logo
রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

পাক-ভারত উত্তেজনা

ফের উত্তপ্ত কাশ্মীর :ব্যাপক গোলাবর্ষণ

ম ভারতীয় সেনাবাহিনীর গুলিতে নিহত ২ পাক সেনা ম সীমান্ত পার হতে আমার ডাকের অপেক্ষায় থাকুন : ইমরান খান

ফের উত্তপ্ত কাশ্মীর :ব্যাপক গোলাবর্ষণ
পাকিস্তান লক্ষ্য করে গোলা বর্ষণ -ফাইল ছবি
যাযাদি ডেস্ক

অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করে সীমান্তে পাক-ভারত সেনাবাহিনীর পাল্টাপাল্টি গোলাগুলিতে আবারও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে বিতর্কিত জম্মু-কাশ্মীর অঞ্চল। গত দুই দিনে পাক অধিকৃত আজাদ কাশ্মীরের হাজিপুর সেক্টরে ভারতীয় সেনাবাহিনীর গুলিতে পাকিস্তানি দুই সেনাসদস্য নিহত হয়েছে। এদিকে ভারতের গুলিতে দুই সেনা নিহতের পর নিয়ন্ত্রণরেখার বালাকোট সেক্টরে ব্যাপক গোলাবর্ষণ করেছে পাকিস্তান। সংবাদসূত্র : এনডিটিভি, এএনআই, পার্স টুডে, ডন, এক্সপ্রেস টিবিউন

পাক আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ অধিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক বিবৃতিতে শনিবার বলা হয়েছে, আজাদ কাশ্মীরের হাজিপুর সেক্টরে বিনা উসকানিতে গোলাবর্ষণ করেছে ভারতীয় বাহিনী। এতে ৩৩ বছর বয়সী হাবিলদার নাসির হুসেইন নিহত হয়েছে। এর আগে বৃহস্পতিবার হাজিপুর সেক্টরের কাছে ভারতীয় সেনাবাহিনীর গুলিতে গোলাম রসুল নামে পাকিস্তানি অপর এক সেনাসদস্য নিহত হয়। ভারতীয় গণমাধ্যমের দাবি, বিনা উসকানিতে পাকিস্তানি সেনাবাহিনী যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করায় পাল্টা গোলাবর্ষণ করেছে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সদস্যরা। এতে পাক সেনাবাহিনীর অন্তত দুই সদস্য নিহত হয়েছে। দুই দিন ধরে চেষ্টা চালানোর পরও তাদের মরদেহ উদ্ধারে ব্যর্থ হয় পাক সেনাবাহিনী। অবশেষে শান্তির প্রতীক হিসেবে সাদা পতাকা প্রদর্শন করে তাদের মরদেহ উদ্ধার করেছে তারা।

গত ৫ আগস্ট মুসলমান সংখ্যাগরিষ্ঠ 'ভূস্বর্গ' খ্যাত কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন সংক্রান্ত সংবিধানের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে দেশটির ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার। ১৯৮৯ সাল থেকে ভারত শাসনের বিরুদ্ধে কাশ্মীরিরা আন্দোলন করে আসছে। আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সংঘর্ষে কয়েক হাজার কাশ্মীরির প্রাণহানি ঘটেছে; যাদের অধিকাংশই বেসামরিক।

এদিকে ভারতের গুলিতে দুই সেনা নিহতের পর নিয়ন্ত্রণরেখার বালাকোট সেক্টরে ব্যাপক গোলাবর্ষণ করেছে পাকিস্তান। এতে ভারতের বেশ কিছু গ্রামের স্কুলে থাকা শিক্ষার্থীরা আটকা পড়ে। স্থানীয় সময় শনিবার সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে ব্যাপক গোলাবর্ষণ চালায় পাক সেনাবাহিনী। স্থানীয়রা জানিয়েছে, সীমান্তের ৫০ কিলোমিটার জায়গাজুড়ে মানকোট সেক্টরের কাছে বালনই থেকে তারকুন্দি এলাকায় প্রায় ৫০ থেকে ৬০টি গ্রাম গোলাবর্ষণের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ওই এলাকায় ভারতীয় সেনাবাহিনী এবং পুলিশ উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে। পাকিস্তানের হামলার জবাবে গুলি চালিয়েছে ভারতীয় সেনারাও।

আমার ডাকের অপেক্ষায় থাকুন: ইমরান

অন্যদিকে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আজাদ কাশ্মীরের জনগণকে উদ্দেশ করে বলেছেন, 'আসন্ন জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশন পর্যন্ত আপনারা অপেক্ষা করুন এরপর প্রয়োজনে নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে প্রবেশ করতে হবে। এ জন্য সময়মতো আমি আপনাদের ডাক দেব।' শুক্রবার আজাদ কাশ্মীরের এক সমাবেশে দেয়া বক্তৃতায় ইমরান এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, 'আপনাদের অনেকেই নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে জম্মু-কাশ্মীরে প্রবেশ করতে চান, কিন্তু আমি আপনাদের বলব, আপনারা অপেক্ষা করুন, জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে আমি সারা বিশ্বের মানুষকে কাশ্মীরের জনগণের দুঃখ-দুর্দশা এবং নির্যাতনের ঘটনা জানাব। এরপর প্রয়োজনে আপনারা সীমান্ত পেরিয়ে আপনাদের ভাইদের পাশে দাঁড়াবেন।'

ওই সমাবেশে ইমরান খান নিজেকে 'কাশ্মীরের দূত' হিসেবে তুলে ধরে বলেন, তিনি আন্তর্জাতিক সব ফোরামে কাশ্মীর পরিস্থিতি এবং সেখানকার মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা তুলে ধরবেন। তিনি আরও বলেন, 'কাশ্মীর একটি মানবাধিকারের ইসু্য হয়ে দাঁড়িয়েছে, যেখানে নারী-পুরুষ, আবালবৃদ্ধবনিতা সবাই ভারতের দখলদার বাহিনীর হাতে নির্যাতিত হচ্ছে।'

পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে সুস্পষ্ট বার্তা দিতে চান, একমাত্র কাপুরুষরা জনগণের ওপর নির্যাতন চালানোর পথ বেছে নেয়। ভারতের মুসলমান ও সংখ্যাগুরু মানুষের ওপর হিন্দু ফ্যাসিবাদ প্রতিষ্ঠার যে ভয়াবহ এজেন্ডা মোদি সরকার হাতে নিয়েছে, তার জন্য তাকে চড়া মূল্য দিতে হবে।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে