মানবে না রিয়াদ

এদিকে, মানবাধিকারের পক্ষে কথা বলে রিয়াদের রোষানলে পড়া কানাডা সরকার অচলাবস্থা কাটাতে মধ্যস্থতার জন্য আঞ্চলিক মিত্রদেশগুলোর দিকে হাত বাড়ালেও অনড় রয়েছে সৌদি আরব। বুধবার সৌদি আরব জানিয়ে দিয়েছে, তাদের সঙ্গে কানাডার ঘোর ক‚টনৈতিক বিরোধে মধ্যস্থতার কোনো সুযোগ নেই। এ ছাড়া, কানাডা যে ‘বড় ধরনের ভুল’ করেছে, তা শুধরে নিতে কী করা প্রয়োজন তাও অটোয়া জানে বলে মন্তব্য করেছে রিয়াদ।

সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল-জুবাইর রিয়াদে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘মধ্যস্থতা করার কিছু নেই। একটি ভুল হয়েছে, সেটা শুধরে নেয়া উচিত।’ দুই দেশের মধ্যে সম্পকের্র আরও অবনতির ইঙ্গিত দিয়ে তিনি বলেন, ‘সৌদি আরব এখনো কানাডার বিরুদ্ধে বাড়তি আরও পদক্ষেপ নেয়ার কথা ভাবছে।’ তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত আর কিছু বলেননি তিনি।

উল্লেখ্য, কানাডা-সৌদি আরবের মধ্যে চলমান অচলাবস্থা কাটাতে মধ্যস্থতার জন্য আঞ্চলিক মিত্রদেশগুলোর দারস্থ হওয়ার পরিকল্পনা নেয় কানাডা। এর মধ্যে প্রধানত সৌদি আরবের ভালো বন্ধুদেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের সাহায্য কামনা করছে দেশটি। আরেকটি সূত্র জানায়, কানাডা এই সংকট কাটাতে যুক্তরাজ্যের সহযোগিতাও চাইছে। ব্রিটিশ সরকার মঙ্গলবার দুই দেশকেই সংযত থাকার পরামশর্ দিয়েছে। তবে ঐতিহ্যগত দিক থেকে কানাডার অন্যতম বন্ধুদেশ যুক্তরাষ্ট্র রিয়াদের সঙ্গে অটোয়ার মধ্যকার বিরোধে নিজেদের দূরে সরিয়ে রেখেছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

উপরে