logo
শনিবার ২৪ আগস্ট, ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১৫ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষেপ

চীনের কিছু পণ্যে

শুল্ক স্থগিত

যাযাদি ডেস্ক

চীন থেকে আমদানি করা কয়েক হাজার কোটি ডলারের পণ্যে সেপ্টেম্বর থেকে ১০ শতাংশ শুল্কারোপের পরিকল্পনা থাকলেও কয়েকটি পণ্যে তা আপাতত

স্থগিত রাখছেন যুক্তরাষ্ট্রের

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ওই কয়েকটি পণ্যে শুল্কারোপ ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত বন্ধ রাখা হচ্ছে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে, মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ, ভিডিও গেম কনসোল, কিছু খেলনা, কম্পিউটার মনিটর এবং কিছু কাপড়চোপড় ও পায়ে পরার জিনিস।

স্বাস্থ্য, নিরাপত্তা, জাতীয় নিরাপত্তাসহ আরও কয়েকটি দিক বিবেচনায় পণ্যগুলোতে শুল্কারোপের দিন পিছিয়ে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ওই কয়েকটি পণ্য ছাড়া বাকি পণ্যগুলোতে পূর্বপরিকল্পনা মতো ১ সেপ্টেম্বর থেকেই ১০ শতাংশ

শুল্ক আরোপ করা হবে।

ক্রিসমাসের আগে মার্কিন ক্রেতাদের যাতে শুল্কের কারণে জিনিস কিনতে সমস্যায় না পড়তে হয়, সে কারণেও দেরিতে শুল্কারোপের পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন ট্রাম্প।

শুল্কারোপ পেছানোর এ খবরেই অ্যাপলের শেয়ার একলাফে ৫ শতাংশ বেড়ে গেছে। প্রযুক্তিখাতে বিনিয়োগকারীরাও শুল্কে এ ছাড়ের খবরকে স্বাগত জানিয়েছেন।

ট্রাম্প গত ১ আগস্টেই চীনের ৩০ হাজার কোটি ডলারের পণ্যে ১০ শতাংশ শুল্কারোপের ঘোষণা দিয়েছিলেন। সংবাদসূত্র : বিবিসি

গরিবদের জন্য আর

গ্রিনকার্ড নয়

যাযাদি ডেস্ক

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন এখন থেকে স্বল্প আয়ের মানুষদের আর যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসের জন্য গ্রিন কার্ড দেবে না। গত সোমবার প্রকাশিত নতুন নিয়ম অনুযায়ী, আয় নূ্যনতম সীমা না পেরোলে বা ফুড স্ট্যাম্প, মেডিকেল ও সরকারি আবাসনের মতো পরিষেবা নিলে গ্রিন কার্ড বা সাময়িক বসবাসের জন্য ভিসার আবেদন খারিজ হতে পারে।

নিয়মে আরও বলা হয়েছে, কর্তৃপক্ষ যদি মনে করে- আবেদনকারী 'ভবিষ্যতেও কখনো সরকারি পরিষেবার ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়তে পারেন', তাহলেও ভিসা বা গ্রিন কার্ডের আবেদন খারিজ করা হতে পারে। অর্থাৎ, শুধু বর্তমান অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে নয়, ভবিষ্যতের আনুমানিক বিশ্লেষণের ওপরও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ঠাঁই

মিলবে কি-না, তা নিয়ে সিদ্ধান্ত

নেবে ট্রাম্প প্রশাসন।

এর জেরে শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই আনুমানিক ১০ লাখ ভিসা ও গ্রিন কার্ড আবেদনকারী বাদ পড়বেন। বিদেশের আরও প্রায় এক কোটি ৩০ লাখ আবেদনকারীর ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার কথা। এই অভিবাসন নীতি রূপায়িত করার পেছনে হাত রয়েছে ট্রাম্পের দীর্ঘদিনের সহচর স্টিফেন মিলারের।

মার্কিন প্রশাসনের তরফে অবশ্য দুটি যুক্তি দেয়া হয়েছে এই নিয়মের। তাদের দাবি, এর ফলে আত্মনির্ভর হয়ে উঠবে অভিবাসীরা, যা কিনা মার্কিন মূল্যবোধের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ।

দুই, কর বাঁচবে সাধারণ মানুষের।

সংবাদসূত্র : বিবিসি

ভূমিধসে মৃতের

সংখ্যা বেড়ে ৬১

যাযাদি ডেস্ক

মিয়ানমারের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ভূমিধসের ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬৩ জনে দাঁড়িয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

কয়েক দিনের টানা বৃষ্টিপাতের পর শুক্রবার মোন রাজ্যে ভূমিধসের ঘটনাটি ঘটেছিল, কিন্তু প্রবল বৃষ্টি ও কাদার কারণে উদ্ধারকাজ ব্যাহত হয়।

ভূমিধসে পাউং শহরসংলগ্ন একটি গ্রামের ২৭টি বাড়ি ধ্বংস হয়ে

গেছে। ঘটনার পাঁচ দিন পরও

উদ্ধারকাজ অব্যাহত আছে।

চলতি বর্ষা ঋতুতে বৃষ্টিপাতে মিয়ানমারের বিভিন্ন অংশে ব্যাপক বন্যা দেখা দিয়েছে। এতে ঘরবাড়ি ডুবে গেছে, বহু সেতু ধ্বংস বা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। দেশজুড়ে দুর্গত ৮০ হাজার লোক ত্রাণশিবিরে আশ্রয় নিয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

মিয়ানমারের অনেকগুলো রাজ্য বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ মোন রাজ্যেই সবচেয়ে বেশি। সংবাদসূত্র : বিবিসি, রয়টার্স

ছয় কোটি বছরের

বৃহৎ পেঙ্গুইন

যাযাদি ডেস্ক

নিউজিল্যান্ডের সাউথ আইল্যান্ডে বৃহৎ আকারের পেঙ্গুইনের ফসিল খুঁজে পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। এসব পেঙ্গুইনের আকার পূর্ণ বয়স্ক মানুষের সমান।

গবেষকরা জানান, বৃহৎ আকারের এই পেঙ্গুইনের উচ্চতা ছিল ১.৬ মিটার (৬৩ ইঞ্চি) এবং ওজন ৮০ কিলোগ্রাম। এগুলো ছিল বর্তমান ইমপিরর পেঙ্গুইনের চেয়ে চার গুণ ভারী এবং ৪০ সেন্টিমিটার লম্বা।

এই পেঙ্গুইনের নাম 'ক্রসভালিস্নয়া ওয়াইপারেনসিস'। এরা নিউজিল্যান্ড উপকূলে শিকার করে বেড়াতো। এদের বাস ছিল ৬৬ থেকে ৫৬ মিলিয়ন বছর আগে পলিওসিন যুগে।

গত বছর একজন শৌখিন ফসিল অনুসন্ধানী এই ধরনের পেঙ্গুইনের পায়ের হাড়ের ফসিল খুঁজে পান। পরে সেটি পরীক্ষা করে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পরে চলতি সপ্তাহে জীবাশ্ম বিজ্ঞানবিষয়ক জার্নাল 'অ্যালসিরিনগা'-এ প্রকাশ করে। সংবাদসূত্র : এএফপি অনলাইন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে