logo
শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ৩ কার্তিক ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ২৭ জুন ২০১৯, ০০:০০  

সংসদীয় দলকেও ফেরালেন রাহুল পদত্যাগের সিদ্ধান্তে অনড়

সংসদীয় দলকেও ফেরালেন রাহুল পদত্যাগের সিদ্ধান্তে অনড়
রাহুল গান্ধী
সংসদীয় দলের অনুরোধেও তাকে টলানো গেল না। ভারতের কংগ্রেস সভাপতির পদ থেকে পদত্যাগের সিদ্ধান্তে অবিচলই রইলেন রাহুল গান্ধী। বুধবার বরং আরও স্পষ্ট করে রাজিব-পুত্র জানিয়ে দিলেন, তিনি সিদ্ধান্তে অনড়। কোনো অনুরোধেও যে সেই সিদ্ধান্ত বদল করা সম্ভব নয়, সে কথাও খোলাখুলি আরেকবার বলে দিলেন তিনি। সংবাদসূত্র : এবিপি নিউজ

লোকসভা ভোটে ভরাডুবি হয়েছে কংগ্রেসের। ২৩ মে ভোটের ফল ঘোষণার পর গত ২৫ মে পর্যালোচনা বৈঠকে বসে কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি (সিডাবিস্নউসি)। ওই বৈঠকেই রাহুল বিপর্যয়ের দায় ১০০ শতাংশ নিজের কাঁধে নিয়ে পদত্যাগপত্র জমা দেন। কিন্তু সিডাবিস্নউসি তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ না করে পদে থেকে যাওয়ার অনুরোধ করে। কিন্তু রাহুল তাতে রাজি হননি। তারপরও বহুভাবে তাকে বোঝানোর চেষ্টা হয়েছে। সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানিয়েছেন দলের শীর্ষ নেতৃত্বের প্রায় সবাই। এমনকি, রাহুলের মা তথা কংগ্রেসের সাবেক সভাপতি সোনিয়া গান্ধী এবং বোন প্রিয়াঙ্কাও তাকে বোঝানোর অনেক চেষ্টা করেন। কিন্তু রাহুল তার অবস্থান পরিবর্তন করেননি।

এই পরিস্থিতিতে বুধবার কংগ্রেস সংসদীয় দলের একটি বৈঠক হয় দিলিস্নতে। সংসদীয় দলনেত্রী সোনিয়া গান্ধীর সভাপতিত্বে এই বৈঠক হয়। সেখানেই এদিন ফের সেই পদত্যাগের প্রসঙ্গ ওঠে। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, সাংসদরাও বলেন, আপনি ছাড়া আর কেউ কংগ্রেসকে নেতৃত্ব দিতে পারবে না। কিন্তু রাহুল বলেন, 'এটা এই আলোচনার মঞ্চ নয়। আপনারা সবাই বিষয়টি উত্থাপন করেছেন। কিন্তু আমি সিডাবিস্নউসিকে আমার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছি। একটা বিশ্বাসযোগ্যতা তো থাকা দরকার।' পরে দলের এমপি শশী থারুর ফের একই অনুরোধ করেন। কিন্তু রাহুল তাকেও বলেন, পদত্যাগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার কোনো প্রশ্নই নেই।

অন্যদিকে, বুধবারই দিলিস্নতে কংগ্রেসের ছাত্র সংগঠন 'ন্যাশনাল স্টুডেন্টস ইউনিয়নের কর্মী-সমর্থকরা রাহুলের বাড়ির সামনে জড়ো হন। 'দেশ আপনাকে চায়', 'আপনাকে ছাড়া আমরা কিছুই নয়'- এই ধরনের পোস্টার-ব্যানার ছিল তাদের হাতে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাদেরও খালি হাতেই ফিরতে হয়েছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে